channel 24

সর্বশেষ

  • পাকিস্তানের তালেবানকে প্রশ্রয় দেয়া উচিত নয়: মালালা

  • প্রকৌশলীর মোটরসাইকেল আটক করায় ট্রাফিক অফিসে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন

  • যশোর শিক্ষাবোর্ডের দুর্নীতির প্রমাণ লোপাটের আশঙ্কা

  • বাণিজ্য-বিনিয়োগ খাতে সহযোগিতা বাড়াতে সম্মত বাংলাদেশ-বেলজিয়াম

  • দেড় কোটি টাকায় বিক্রি হলো হুররাম সুলতান

  • প্রার্থী হয়ে লাউয়ের বীজ বিলাচ্ছেন লাল

  • সংবিধানে মুক্তিযুদ্ধ ও বীর মুক্তিযোদ্ধার বিষয় যুক্ত করতে রিট

  • দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা দিলো ট্রেন

  • নরসিংদীতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সং ঘর্ষে নি হ ত ২

  • মুসলিম থেকে হিন্দু হলেন ইন্দোনেশিয়ার জাতির জনকের মেয়ে

  • বাংলাদেশ ম্যাচের আগে শক্তি বাড়াল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

  • আরিয়ানের তদন্তকারী সমীরের বিরুদ্ধে ঘুষের অভিযোগ

  • আবাসিক হোটেল থেকে ঢাবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত ম র দে হ উদ্ধার

  • গুনে গুনে পাঁচ গোল হজম করল বায়ার্ন মিউনিখ

  • আরিয়ান-কাণ্ডে নতুন মোড়: অন্যতম সাক্ষী কিরণ গোসাভি আটক

যে পাঁচ নথি প্রকাশে তোপের মুখে ফেসবুক

যে পাঁচ নথি প্রকাশে তোপের মুখে ফেসবুক

চলতি সপ্তাহে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এবং অন্য সব স্থানে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে ফেসবুক অভ্যন্তরীণ কাজের জন্য বেশ সমালোচনার শিকার হয়েছে। খবর বিবিসি’র।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অধিকাংশ তথ্যই ফেসবুক থেকে এসেছে। এ সব তথ্য ফেসবুক তার অভ্যন্তরীণ কাজে ব্যবহার করে।

এ সব তথ্য প্রকাশ হওয়ার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার এবং নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ব্যাপক সমস্যার সম্মুখীন হবে। তবে ফেসবুক সব সমলোচনার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

চলতি সপ্তাহে যেসব কাজের জন্য ফেসবুক সমালোচনার শিকার হয়েছে এমন কাজের মধ্যে পাঁচটি বিষয় তুলে ধরা হচ্ছে।

১. জনপ্রিয় ব্যক্তিদের সঙ্গে ফেসবুকের বৈষম্যমূলক আচরণ

ওয়ালস্ট্রিট জার্নালে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে বিবিসি জানিয়েছে বিভিন্ন সেলিব্রেটি, রাজনৈতিক ব্যক্তিসহ হাই-প্রোফাইল ব্যক্তিরা কোন ধরনের পোস্ট ফেসবুকে প্রকাশ করতে পারবে তার জন্য নতুন নিয়ম জারি করেছে ফেসবুক। এই নিয়ম অনুযায়ী প্রত্যেক সেলিব্রেরির প্রোফাইলে কী ধরনের পোস্ট করা হচ্ছে তা খুঁটিয়ে দেখা হবে।

২. মানবপাচারের বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকের অবহেলা

মানবপাচারের বিষয়ে ফেসবুকের যেভাবে সরব হওয়া উচিত ছিল, কিন্তু ফেসবুকের কর্মীরা সেভাবে সরব হয়নি বলে অভিযোগ জানানো হয়েছে।

৩. শেয়ার হোল্ডারদের সঙ্গে মামলার লড়াই

ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিক্যাল তথ্য ফাঁস হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্র ফেডারেল ট্রেড কমিশন গঠন করে এ সমস্যার সমাধান করা হয়। এ ঘটনায় ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জুকারবার্গকে ৩.৬৫ বিলিয়ন ডলার খরচ করতে হয়েছে । তবে জুকারবার্গকে রক্ষায় এ ঘটনাকে পরিকল্পিত হিসেবে অখ্যায়িত করেছে অনেক শেয়ার হোল্ডার।

এরপর থেকে অনেক শেয়ার হোল্ডার ফেসবুকে বিরুদ্ধে একের পর মামলা করছে। তবে অব্যাহত মামলার বিষয়ে ফেসবুকের কিছুই করার নেই বলে জানিয়েছে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: সব ডিভাইসে এক ধরনের চার্জার বাধ্যতামূলক, বিপাকে অ্যাপল

৪. নিজের সম্পর্কে ভালো খবরগুলো সামনে আনা

চলতি সপ্তাহে নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফেসবুক তার ইমেজ ফেরানোর জন্য একটি কাজ হাতে নিয়েছে। এ কাজের অংশ হিসেবে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের জন্য এই স্যোশাল নেটওয়াকর্টি বিভিন্ন ইতিবাচক দিকগুলো সামনে নিয়ে আসছে। তবে নিউ ইয়র্ক টাইমসের এ খবরকে নাচক করে দিয়েছে ফেসবুক। 

৫. ফেসবুক জানত ইনস্ট্রাগ্রাম তরুণদের জন্য খুবই ভয়াবহ

ইনস্ট্রাগ্রাম ব্যবহারে তরুণ প্রজন্ম কতটা বিপদের সম্মুখীন হতে পারে তা নিয়ে আগেই বিস্তর গবেষণা চালায় ফেসবুক। সেই গবেষণায় উঠে আসে ইনস্ট্রাগ্রাম ব্যবহারে তরুণ প্রজন্ম কতটা ভয়াবহ ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে। এরপরও ফেসবুক ইনস্ট্রাগ্রামকে তরুণদের কাছে জনপ্রিয় করতে কাজ চালিয়ে যায়।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৩২ শতাংশ তরুণী তাদের দেহ নিয়ে যখন খারাপ কিছু অনুভব করে তখন সেটিকে আরও খারাপ করে তোলে ইনস্ট্রাগ্রাম।

জে/এমকে

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর