channel 24

সর্বশেষ

  • ফেসবুকে ধর্ম অবমাননা: আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি পরিতোষের

  • বুকে ব্যথা হৃদরোগের লক্ষণ নয় তো? করণীয় কী?

  • সম্প্রীতির মিছিলে প্রতিরোধের ডাক

  • ভারী বৃষ্টি ও বন্যায় ৩৪ জনের মৃত্যু

  • শাজাহান খানকে নৌকার বিরোধিতা না করার হুঁশিয়ারি জেলা আ.লীগ সভাপতির

  • আবারও জুটি বাঁধছেন যশ-নুসরাত

  • পাওয়ার প্লেতে বিবর্ণ বাংলাদেশ

  • মৌলভীবাজারে বিশেষ সংহতি সভা অনুষ্ঠিত

  • ভারত-পাকিস্তান সিরিজ আয়োজনে সৌরভ-রমিজ আলোচনা

  • লিটনের পর ফিরলেন মেহেদি

  • বাংলাদেশ-ভারত নৌ সচিব পর্যায়ের বৈঠক বুধবার

  • জীবন পেয়ে কাজে লাগাতে ব্যর্থ লিটন

  • দেড় বছর পর খুলল চবি, প্রাণ ফিরেছে ক্যাম্পাসে

  • মৌলভীবাজারে ক্ষতিগ্রস্ত পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার

  • ধর্ম নিয়ে যেন কেউ বাড়াবাড়ি না করে: প্রধানমন্ত্রী

‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সব কিছু বন্ধ করতে পারি না’

‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সব কিছু বন্ধ করতে পারি না’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সব কিছু বিটিআরসি বন্ধ করতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার। তিনি বলেন, ‘আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সব কিছু বন্ধ করতে পারি না। এখানে তাদের অফিস নেই। ফলে তাদেরকে বিভিন্ন লিংক, ভিডিও ইত্যাদি বন্ধ করতে অনুরোধ পাঠাতে হয়। কিছু অনুরোধ তারা রাখে, কিছু অনুরোধ রাখে না। এ দেশে তাদের অফিস থাকলে বাধ্য করা যেত।’

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর রমনায় বিটিআরসি’র সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, কনটেন্ট এবং আনুষঙ্গিক বিষয়’ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

শ্যাম সুন্দর সিকদার বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নিয়ন্ত্রণের সব ক্ষমতা বিটিআরসির নেই। আমাদের অনেক ক্ষমতা রয়েছে, আইন সে ক্ষমতা দিয়েছে কিন্তু সেই ক্ষমতার মধ্যেও কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে।’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়াল মাধ্যমে সংযুক্ত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘ইন্টারনেটের ব্যবহার বাড়ায়, এ কেন্দ্রিক অপরাধও বেড়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকেন্দ্রিক সব কনটেন্ট প্রযুক্তিগত কারণেই অপসারণ করা সম্ভব হয় না।’

মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের সীমানার মধ্যে ওয়েবসাইটগুলো পুরোপুরি বন্ধ করা গেলেও সামাজিক মাধ্যমগুলোর সব লিংক পুরোপুরি বন্ধ করা সম্ভব হয় না। কারিগরি অনেক বিষয় এখানে জড়িত।’

আরও পড়ুন: ইন্টারনেটের ধীরগতি সমস্যার সমাধান করতে হবে: হাইকোর্ট

টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, ‘সমস্যা যা হলো ওদের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড নিয়ে। ওদের কাছে যা স্ট্যান্ডার্ড তা আমাদের স্ট্যান্ডার্ড মনে নাও হতে পারে বা আমাদের সমাজ সংস্কৃতির সঙ্গে যায় না। এটাই ফেসবুক বুঝতে চায় না।’

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘যে বিষয় বন্ধ করার সক্ষমতা বিটিআরসি’র নেই, সে বিষয়ে আমাদের দায়ি করা হলে তা অবিচার হবে।’

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. আফজাল হোসেন বলেন, ‘আমরা দেশ ও জাতি- সবার প্রয়োজনেই কাজ করছি। আমাদের কাজটা প্রযুক্তিনির্ভর। সেটা বুঝতে হবে। কারণ প্রযুক্তিরও কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, পরীমণি ও পুলিশ কর্মকর্তা এবং ডা. সাবরিনা ও আরিফ চৌধুরীর ব্যক্তিগত ভিডিও অপসারণ করার বিষয়ে কেউ বিটিআরসিতে আবেদন করেনি। যদিও এরই মধ্যে ফেসবুকের কাছে ৫০টি এবং ইউটিউবের কাছে ৩৫টি লিংক সরানোর জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এর আগে বিটিআরসি’র সিস্টেম অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসিম পারভেজ মাল্টিমিডিয়া উপস্থাপনের মাধ্যমে সংস্থাটির বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরেন।

এসিএন/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর