channel 24

সর্বশেষ

  • 'নদী বাঁচলে মানুষ বাঁচবে'

  • শিরোপা অক্ষুন্ন রাখার মিশনে প্রস্তুত টাইগার যুবারা

  • দুর্নীতির মামলায় সাবেক প্রতিমন্ত্রী মান্নান খান ও তার স্ত্রীর বিচার শুরু

  • সোমবার থেকে লাখ লাখ স্মার্টফোনে বন্ধ হচ্ছে গুগলের সেবা

  • খুলেছে ঢাবি গ্রন্থাগার, কর্তৃপক্ষের নির্দেশ উপেক্ষা চাকরিপ্রার্থীদের

  • সাড়ে ১০ হাজার শ্রমিককে ভিসা দেবে যুক্তরাজ্য

  • নাসিরনগরে পানিতে ডুবে যমজ ভাই-বোনের মৃত্যু

  • এক ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ, পিছিয়েছে বিএনপি: কাদের

  • বিমানবন্দরে পরীক্ষামূলকভাবে আরটিপিসিয়ার ল্যাব চালু

  • তেলের মিলের পাশে পড়ে ছিলো আনসার কমান্ডারের লাশ

  • স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে মাস্ক ও হ্যান্ড সেনিটাইজার পেল গার্ল গাইডস

  • কুষ্টিয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তা খুন: বিচার চেয়ে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

  • ‘সঞ্চয়পত্রের সুদের হার কমানোর সিদ্ধান্ত সময়োপযোগী নয়’

  • রাজবাড়ীতে গাছ কাটতে গিয়ে বিস্ফোরণ, নারীসহ আহত ৩

  • দেশে করোনায় মৃত্যু কমলো, বাড়লো শনাক্ত

অবসরকালীন ছুটি কাটাতে মহাকাশ ভ্রমণে যাচ্ছেন জেফ বেজোস

অবসরকালীন ছুটি কাটাতে মহাকাশ ভ্রমণে যাচ্ছেন জেফ বেজোস

অবসরকালীন ছুটি কাটাতে মহাকাশ ভ্রমণে যাচ্ছেন বিশ্বের অন্যতম ধনকুবের জেফ বেজোস। মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় নিজের প্রতিষ্ঠিত ব্লু অরিজিনের তৈরি মাহাকাশযান দ্য নিউ শেপার্ডে চড়ে মহাকাশের উদ্যেশ্যে পাড়ি জমাবেন অ্যামাজনের সদ্য বিদায়ী সিইও বেজোস।

অ্যাপোলো-১১ এর চন্দ্রাভিযানের ৫২তম বার্ষিকীকে সম্মান জানাতে এই দিনটিকেই মহাকাশ অভিযানের জন্য বেছে নিয়েছেন বেজোস। ১৯৬৯ সালে এই দিনেই নীল আর্মস্ট্রং ও বাজ আলড্রিন প্রথম চাঁদে পা রাখেন।

বেজোসের মহাকাশে ভ্রমণের শখ বহুদিনের। শখপূরণের জন্যই নিজের সংস্থা ‘ব্লু অরিজিন’এ কোটি কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছেন তিনি। এই সংস্থার বানানো রকেটেই তিনি যাচ্ছেন মহাকাশ ভ্রমণে।

দ্য নিউ শেপার্ড নামের রকেটটি ১০০ কিলোমিটার উচ্চতায় মহাকাশ ও পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের মধ্যবর্তী কারম্যান লাইনে কিছুক্ষণ অবস্থান করেই আবার ফিরে আসবে। পুরো ভ্রমণটি সম্পন্ন হবে ১১ মিনিটে।

তবে মহাকাশ ভ্রমণকারী ব্যক্তি হিসেবে জেফই প্রথম ব্যক্তি নন। এর আগে বেজোসের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী ব্রিটিশ বিলিয়নিয়ার ব্যবসায়ী এবং ভার্জিন গ্যালাক্টিকের প্রতিষ্ঠাতা রিচার্ড ব্র‍্যানসন ১১ জুলাই মহাকাশ ভ্রমণ করে এসেছেন৷

এটাকে কোন প্রতিযোতিগা বলে মানতে নারাজ বেজোস। তিনি বলেন, ‘'এটা কোনও প্রতিযোগিতাই নয়৷ এটা শুধুই মহাকাশ অবধি একটি যাত্রাপথ তৈরি করার এক প্রচেষ্টামাত্র। যাতে আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম নানাবিধ অসাধারণ কিছু কাজ করতে পারে মহাকাশে।’

বেজোসের সাথে মহাকাশ ভ্রমণ করার সুযোগ পাচ্ছেন আরো তিনজন। তারা হলেন, বেজোসের ভাই মার্ক বেজোস, ৮৩ বছর বয়সী পাইলট ও সাবেক মার্কিন বিমানচালক ওয়ালি ফাংক এবং সদ্য হাইস্কুল থেকে পাশ করা ১৮ বছর বয়সী ডাচ কিশোর অলিভার ডিমেন। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ওয়ালি ফাংক হবেন প্রবীণতম মহাকাশচারী আর অলিভান ডিমেন ইতিহাসে নাম লেখাবেন সর্বকনিষ্ঠ মহাকাশযাত্রী হিসেবে। ফলস্বরূপ মজার বিষয় হচ্ছে, একই অভিযানে থাকছেন পৃথিবীর শীর্ষ ধনী, প্রবীণতম এবং সর্বকনিষ্ঠ মহাকাশযাত্রী।

মহাকাশে ভাসমান আবাসন নির্মাণের লক্ষ নিয়ে ২০০০ সালে ‘ব্লু অরিজিন’ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন বেজোস৷ সেই লক্ষ্যের দিকে ধীরে ধীরে পা এগিয়ে যাচ্ছে সংস্থাটি৷

এসিএন/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর