channel 24

সর্বশেষ

  • করোনায় দেশে আরো ৮৮ জনের মৃত্যু

  • লঙ্কান ঘাটিতে প্রথম আঘাত মিরাজের

  • ঈদকে সামনে রেখে ঝুঁকি নিয়ে দোকান খুলছেন গোপালগঞ্জের ব্যবসায়ীরা

  • একক দেশের সাথে ভ্যাকসিনের চুক্তি ছিল বোকামি

  • করোনার দুঃসময়ে অসুস্থতার প্রতি মুহূর্ত কাটে অজানা আতঙ্কে

  • বোরোর ফলন ভালো হলেও শ্রমিক সংকটে দুঃশ্চিন্তায় সুনামগঞ্জ ও নওগাঁর কৃষকরা

  • ২৫ এপ্রিল খুলছে দোকানপাট ও শপিংমল

  • করোনায় খেয়ে না খেয়ে দিন কাটছে পথশিশুদের

  • ভারতে ভয়াবহ হচ্ছে করোনা পরিস্থিতি, ভেঙ্গে পড়েছে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা

  • ক্যান্ডিতে ৫০০ রানের কোটা পেরিয়েছে বাংলাদেশ

  • নানা সংকটে নাটোর সদর হাসপাতাল, নেই আইসিইউ ও সেন্ট্রাল অক্সিজেন

  • ধর্ষণ মামলার পর আত্মগোপনে বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি

  • চট্টগ্রামে ব্যাংক কর্মকর্তার আত্মহত্যা: বিচার না পাওয়ার শঙ্কায় স্বজনরা

  • মেসির জোড়া গোলে গোল উৎসব কাতালানদের

  • ৩০ এপ্রিল মাঠে ফিরছে দেশের ফুটবল

২৭ দশমিক ৪০ মেগাহার্টজ তরঙ্গ কিনলো চার মোবাইল অপারেটর

২৭ দশমিক ৪০ মেগাহার্টজ তরঙ্গ কিনলো চার মোবাইল অপারেটর

তরঙ্গ নিলাম বাবদ সাড়ে পাঁচ বছরের জন্য সরকারের রাজস্ব আয়ে যুক্ত হলো তিন হাজার ৯৩ কোটি টাকা। দেশের চার মোবাইল অপারেটরের জন্য ফোর জি প্রযুক্তির ১৮শ ও ২১শ ব্যান্ডে মোট ২৭ দশমিক ৪ মেগাহার্টজ তরঙ্গ বিক্রি বাবদ এ আয় হলো। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর মধ্যে ফাইভ জি প্রযুক্তির তরঙ্গ নিলাম ও নেটওয়ার্ক চালুর আশা সরকারের।

ফোর জি প্রযুক্তির ২১শ ব্যান্ডে ৫ মেগাহার্টজ তরঙ্গের জন্য দীর্ঘ প্রায় ৬ ঘন্টার নিলাম লড়াই। গ্রামীণ ফোন এবং রবির মধ্যে ৮১ রাউন্ডের নিলাম শেষে যে ব্যান্ড পেলো সবচেয়ে বেশি গ্রাহকের গ্রামীণফোন, কিনতে হলো প্রায় ৪৭ মিলিয়ন ডলারে।

সোমবার (৯ মার্চ) সকাল এগারোটায় শুরু হওয়া নিলাম চলে প্রায় সাড়ে নয় ঘন্টা। যাতে ১৮শ এবং ২১শ ব্যান্ডে সর্বমোট ১০ দশমিক শূন্য চার মেগাহার্টজ তরঙ্গ কিনে সবচেয়ে বেশি তরঙ্গের মালিক হলো গ্রামীণফোন। এরপরের অবস্থানগুলোতে বাংলালিংক তরঙ্গ কিনেছে নয় দশমিক চার শূন্য ও রবি নিয়েছে সাত দশমিক ছয় শূন্য মেগাহার্টজ তরঙ্গ। ২১শ ব্যান্ডের তরঙ্গ নিলামে অংশ নিলেও নিজেদের ঘরে কিছুই নিতে পারেনি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব মোবাইল টেলিকম অপারেটর টেলিটক।

সংবাদ সম্মেলনে অপারেটরদের পক্ষ থেকে তরঙ্গ নিলামের ব্যাপারে জানা যায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া। মন্ত্রীর আশা বরাদ্দ পাওয়া নিলামে গ্রাহক সেবা হবে আরও উন্নত।

আগামী ১৫ বছরের জন্য বিক্রি হওয়া তরঙ্গ বাবদ সরকারের রাজস্ব আয় হবে ৭হাজার ৬শ ২৫ কোটি টাকা। তবে ২০২৭ সাল পর্যন্ত অপরেটরদের লাইসেন্সের মেয়াদ থাকায় আপাতত সাড়ে ৫ বছরের জন্য সরকার পাচ্ছে প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর