channel 24

সর্বশেষ

  • রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে মামলা

  • মালদ্বীপে বকেয়া বেতনের দাবিতে পুলিশের সাথে শ্রমিকদের সংঘর্ষ, ৩৯ বাংলাদেশি আটক

  • পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি বিধায়কের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

  • থমকে যাওয়া সেই নৌপথে আবারও দুরন্ত গতিতে ছুটবে জলযান

  • সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • দু'বছর ধরে লাইসেন্স ছাড়াই লাজ ফার্মার ব্যবসা

  • জাভি হার্নান্দেজই হচ্ছেন বার্সেলোনার কোচ: ক্লাব প্রেসিডেন্ট

  • আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলতে বাধা নেই ম্যান ইউ'র

  • টাকা চাইলেই পাওনাদারদের ওপর নামতো জেকেজির নির্যাতনের খড়গ

  • বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ১০টি নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে

  • হজ্জ্ব ক্যাম্পে কোয়ারেন্টিন শেষে বাড়ি ফিরলো ৯৬ কুয়েত প্রবাসী

  • সর্দিজ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ৬ জনের মৃত্যু

  • ৭ মার্চকে 'জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস' ঘোষণার প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় সম্মতি

  • লাজ ফার্মায় র‌্যাবের অভিযান

  • সাবরিনার কাছে রিমান্ডে মিলতে পারে ভুয়া করোনা সনদ বাণিজ্যের তথ্য

সফটওয়্যারকেন্দ্রিক অ্যাপ তৈরি করে বিপুল আয়ের সম্ভাবনা

সফটওয়্যারকেন্দ্রিক অ্যাপ তৈরি করে বিপুল আয়ের সম্ভাবনা

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে থেকে ৫ বিলিয়ন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করছে সরকার। বিগত কয়েক বছর যাবত দ্রুত গতিতে আয়ের প্রবৃদ্ধিই নতুন এই লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারনের প্রধান কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। আর এই আয়ের অন্যতম প্রধান মাধ্যম সফটওয়্যারকেন্দ্রিক অ্যাপ তৈরি প্রক্রিয়া। নির্মাতাদের মতে, দেশ এবং পণ্যের যথাযথ প্রচারনার পাশাপাশি বাস্তবমুখী পরিকল্পনা সাজালে অসম্ভব নয় এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জন।

জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের সব শ্রেণির পাঠ্য বইয়ের, মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন-এসসিটিবি বুকস তৈরি করছেন দেশীয় নির্মাতারা।  এছাড়া বেশ কয়েক বছর আগে থেকেই সংস্থাটির ওয়েবসাইটে পাঠ্যপুস্তকগুলোর পিপিএফ রূপও দেয়া আছে।

মাধ্যমিক পর্যায়ের ষষ্ঠ, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির সাধারণ বিজ্ঞান বিষয়টিকে শিক্ষার্থীদের কাছে আরও সহজ ও আকর্ষণীয় করতে, ২০১৮ সালে 'বিজ্ঞানের রাজ্যে' নামে তিনটি গেম তৈরি করে, দেশীয় অ্যাপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান-ড্রিম সেভেন্টিওয়ান। তবে, শুধু প্রচার-প্রচারণার অভাবে পরিচিতি পায়নি তা।

ড্রিম ৭১ বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশাদ কবির বলেন, আমাদের মার্কেটিংয়ের যে শিক্ষা থাকা দরকার সেখানে যথেষ্ট ঘাটতি রয়েছে।  

গেল বছর সফটওয়্যার খাত থেকে একশো কোটি ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশ। তাই ২০২৫ সাল নাগাদ নতুন লক্ষ্যমাত্রা ৫শো কোটি ডলার। অ্যাপ নির্মাতারা বলছেন, লক্ষ্য কঠিন হলেও সঠিক পরিকল্পনায় এটি অর্জন সম্ভব।

ব্রেন স্টেশন ২৩ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাইসুল কবির বলেন, কঠিন হলেও সঠিক পরিকল্পনায় এটি অর্জন সম্ভব। তবে এই ক্ষেত্রে আমারা যারা বেসরকারি ক্ষেত্রে কাজ করছি তদেরকে সরকারের পুরো সাপোর্ট দিতে হবে। ভালো অর্গানাইজেশনগুলোকে সামনে আগায় আসতে হবে যেন ভাল কোয়ালিটির ছেলেপেলেদের ট্রেনিং দিয়ে তাঁদের নেয়া যায়।

অতীতের বেশকিছু ব্যর্থতার দৃষ্টান্তকে শিক্ষনীয় হিসেবে সামনে রেখে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করেছে সরকার। তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আমাদের যে অভিজ্ঞতা হয়েছে গত ১০-১১ বছরে, এখন আমরা আরও বেশি আত্মবিশ্বাসী যে আমাদের দেশের সফটওয়্যার ডেভেলপাররাই আমাদের যে প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ডেভেলপ করে আমারা আমাদের চাহিদা পূরণ করতে পারবো। মার্কেট অ্যানালাইসিস করে বলতে পারি যে আমরা ২০২৫ সাল নাগাদ ৫শো কোটি ডলার আমরা আয় করতে পারবো।

বর্তমানে বিশ্বজুড়ে প্রতি বছর গড়ে ১০ কোটি অ্যাপসের চাহিদা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর