channel 24

সর্বশেষ

  • চিঠি পাঠিয়ে তাইওয়ানকে সতর্ক করলেন জিনপিং

  • গ্রামে বেড়ে ওঠার সময়গুলো খুব মিস করি: শফিক তুহিন

  • বাংলা সিনেমায় প্রথম অ্যানিমেশন টিজার প্রকাশ করলো ‘পদ্মাপুরান’

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এবার ৫৮০ মণ্ডপে দুর্গাপূজা

  • পার্বত্য চট্টগ্রামের পথ কুকুর পাচার হচ্ছে মিজোরামে

  • 'নদী বাঁচলে মানুষ বাঁচবে'

  • শিরোপা অক্ষুণ্ন রাখার মিশনে প্রস্তুত টাইগার যুবারা

  • দুর্নীতির মামলায় সাবেক প্রতিমন্ত্রী মান্নান খান ও তার স্ত্রীর বিচার শুরু

  • সোমবার থেকে লাখ লাখ স্মার্টফোনে বন্ধ হচ্ছে গুগলের সেবা

  • খুলেছে ঢাবি গ্রন্থাগার, কর্তৃপক্ষের নির্দেশ উপেক্ষা চাকরিপ্রার্থীদের

  • সাড়ে ১০ হাজার শ্রমিককে ভিসা দেবে যুক্তরাজ্য

  • নাসিরনগরে পানিতে ডুবে যমজ ভাই-বোনের মৃত্যু

  • এক ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ, পিছিয়েছে বিএনপি: কাদের

  • বিমানবন্দরে পরীক্ষামূলকভাবে আরটিপিসিয়ার ল্যাব চালু

  • তেলের মিলের পাশে পড়ে ছিলো আনসার কমান্ডারের লাশ

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সমালোচনা নিয়ে বিরক্ত ডমিঙ্গো

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সমালোচনা নিয়ে বিরক্ত ডমিঙ্গো

টি টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দুর্বল নয়। এ নিয়ে সমালোচনায় বিরক্ত হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। মিচেল স্টার্ক ও হ্যাজেলউডকে নিয়ে সতর্ক থাকলেও তাদের ভালোভাবে মোকাবেলা করেই সফল হতে চায় বাংলাদেশ। কঠিন হলেও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের এটাই সেরা সুযোগ বলে মনে করেন হেড কোচ।

প্রাণ ফিরে পেলো মিরপুরের হোম অব ক্রিকেট। দীর্ঘদিন পর মাঠে টাইগাররা। তিনদিনের রুম কোয়ারেন্টিন শেষে আকাশ দেখা আর বাতাসের ঘ্রাণ নেয়ার স্বাদ।

ওয়ার্মআপে শুরু অনুশীলন। এরপর প্রানোচ্ছল ফুটবল। তবে মাঠে কিছুটা ভিন্ন পরিবেশ। ক্রিকেটার বা দল সংশ্লিষ্ট ছাড়া আর কারো অনুমতি নেই মাঠে যাবার। গ্রাউন্ডসম্যানহীন পরিবেশটা বড্ড অচেনা।

তবে ক্রিকেটারদের কাজ মাঠে নিজেদের উজাড় করে দেয়া। অনুশীলনে তাই সবাই সিরিয়াস। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং। হয়েছে তিন বিভাগেরই স্কিল সেশন। টিম ম্যানেজমেন্টের ভাবনায় অস্ট্রেলিয়ার মতো বড় দলের সঙ্গে খেলার সুযোগটা কাজে লাগানো।

ওপেনিংয়ে সৌম্য সরকার-নাইম শেখ ছাড়া বিকল্প নেই। তবে হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ভাবছেন ভিন্নভাবে। তিনি বলেন, লম্বা ব্যাটিং অর্ডার। প্রয়োজনে সাকিব ওপেনিং করবে। মিঠুনও বিকল্প হতে পারে। বিশ্বের সেরা একটা দলের বিপক্ষে খেলা তরুণদের জন্য বড় সুযোগ।

আরও পড়ুন: দ্রুততম মানব ইতালির মার্সেল জ্যাকবস

অপরদিকে অস্ট্রেলিয়ার অদ্ভূত শর্তের বলি মুশফিকুর রহিম। ম্যাচ শুরুর ১০ দিন আগেও বায়োবাবলে ঢুকতে পারতেন মিস্টার ডিপেন্ডেবেল। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার শর্ত, সেই ১০ দিন হতে হবে তাদের ঢাকায় আসা পর্যন্ত। এ নিয়ে কোচের বক্তব্য, আমি বুঝতে পারছি না কেন মুশফিকের বাবল নিয়ে অস্ট্রেলিয়া এতো কঠোর। আমার মনে হয় ১০ দিন বায়োবাবল যথেষ্ট। এটা খুবই হতাশার।

টি টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের দুর্বলতা মানতে রাজি নন রাসেল ডমিঙ্গো। এ নিয়ে সমালোচনায় আপত্তি কোচের। টাইগার কোচ বলেন, সবসময় নেগেটিভ কথায় কখনো কখনো বিরক্ত লাগে। আমাদের অবশ্যই উন্নতি করতে হবে। কেননা এই ফরম্যাটে বেশি ম্যাচ খেলি না। নিউজিল্যান্ডে ভাল না করলেও, জিম্বাবুয়েতে ভাল খেলেছি। বিশ্বকাপের আগের সিরিজগুলো থেকে আত্মবিশ্বাস নিয়ে যেতে চাই।

অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং দুর্বলতার বিপরিতে বোলিংয়ে মিচেল স্টার্ক আর জস হ্যাজেলউডকে নিয়ে বেশি আলোচনাও পছন্দ নয় হেড কোচের। বাংলাদেশের হেড কোচ বলেন, ওরা ভাল বোলার আমরা জানি। তবে ব্যাটসম্যানরা স্টার্ক, হ্যাজলউডকে নয়, মোকাবেলা করবে তাদের বল। ওরা মানুষ, ওদেরও কিছু বল খারাপ হতে পারে।

প্রথম দিনের অনুশীলনে মোসাদ্দেকের দেখা মেলেনি। দলের সঙ্গী হলেও ড্রেসিংরুমেই সময় কাটিয়েছেন তিনি।

এএ

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর