channel 24

সর্বশেষ

  • নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে, আহত ৩০

  • যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ক্ষতিপূরণ চায় কাবুল হামলায় নিহতদের পরিবার

  • আফগানিস্তানের মেয়েরা প্রাথমিকের অনুমতি পেলেও পায়নি মাধ্যমিকের

  • প্রথমবার মহাকাশ ঘুরে এলেন চার সাধারণ নভোচারী

  • স্বামীর চাপাতির কোপে গুরুতর আহত স্ত্রী

  • বিচ্ছেদ চেয়ে শ্রাবন্তীর মামলা

  • দেশীয় গাছের ক্ষতি করে পরিবেশ নষ্ট করছে বিদেশি প্রজাতি

  • ব্যাংক কর্মীদের ছাঁটাই বন্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

  • নিজের কিডনি দিয়ে বড় ভাইকে নতুন জীবন দিলেন ছোট ভাই

  • ডিআইজি পার্থ গোপালকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

  • অনিশ্চয়তায় অস্ট্রেলিয়ার পাকিস্তান সফরও

  • নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার আশায় মধ্যবর্তী নির্বাচনে ট্রুডো

  • আবারও ক্যাপিটল হিলে ট্রাম্প সমর্থকদের বি ক্ষো ভ

  • অতিরিক্ত কাজে বছরে প্রায় ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়: গবেষণা

  • ২৫ বছরেও মেলেনি সালমান শাহ'র মৃত্যুর রহস্য

ইংল্যান্ডে সিরিজ হারায় বোর্ড কর্তাদের ধুয়ে দিলেন ওয়াসিম

ইংল্যান্ডে সিরিজ হারায় বোর্ড কর্তাদের ধুয়ে দিলেন ওয়াসিম

ইংল্যান্ড সফরে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারানোর কারণে পাকিস্তানের বোর্ড কর্মকর্তাদের এক হাত নিলেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম। সেই সঙ্গে তিনি ভারতের উদাহরণ টেনে নিজেদের অব্যবস্থাপনার দিকগুলো তুলে ধরেন।

এআরওয়াই নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে ওয়াসিম আকরাম বলেন, পাকিস্তানের জন্য জিম্বাবুয়ের মতো দেশে ট্যুর চার বছরে একবারের জন্য প্রয়োজন। বরং পাকিস্তানের দরকার আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তার চেয়ে আরো কঠিন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে খেলা।

এ সময় তিনি ব্যঙ্গ করে বলেন, যারা পাকিস্তান দলের জিম্বাবুয়ে সফরের আয়োজন করেছিলেন, আমি সেই জিনিয়াসদের দেখতে চাই, তাদের ধন্যবাদ জানাতে চাই।

কেননা ইংল্যান্ড সফরে গিয়ে পাকিস্তান দল ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দুটি সিরিজই পরাজিত হয়। সবচেয়ে বড় কথা তারা ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয় ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় সারির একটি দলের কাছে। টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারে তারা ২-১ ব্যবধানে। অথচ এর আগে জিম্বাবুয়ে সফরে টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি তিনটি সিরিজই জিতেছিল।

এর দ্বারা ওয়াসিম বুঝাতে চেয়েছেন জিম্বাবুয়ে সফরের অর্জন তাদের পারফরম্যান্সে ইতিবাচক কোনো কিছু নিয়ে আসতে ব্যর্থ হয়েছে। 

আরও পড়ুন: চার বছর পর ঢাকায় অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল

এসময় ওয়াসিম পাকিস্তান বোর্ডকে ভারতের দিকে নজর দিতে বলে উল্লেখ করেন, ভারত এখন ভিন্ন দুটি দেশে এবং পুরো ভিন্ন কন্ডিশনে তাদের দুটো দলকে খেলাচ্ছে। ভারতের একটি দল শ্রীলঙ্কাতে খেলছে, আরেকটি দল খেলছে ইংল্যান্ডে। এমনকি এ অবস্থায় তারা আরেকটি দল তৈরি করার সক্ষমতা রাখে। ভারত তাদের সিস্টেম উন্নত করেছিল আরো ১০ বছর আগে। তারা এক্ষেত্রে বড় বিনিয়োগ করেছিল। নিয়ে এসেছিল পেশাদারদের।

সাক্ষাতকারের এক পর্যায়ে তিনি তার কাছে কোনো ক্রিকেটারের ব্যাপারে সুপারিশ বন্ধ করার অনুরোধ করেন। তিনি বলেন, প্রিয় পাকিস্তানিরা! ক্রিকেটারদের ব্যাপারে ফোন করা বন্ধ করুন, সুপারিশ করা বন্ধ করুন।

তিনি বলেন, এটা একবিংশ শতাব্দী। অথচ এখনো ক্রিকেটার বাছাইয়ের আগে আমি কল পাই, এই প্লেয়ারকে নিন, ওই প্লেয়ারকে নিন। এটা ভিন্ন ব্যাপার, কারো ব্যাপারে আপনি বিশেষভাবে নজর রাখতে বলবেন। কিন্তু এইজনকে নিয়ে নিন- এ ধরনের কথাবার্তা আসলেই খুব বিব্রতকর।

এএ

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর