channel 24

সর্বশেষ

  • সৌদি প্রবেশে বাংলাদেশের ১৩৭ পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা দাবি

  • আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে মাঠে ফিরলেন তামিম

  • চকলেট ভেবে ইঁদুর মারার ওষুধ খেলো দুই বোন, একজনের মৃ’ত্যু

  • চাঁদা আদায়ের অভিযোগে সুনামগঞ্জে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট

  • করোনাকালে কুড়িগ্রামে বাল্যবিয়ের হিড়িক

  • ৬০ হাজার টাকা বেতনে চাকরি দিচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স

  • জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান হলেন শাফিন আহমেদ

  • খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল আরও ছয় মাস

  • চাকরি দিচ্ছে সিটি ব্যাংক

  • ইভ্যালির গ্রেপ্তার কর্ণধারের বিরুদ্ধে আরেক মামলা

  • নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে, আহত ৩০

  • যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ক্ষতিপূরণ চায় কাবুল হা ম লায় নি হ তদের পরিবার

  • আফগানিস্তানের মেয়েরা প্রাথমিকের অনুমতি পেলেও পায়নি মাধ্যমিকের

  • প্রথমবার মহাকাশ ঘুরে এলেন চার সাধারণ নভোচারী

  • স্বামীর চাপাতির কোপে গুরুতর আহত স্ত্রী

অজিদের জন্য পাতা ফাঁদে হিতে বিপরীত হবে বাংলাদেশের?

অজিদের জন্য পাতা ফাঁদে হিতে বিপরীত হবে বাংলাদেশের?

অ্যাডাম জ্যাম্পা, অ্যাশটন অ্যাগার, অ্যাশটন টার্নার- বৈচিত্র্যময় স্পিন ডিপার্টমেন্ট নিয়ে বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া। অথচ অজি বধে সেই স্পিন ট্র্যাকই বানানোর পরিকল্পনা বিসিবির। তাতে হিতে বিপরীতের শঙ্কা থাকছে।

উপমহাদেশের বাইরের কোন দল বাংলাদেশ সফর করলে 'স্লো এন্ড টার্নিং' উইকেটের পথে হাঁটে বিসিবি। টাইগারদের স্পিন সামর্থ্য আর প্রতিপক্ষের দুর্বলতা চিন্তা করেই এ পরিকল্পনা। সিমিং বা স্পোর্টিং উইকেটে অজিদের শক্তিমত্তা স্পিন ট্র্যাক বানানোর পরিকল্পনা মূলে। তাতে কতটুকু সফল হবে টাইগাররা? যখন প্রতিপক্ষ দলের স্পিন ডিপার্টমেন্ট ভ্যারিয়েশনে ভরপুর। ওয়েস্ট ইন্ডিজে কেনসিংটন ওভালের স্লো উইকেটে নিজেদের সামর্থ্য দেখিয়েছেন তারা।

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে রিস্ট স্পিনারের কদর সবসময়ই বেশি। অ্যাডাম জ্যাম্পার লেগ স্পিন, গুগলি, ফ্লিপারগুলো যে কোন ব্যাটসম্যানের জন্য হুমকি। আর বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের লেগ স্পিনে দুর্বলতা নতুন কিছু নয়। অ্যাশটন অ্যাগারও বিপদজনক। সাধারণ বা হাতি স্পিনারদের মতোই বোলিং অ্যাকশন। তবে প্রতি ওভারে দুই-একটি মিডিয়াম পেসের বল চমকে দিতে পারে ব্যাটসম্যানদের। 

অজি স্কোয়াডে আরো একজন রিস্ট স্পিনার আছেন। মিচেল সোয়েপসন। যদিও তিনি অফ ফর্মে। তবে অলরাউন্ডার অ্যাশটন টার্নারের টার্ন চোখে পরার মতো। ক্রিজের অনেকটা পাশ থেকে বল করার কারনে বাড়তি অ্যাঙ্গেলও পান টার্নার।

এ চারজনের মধ্যে কেবল অ্যাশটন অ্যাগারের অভিজ্ঞতা আছে বাংলাদেশের উইকেটে বল করার। তাও টেস্টে ২০১৭ সালে। বছরের শুরুতে ক্যারিবিয়দের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে নিজেদের ফাঁদে নিজেরাই ধরা পরেছিল বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়া সিরিজেও একই পরিণতি হবে না তো?

এসএম/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর