channel 24

সর্বশেষ

  • জুলাই থেকে বড় পরিসরে টিকাদানের প্রত্যাশা

  • বিনামূল্যে জমিসহ ঘর পাচ্ছেন আরও ৫৩ হাজার ৩৪০টি পরিবার

  • রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় খালেদা জিয়া বিদেশ যেতে পারছেন না: ফখরুল

  • বিএনপি ধ্বংসাত্মক অপশক্তির পৃষ্ঠপোষকতা করে: কাদের

  • খুলনা জেনারেল হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য চালু হচ্ছে ৭০ শয্যা

  • তামাকের ন্যায্যমূল্যসহ ৬ দফা দাবি তামাক চাষী ও ব্যবসায়িক সমিতির

  • চাঁদপুর সদর থেকে অজগরসহ ৮টি বন্যপ্রাণি উদ্ধার

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১৩টি স্থানে পশুর হাট বসবে: তাপস

  • কোরবানির ঈদ সামনে রেখে গাজীপুর পুলিশ সুপারের সভা

  • নবম বাংলাদেশি হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে শতক মিজানুরের

  • সেনাসদস্য মুকুলের মৃত্যুতে নবনিযুক্ত সেনাপ্রধানের শোক

  • ৭ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বসিকের সাবেক মেয়র কামাল জামিনে মুক্ত

  • পদ্মার পানিতে বিলীন পাটুরিয়া ২নং ঘাট, হুমকিতে বাকি চারটিও

  • মৌলভীবাজারে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে ইমাম কারাগারে

  • পরীমণি ইস্যুতে উত্তপ্ত সংসদ

নির্ধারিত সময়েই হবে টোকিও অলিম্পিক

নির্ধারিত সময়েই হবে টোকিও অলিম্পিক

টোকিও অলিম্পিক নির্ধারিত সময়েই হবে। শঙ্কা দূর করতে আজ পাঁচ পক্ষীয় বৈঠকে বসেছিলো অলিম্পিক কমিটি, জাপান সরকার ও আয়োজক কমিটি। তবে নিরাপদ গেমস আয়োজনে বিধিনিষেধ আরো কঠোর হয়েছে। অ্যাথলেটদের জাপান পৌঁছে প্রতিদিন করোনা পরীক্ষা দিতে হবে। আর জাপানি দর্শকরা গেমস উপভোগ করতে পারবেন কিনা তা জানতে অপেক্ষা বাড়লো জুন পর্যন্ত।

অলিম্পিক শুরু হতে বাকি ৮৬ দিন। কিন্তু টোকিওর জরুরী অবস্থা, বিশ্বজুড়ে করোনার অবনতি, জাপানবাসীর প্রতিবাদ আবারও শঙ্কায় ফেলেছিলো বিগেস্ট শো অন আর্থকে। সেই শঙ্কা কাটাতে আর দুই শতাধিক দেশের অ্যাথলেটদের নিশ্চয়তা দিতে বৈঠকে বসেছিল আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি, প্যারালম্পিক কমিটি, জাপান সরকার, টোকিও মেট্রোপলিটন গভর্নমেন্ট ও আয়োজক কমিটি।

যে সভায় গেমস আয়োজনে একমত হয়েছে সব পক্ষ। কিন্তু কিভাবে নিরাপদ গেমস উপহার দেবে জাপান? সেই গাইডলাইনের জন্য তৈরি প্লে বুকসের দ্বিতীয় সংস্করণ এদিন প্রকাশ পেয়েছে। 

এ প্রসঙ্গে আইওসি প্রেসিডেন্ট থমাস বাখ বলেন, 'প্লে বুকটি বিজ্ঞানসম্মত। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন মেনে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শে এটি তৈরি হয়েছে। গত বছর বিশ্বব্যাপী যারা খেলা আয়োজন করেছে তাদের পরামর্শও নেয়া হয়েছে।'

নিরাপদ অলিম্পিক আয়োজনে কঠোর আইওসি। সব অংশগ্রহণকারীকে জাপান পৌঁছার আগে দুবার কোভিড টেস্ট করতে হবে। অ্যাথলেটরা জাপান পৌঁছানোর পর প্রতিদিন পরীক্ষা হবে। যা আগে ছিলো চারদিন পর। আর বাকিদের জন্য তিনদিন পর থেকে প্রতিদিন পরীক্ষা। কোন পাবলিক ট্রান্সপোর্টে চড়তে পারবেন না গেমস সংশ্লিষ্টরা। খাওয়াও নির্দিষ্ট জায়গায় সীমাবদ্ধ।

টোকিও গর্ভনর ইউরিকো কোইকো বলেন, 'আমরা অদৃশ্য এক শত্রুর সাথে লড়াই করছি। আমাদের মূল লক্ষ্য নিরাপদে গেমস আয়োজন। কীভাব সবাইকে সুরক্ষিত রাখা যায় তা নিয়েই আলোচনা হয়েছে।'

এছাড়া সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা, স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করা ও মাস্ক পড়া তো বাধ্যতামূলক। জুনে প্লে বুকের তৃতীয় সংস্করণ প্রকাশ পাবে। জাপান বলছে, কোন বিদেশি দর্শক ঢুকতে দেবে না। আর দেশিরা সুযোগ পাবেন কিনা জানতে অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে জুন পর্যন্ত।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর