channel 24

সর্বশেষ

  • নোয়াখালীর হাতিয়ার যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ

  • শ্রীলঙ্কা ফেরত ক্রিকেটাররা অনুশীলনে যোগ দেবেন কাল

  • বাংলাদেশে আসছে না শ্রীলঙ্কার সিনিয়র ক্রিকেটাররা

  • ছন্দে ফিরতে চান মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন

  • ঈদ কেনাকাটায় মানুষের ঢল

  • চট্টগ্রামে ইবাদত বন্দেগির মাধ্যমে পালিত হচ্ছে জুমাতুল বিদা

  • সরকার আন্তরিক হলেও খালেদা জিয়াকে বিদেশ নেয়া সময় সাপেক্ষ

  • কুড়িগ্রামের শপিংমলে ক্রেতা সমাগম; মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

  • সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কাটার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ

  • দেশে করোনায় ৫ সপ্তাহের মধ্যে সর্বনিম্ন মৃত্যু

  • চট্টগ্রামে প্রতিবন্ধীদের মাঝে ঈদ উপহার

  • বন্দরনগরীর মার্কেটগুলোতে প্রচুর ক্রেতা সমাগম

  • সফল মেকআপ আর্টিস্ট প্রতিবন্ধী হান্না ওলেটেজুর

  • ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ চিংড়ি হ্যাচারিতে; ক্ষতির মুখে মালিকরা

  • হালিশহরে অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার

শান্তর সেঞ্চুরিতে রাঙানো ক্যান্ডি টেস্টের প্রথমদিন

শান্তর সেঞ্চুরিতে রাঙানো ক্যান্ডি টেস্টের প্রথমদিন

বাংলাদেশ ব্যাটসম্যানদের একচ্ছত্র আধিপত্য, দাপট আর ল্যান্ডমার্কে পরিপূর্ণ দিনটা। যেখানে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ৩০২ রান তুলেছে সফরকারীরা। নাজমুল হোসেন শান্ত ১২৬ ও মুমিনুল হক অপরাজিত আছেন ৬৪ রানে।

এই শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশ জয় করেছিলো শততম টেস্ট। যেখানে শেষ, সেখান থেকেই শুরু। ক্যান্ডি শহরের মতই সুন্দর টেস্টে বাংলাদেশের পার করা প্রথমদিন। ২ উইকেটে ৩০২ রান নিয়ে নিশ্চিন্তে চালকের আসনে টিম টাইগার।

পাল্লেকেলের ঘাসের উইকেটে টস জিতে ব্যাটিং নেয়া মুমিনুলের সাহসী সিদ্ধান্ত বটে। কিন্তু অধিনায়কের মত ২২ গজে সাহস দেখাতে পারেননি কেবল সাইফ হাসান। আগের দুই টেস্টে মোটে ২৪ রান, সেই সংখ্যা ছাড়ানোর আগে ডাগআউটে ফিরে গেছেন টাইগার ওপেনার।

শুরুতে উইকেটে কিছুটা নড়বড়ে ছিলেন নাজমুল শান্ত, দলীয় ২৮ রানের মাথায় এই ইয়ংস্টারের ক্যাচ হাতছাড়া করেন উইকেটকিপার ডিকভেলা।

এক যুগের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তামিমের সাফল্যের সাম্প্রতিক সঙ্গী ব্যাটিং সমালোচনা, প্রশ্ন স্ট্রাইক রেট নিয়ে। এজন্য কি সাদা পোশাকে আগ্রাসী তামিম নাকি বোলারদের উপর চাপ প্রয়োগ? ৫৩ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন টাইগার ওপেনার, প্রথম সেশনে বাংলাদেশের স্বস্তি স্কোরবোর্ডের ১০৬ রান।

সময়ের সঙ্গে উইকেটে মানিয়ে নেন নাজমুল শান্ত। তামিম-শান্ত'র সুবাদে বিদেশের মাটিতে প্রায় এক যুগ পর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে সেঞ্চুরি পেলো বাংলাদেশ। এই জুটি গড়ে ১৪৪ রানের পার্টনারশিপ।

ক্যান্ডিতে খান সাহেবের দশম সেঞ্চুরির অপেক্ষায় গোটা বাংলাদেশ। কিন্তু নিজের ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বার নার্ভাস নাইনটিতে ইনিংসের সমাপ্তি। যেভাবে ক্যাচ প্র্যাকটিস করালেন সেটা বেশ দৃষ্টিকটুই। তারপরও লঙ্কানদের ডেরায় এটাই তামিমের সেরা ইনিংস।

বাকিটা সময় শান্ত-শিষ্ট শান্ত। বিপদজনক বলগুলোকে ডিফেন্স করে, নিজের শক্তির জায়গায় দুর্বার এই বাঁহাতি। লাকি সেভেনে উজ্জ্বল নাজমুল প্রথমবার পেলেন তিন অঙ্কের ছোঁয়া। এজন্য খেলতে হয়েছে ২৩৫ বল।

টানা তিন সেশন শ্রীলঙ্কাকে শাষণ করলো বাংলাদেশ। লঙ্কান পেসারদের এলেমেলো বোলিংয়ের বিপরীতে শান্ত-মুমিনুলের দেড়শত রানের জুটি। একাদশে নেই কোন বিশেষজ্ঞ স্পিনার, তাদের অভাব ঠিকই টের পাচ্ছে লঙ্কা।

স্কোরবোর্ড (প্রথম দিন শেষে)

বাংলাদেশ ৩০২/২ (শান্ত ১২৬*, তামিম ৯০, মুমিনুল ৬৪*) 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর