channel 24

সর্বশেষ

  • তামিম-সাকিব-মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহর ফিফটিতে চ্যালেঞ্জিং স্কোর

  • গল টেস্টে দ্বিতীয় ইনিংসে বিপর্যস্ত শ্রীলঙ্কা

  • বাগেরহাটে সাদা মাছির আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্থ নারিকেল চাষ

  • গ্রামবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে নির্মিত হলো ৩শ' ফুট দৈর্ঘ্যের কাঠের সেতু

  • ভারি তুষারপাতে বিপর্যস্ত জম্মু-কাশ্মিরের জনজীবন

  • শেরপুর ও টাঙ্গাইলে পৌর ভোটে প্রার্থীদের নানা প্রতিশ্রুতি, বাস্তবায়ন চান ভোটাররা

  • তামিম-সাকিবের ব্যাটে বড় স্কোরের স্বপ্ন দেখছে স্বাগতিকরা

  • নিরাপত্তায় স্থাপিত আড়াইশো সিসি ক্যামেরা বছর না ঘুরতেই বিকল

  • ফরিদপুরে বিএনসিসি'র উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ

  • খুবিতে অনশনরত আরেক শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে

  • ভিক্ষুক বেশে নারীদের শ্লীলতাহানীর ভিডিও ভাইরাল, গ্রেপ্তার ১

  • করোনায় বিশ্বের সব দেশের অর্থনীতিতে বিপর্যয় ঘটলেও উল্টো চিত্র চীনে

  • ব্যাংকখাতের তারল্য বেশি হওয়ায় সুদ নেমে এসেছে মূল্যস্ফীতির নিচে

  • এক বছরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

  • শেষ ওয়ানডেতে টস হেরে ব্যাট করছে বাংলাদেশ

বিতর্ক কখনও পিছু ছাড়েনি মহানায়কের

বিতর্ক কখনও পিছু ছাড়েনি মহানায়কের

দিয়েগো আরমান্দো মারাদোনা। বর্ণিল জীবনের অনেকটা অংশ জুড়ে ছিলো বিতর্ক। মাঠে ও মাঠের বাইরে নানা সময় ছিলেন আলোচনার কেন্দ্রে। মাদক কেলেঙ্কারি কিংবা হ্যান্ড অব গড বিতর্ক, আমৃত্যু বারবার হয়েছেন খবরের শিরোনাম।

চাঁদের কলঙ্ক আছে, আছে মারাদোনারও।

যার হাতে উঠেছিলো বিশ্বকাপ ট্রফি, সেই তার গায়েই লেপ্টে ছিলো নেশার কালিমা।

খেলোয়াড়ি জীবনে বিতর্কের দীর্ঘ তালিকায় সবার উপরেই ড্রাগস। থাকবে আজীবন। ১৯৯১ এ নাপোলিতে কোকেন নেয়ার দায়ে ১৫ মাস নিষিদ্ধ হোন মারাদোনা। তবে সেবারই শেষ নয়। নিষিধাজ্ঞা চলাকালীন বুয়েন্স আইরেসে এসে নিজ দেশেই কোকেনসহ আটক মারাদোনা। আর ৯৪ বিশ্বকাপে ডোপ টেস্টে পজিটিভ হয়ে দু ম্যাচ খেলেই আর্জেন্টিনায় ফিরতে হয়েছিলো ৮৬ বিশ্বকাপজয়ী মহানায়ককে।

নেশার জগত ছাড়তে এক সময় কিউবায় পুনর্বাসনেও থাকতে হয়েছিলো মারাদোনাকে। সেই তিনিই আবার ২০১০ সালে অতিরিক্ত কোকেন নিয়ে দুদিন আইসিতে কাটিয়ে এসেছিলেন। আর জীবনের শেষদিকে পেয়ে বসেছিলো অতিরিক্ত মদের নেশা।

মাদকের চেয়ে কম নয়, মারাদোনার হ্যান্ড অব গড বিতর্কও। ৮৬ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হাত দিয়ে গোল করে দলকে নিয়ে গিয়েছিলেন সেমি ফাইনালে। যদিও তা পরে স্বীকার করেছিলেন তিনি।

ফুটবলের সাথে যত মধুর ছিলো মারাদোনার সম্পর্ক, সংবাদকর্মীদের সাথে ততটাই অম্ল। ৯৮তে সালে গনমাধ্যমকর্মীর উদ্যোশে এয়ার রাইফেলের গুলি ছুড়ে আদালতের কাঠগড়ায় যেতে হয়েছিলো ফুটবল জাদুকরকে।

মারাদোনার কালো অধ্যায়েজুড়ে আছে কর ফাঁকির মামলা। ইতালির বিপক্ষে দীর্ঘ আইনী লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত অবশ্য জিতেছিলেন এই নাপোলি সুপারস্টার।

কোচ হয়ে ফুটবলে ফিরে এলেও বিতর্ক এড়াতে পারেননি মারাদোনার। ২০১০ বিশ্বকাপ খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়ার আগে সংবাদকর্মীর পায়ে গাড়ি উঠিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন আর্জেন্টাইন বস। সে বছরই পেলেকে সমকামী ইঙ্গিত করে আরও একদফা উসকে দেন দুজনের চির বৈরিতার ঝাঁজ। যদিও তার আগে মারাদোনাকে খারাপ রোল মডেল বলে মন্তব্য করেছিলেন পেলে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর