channel 24

সর্বশেষ

  • যাবজ্জীবন সাজা: বিয়ে করলেই মিলবে জামিন- হাইকোর্ট

  • এক টুর্নামেন্ট দিয়ে ক্রিকেটারদের মূল্যায়ন সম্ভব নয়: কোচ ডমিঙ্গো

  • শুরু হলো দুর্গাপূজা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভক্তদের আরাধনা

  • কাল শুরু ফুটবল দলের ক্যাম্প

  • বৃষ্টির শঙ্কায় দুদিন পিছিয়ে প্রেসিডেন্টস কাপের ফাইনাল রোববার

  • রোনালদো ফের করোনা পজিটিভ

  • সেন্টমার্টিনে আটকা পড়লো সাড়ে চারশো পর্যটক

  • বরের বয়স ৯৫, কনের ৮০!

  • টাঙ্গাইলে কলেজ ছাত্রী গণধর্ষণ মামলায় এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি

  • রোহিঙ্গাদের জন্য ৩৫ কোটি ডলার সহায়তার প্রতিশ্রুতি

  • গাজীপুরে পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণের ঘটনায় আটক ৫

  • খোরাকি ভাতা মেনে নেয়ার প্রতিশ্রিতেত নৌ-ধর্মঘট প্রত্যাহার

  • পরীক্ষা ছাড়া উপরের শ্রেণিতে উঠার সিদ্ধান্ত মন্দের ভালো, বলছেন শিক্ষাবিদরা

  • জলপাইয়ের তেল বা অলিভ অয়েলের উপকারিতা

  • মালচিং পদ্ধতিতে চাষাবাদ

চমক ছাড়াই শেষ হলো ইউরোপিয়ান ফুটবলের দলবদল

চমক ছাড়াই শেষ হলো ইউরোপিয়ান ফুটবলের দলবদল

চমক ছাড়াই শেষ হলো ইউরোপিয়ান ফুটবলের দলবদল। পুরো ট্রান্সফার উইন্ডো জুড়ে আলোচনায় থাকলেও হতাশায় শেষ করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ত্রিশোর্ধ্বব কাভানির সঙ্গে শেষদিন তেলেস, ট্রায়োরের মতে আনকোড়া ফুটবলারদের কিনেছে রেডডেভিলরা। দলবদলের শীর্ষ ক্লাব চেলসি, সবচেয়ে ব্যয়বহুল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। আর ফুটবলার বিক্রিতে আয়ের হিসাবে এগিয়ে ইতালিয়ান লিগ।

করোনায় বিলম্বিত ফুটবল মৌসুমের মত ট্রান্সফার মার্কেটের দরজাও বন্ধ হলো দেরিতে, এই শতকে এই প্রথম অক্টোবরে। তবে ডেডলাইন ডেতে বরাবর চমক থাকলেও এবার ভিন্ন চিত্র।

শেষদিন সবচেয়ে বেশি ৪৫ মিলিয়ন ইউরোয় আতলেতিকো মাদ্রিদ থেকে আর্সেনালে এসেছেন থমাস পার্টে। আর উল্টো পথে যাত্রা করেছেন লুকাস তোরেইরা।

দগলাস কস্তা ধারে গেছেন বায়ার্নে। বেন গডফ্রেকে সাড়ে সাতাশ মিলিয়ন ইউরোয় কিনেছে এভারটন আর  ক্রিস স্মলিংকে ছেড়ে দিয়েছে ইউনাইটেড।

এবারের দলবদলে ডর্টমুন্ডের জ্যাডন স্যাঞ্চোকে কিনতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের দরকষাকষি ছিলো ধারাবাহিক নাটকের মত। শেষ পর্যন্ত ইংলিশ উইঙ্গারের জন্য বনিবনা হয়নি দুপক্ষের। বার্সেলোনার উসমান দেম্বেলেকেও ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আনতে পারেননি সোলশার।

ট্রান্সফার ডেডলাইনের শেষদিনে ফ্রিতে মিলেছে এদিনসন কাভানিকে। আর সামান্য খরচে নিয়ে এসেছে লেফট ব্যাক আলেক্স তেলেসকে।

এদিকে  লিও স্ট্রাইকার মেমফিস ডি পায় এবং ম্যান সিটি ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়াকে ন্যু ক্যাম্পে আনার গল্পও শেষ পর্যন্ত  মুখরোচক হয়ে রইলো।

মৌসুমের সবচেয়ে দামি ট্রান্সফার কাই হাভার্টজ। জার্মান ফরোয়ার্ডকে কিনতে লেভারকুসেনকে ৮০ মিলিয়ন ইউরো দিয়েছে চেলসি আর টিমো ভার্নারের জন্য লাইপজিগকে দিয়েছে ৫৩ মিলিয়ন। আর্থুরের দাম ৭২ মিলিয়ন। লিলের ভিক্টর ওসিমহেনের  জন্য ৭০ মিলিয়ন ঢেলেছে নাপোলি। আর ৬৮ মিলিয়ন ইউরোয় বছরের দামি ডিফেন্ডার রুবেন দিয়াজ।

দলবদলে ২৪২ মিলিয়ন ইউরোর বেশি খরচ করে সবার ওপরে চেলসি। ফুটবলার বিক্রি করে ব্লুদের আয় মাত্র ৭৬ মিলিয়ন ইউরো। ম্যান সিটি ফুটবলার কিনেছে ১৫৬ মিলিয়ন ইউরোর, বেচেছে ৬১ মিলিয়ন। বার্সেলোনা আর য়্যুভেন্তাসের আয় ব্যয়ের পার্থক্য সামান্যই। তবে ইউরোপে খরচের দিক থেকে শীর্ষ পাচে চমক লিডস ইউনাইটেড।

যদিও টক অফ ট্রান্সফার ওয়ার্ল্ড, এবার ফুটবলার কিনতে এক পয়সাও খরচ করেনি রিয়াল মাদ্রিদ।

ফুটবলার কেনায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ধারেকাছে নেই শীর্ষ ৫ লিগের বাকীরা। ইপিএলে সবচেয়ে বেশি ১ দশমিক চার বিলিয়ন ইউরো খরচ। বিপরীতে ফুটবলার ছেড়ে আয় ৪৫০ মিলিয়ন ইউরো।

সিরি আর ক্লাবগুলো ফুটবলার কিনতে খরচ করেছে ৭৪৭ মিলিয়ন ইউরো। আর খরচের দিক থেকে ফ্রেঞ্চ লিগ এবার লা লিগাকেও ছাড়িয়ে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর