channel 24

সর্বশেষ

  • নাগরিকের আইনি অধিকার নিশ্চিতের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

  • বরিশালে কুয়েত প্রবাসীর বাড়ি থেকে ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার

  • বাড়ছে সিরামিক শিল্পের রপ্তানি আয়

  • চাহিদা বাড়ছে শীতের পোশাকের

  • বোমাসদৃশ্য বস্তুটি বোমা নয়, বালুভর্তি পাইপ

  • কারওয়ান বাজারে পেট্রোবাংলা ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে

  • রাতে বোর্নমাউথের আতিথ্য নেবে লিভারপুল, মায়োর্কার বার্সেলোনা

  • ময়মনসিংহে হাতে লেখা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ও স্মৃতিস্তম্ভ

  • ক্ষতিকর রাসায়নিক ছাড়াই বিভিন্ন জেলায় নিরাপদ সবজি উৎপাদন

  • মৌসুমের প্রথম ম্যানচেস্টার ডার্বি

  • মেঘনা নদীতে দুটি লঞ্চের সংঘর্ষে নিহত ১

  • দিল্লি হাসপাতালে গায়ে আগুন লাগা গণধর্ষণের শিকার তরুণীর মৃত্যু

  • সীমান্তে নজরদারি বাড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি

  • জোরপূর্বক রাস্তার খননের অভিযোগ যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে

  • কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প ঘিরে বেপরোয়া সন্ত্রাসী গোষ্ঠী

ড্র হলো জাতীয় লিগের পঞ্চম রাউন্ডের চার ম্যাচ; মার্শাল আইয়ুবের সেঞ্চুরি

ড্র হলো জাতীয় লিগের পঞ্চম রাউন্ডের চার ম্যাচ; মার্শাল আইয়ুবের সেঞ্চুরি

ড্র হলো পঞ্চম রাউন্ডের সব ম্যাচ। শেষ দিনে এসে মাঠে গড়ায় বরিশাল-চট্টগ্রাম ম্যাচ। ৩ উইকেটে ৭০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে বরিশাল। চট্টগ্রাম বিভাগ তোলে বিনা উইকেটে ৪৫ রান। রংপুরের হয়ে নাসির হোসেন ও ঢাকা মেট্রোর হয়ে মার্শাল আইয়ুব দেড়শতাধিক রানের ইনিংস খেলেছেন।

বগুড়া
দীর্ঘ দুই বছর পর সেঞ্চুরি করা নাসির হোসেন নিজের ইনিংসটাকে শেষদিনও বড় করেছে। ড্র ম্যাচে রংপুর ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে এসেছে অপরাজিত ১৬১ রান। রংপুর ইনিংস ঘোষণা করে ৯ উইকেটে ২৭১ রানে। ২৮৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেটে ১৭৬ রান তুলতে পারে ঢাকা। রকিবুল হাসানের অপরাজিত ৮০ রান রংপুরের আশা শেষ করে দেয়।

মিরপুর
প্রথম ইনিংসে রুবেল ঝড়ে বিধ্বস্ত ছিলো রাজশাহী। দ্বিতীয় ইনিংসে সেই দায়িত্ব নিলেন আব্দুর রাজ্জাক। খুলনা অধিনায়ক চার উইকেট শিকারে নিজের শীর্ষস্থান আরো শক্ত করেছেন। ৫ ম্যাচে ৩১ উইকেট এই বাহাতি স্পিনারের।

প্রথম ইনিংসে লিড নিয়ে বোনাস পয়েন্ট পাওয়ায় শীর্ষস্থান অক্ষুন্ন খুলনার। ফাইনাল অনেকটাই নিশ্চিত তাদের।

রাজশাহী
রাজশাহীতে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন মার্শাল আইয়ুব। ১৬৩ রানের ইনিংসটির সমাপ্তি ঘটে অলোক কাপালির বলে বোল্ড হয়ে। ৬ উইকেটে ৩৯৫ রানে ইনিংস ঘোষণা করে মেট্রো। ৩৫৬ রানের টার্গেটে শুরুতেই তাসকিনের শিকার হন ইমতিয়াজ হোসেন। এরপর শানাজ আহমেদ ও তৌফিক খান ১২২ রানের জুটি গড়েন। ৭৫ রান করা তৌফিককে ফিরিয়ে ব্রেক থ্রু আনেন নিহাদুজ্জামান। আর শানাজ ৬১ রানে ফেরেন তাসকিনের তৃতীয় শিকার হয়ে। সিলেট থামে ৪ উইকেটে ১৮৭ রানে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর