channel 24

সর্বশেষ

  • স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন কমিটি; সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ ও...

  • সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু...

  • ঢাকা উত্তরের সভাপতি ইসহাক মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান...

  • দক্ষিণের সভাপতি কামরুল হাসান ও সাধারণ সম্পাদক তারেক সাঈদ

  • জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়: উভয় পক্ষের অভিযোগ মন্ত্রণালয়ে জমা...

  • তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: শিক্ষা উপমন্ত্রী

  • গাজীপুরের বিভিন্ন স্থান থেকে ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার

  • ইন্দোর টেস্ট: ভারতের কাছে ইনিংস ও ১৩০ রানে হারলো বাংলাদেশ...

  • স্কোর: বাংলাদেশ ১৫০ ও ২১৩ (মুশফিক ৬৪), ভারত ৪৯৩/৬ ডি....

  • ব্যাটিং ভালো হয়নি, টিম হিসেবে খেলতে পারিনি: মুমিনুল

  • মাদক ও দুর্নীতিবিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে...

  • সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি ও দুর্নীতির টাকায় ফুটানি মানুষ বরদাস্ত করবে না...

  • পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিতে কারা জড়িত, খুঁজে বের করা হবে...

  • কার্গো বিমানে করে পেঁয়াজ আমদানি করছে সরকার...

  • পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে, চিন্তার কারণ নেই...

  • সোহরাওয়ার্দীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী

  • অর্থনীতি পঙ্গু হয়ে পড়েছে, অথচ উন্নয়নের স্বপ্ন দেখাচ্ছে সরকার: ফখরুল

তিন ফুটবলারের বিরুদ্ধে টাকা নিয়েও অন্য দলে যাবার অভিযোগ

তিন ফুটবলারের বিরুদ্ধে টাকা নিয়েও অন্য দলে যাবার অভিযোগ

আবারও ফুটবলারদের বিরুদ্ধে একাধিক ক্লাব থেকে অর্থ নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র অভিযোগ জানিয়েছে ফুটবল ফেডারেশনে। আইনি নোটিশ দিয়েছে তিন ফুটবলার রায়হান হাসান ও দুই সোহেল রানাকে। চুক্তি না হওয়ায়, আপাতত কিছু করার নেই বলে জানিয়েছে বাফুফে।

ঘরোয়া ফুটবলের সেই জৌলুস নেই। ফুটবলার কাড়াকাড়ির সবশেষ উদাহরণটাও বছর তিনেক আগে। ২০১৬ তে ফুটবল ভবনে ঘটেছিলো সেই ঘটনা। যা গড়িয়েছিলো আদালত পর্যন্ত।

আর একাধিক ক্লাব থেকে অর্থ নেয়ার অভিযোগ আগেও ছিলো। এখনো আছে। এবার শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র অভিযোগ এনেছে তিন ফুটবলারের বিরুদ্ধে।

ট্রাজিক বয় সোহেল রানা নগদ আট লাখ টাকা ও সমপরিমানের অগ্রিম চেক, ডিফেন্ডার রায়হান হাসান ও মিডফিল্ডার সোহেল রানাও নগদ ১০ লাখ টাকার সঙ্গে সমপরিমান অর্থের চেক নিয়েছেন, অভিযোগ শেখ রাসেলের। তিনজনই এবার খেলতে চলেছেন আবাহনীতে।

শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের পরিচালক সালেহ জামান সেলিম বলেন, এটা প্রতিবছরই খেলোয়াড়রা করে। আমার সাথে, শেখ রাসেলের সাথে অনেকবার করছে। আমরা বারবার খেলোয়াড়দের দিকে তাকিয়ে আইনের আশ্রয়ে যাই নাই। তাতে দেখছি দিনে পর দিন এটা বেড়েই চলছে। তাই এবার আমরা আইনের আশ্রয়ে চলে গেছি।

ইতোমধ্যে তিন ফুটবলারকে উকিল নোটিশ দিয়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। অর্থ গ্রহনের উল্লেখ করে ক্লাবে যোগ দেয়ার আহবান জানানো হয়েছে। ফুটবলার পেতে আত্নবিশ্বাসী ক্লাব কর্তা। কিন্তু ফুটবলারদের তরফ থেকে মেলেনি সাড়া।

শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের পরিচালক সালেহ জামান সেলিম বলেন, ইতিমধ্যে তাদের বিরুদ্ধে নিশেধাজ্ঞা চলে আসছে এবং তাতে স্পষ্ট বলা আছে যে ঐ তিনজন খেলোয়াড় শেখ রাসেল ছাড়া অন্যকোন দলের সাথে খেলায় অংশগ্রহন করতে পারবে না। এখন যেহেতু আইনে আসছে তো আইনের বাইরে ফুটবল ফেডারেশন কিছু করতে পারবে না।

ফুটবল ফেডারেশনকে এই তিন ফুটবলারের দলবদল কার্যক্রম স্থগিত করার আবেদন করলেও, আপাতত ফেডারেশনের কিছু করার নেই বলে জানিয়েছেন সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ। তিনি বলেন, দল বদল যেহেতু এখনও চলমান প্রক্রিয়ায় রয়েছে তো এটা শেষ না হওয়া পর্যন্ত আসলে আমাদের কিছু করার থাকে না। আমরা শুধু কিছু অ্যাডমিনিস্ট্রিটিভ কিছু কাজ করে রাখতে পারি। যেহেতু আমরা কিছু অভিযোগ পেয়েছি সেই ভিত্তিতে।

তিন ফুটবলারের দুইজন ব্যস্ত ওমানে জাতীয় দলের দ্বায়িত্ব পালনে। তবে ক্লাবের আনা অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে আইনি প্রক্রিয়ায় জবাব দেয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন তিন ফুটবলার।

তবে এ ব্যাপারে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের পরিচালক সালেহ জামান সেলিম বলেন, তারা যে আমাদের কাছ থেকে টাকা গ্রহণ করেছে চেক এবং ক্যাশ, এগুলোর সব ডকুমেন্ট আছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর