channel 24

সর্বশেষ

  • করোনায় অসহায় জীবন কাটাচ্ছেন দেশে ফেরা প্রবাসী কর্মীরা

  • বিদেশি শিক্ষার্থীদের যুক্তরাষ্ট্র ছাড়ার সিদ্ধান্তে বিপাকে লাখো শিক্ষার্থী

  • ফেসবুক কথোপকথনে ভরসা করে প্রায় আট লাখ টাকা খোয়ালেন ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি

  • করোনায় বিশ্বে আক্রান্ত এক কোটি ২৬ লাখ ৮৩ হাজারের বেশি

  • শেষ পর্যন্ত জনসম্মুখে মাস্ক পরলেন ট্রাম্প

  • উত্তরাঞ্চলে পানিবন্দি লাখো মানুষ

  • পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে গেছে সুনামগঞ্জ

  • করোনায় আক্রান্ত অমিতাভ বচ্চন

  • পাপুলকাণ্ডে গ্রেপ্তার কুয়েতের সেনা কর্মকর্তা

  • রিজেন্ট হাসপাতাল ও জেকেজি সম্পর্কে জানা ছিল না: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ

  • লাভের আশায় গরু পালন করে দাম নিয়ে দুশ্চিন্তায় খামারীরা

  • আগামী মাসে মাঠে গড়াচ্ছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ

  • আবারও মনোবিদ আজহার আলীর ওপর আস্থা বিসিবির

  • আগস্টের প্রথম সপ্তাহ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফুটবল দলের আবাসিক ক্যাম্প

একজন নিউজিল্যান্ডার হারিয়েছে নিউজিল্যান্ডকে!

একজন নিউজিল্যান্ডার হারিয়েছে নিউজিল্যান্ডকে!

একজন নিউজিল্যান্ডার হারিয়েছে নিউজিল্যান্ডকে। ইংল্যান্ডের জয়ের নায়ক বেন স্টোকস, জন্মসূত্রে কিউই, নিউজিল্যান্ডেরও পাসপোর্টধারী। এমন আরও ছয় ক্রিকেটার আছেন যারা ইংল্যান্ডকে দিয়েছে বহুজাতিক ও বহুমাত্রিক দলের স্বীকৃতি।

ভিলেন থেকে হিরো। ইংলিশদের চোখে সুপার হিরো। ব্রিস্টল ক্লাবে দ্বন্দে জড়িয়ে গ্রেফতার, হাজতবাস, জরিমানা, আবারো ক্রিকেটে ফেরা, বিশ্বকাপ বাকিটা ইতিহাস। 

এক সাক্ষাৎকারে বেন স্টোকস জানিয়েছিলেন, ঐ ব্যক্তিকে তিনি আর মনে করতে চান না যে রাস্তায় মারামারি করেছিলো। বরং মাঠে তিনি এমন কিছু করতে চান যার জন্য মানুষ তাকে সারাজীবন মনে রাখে।

এবং তা করেছেনও। বিশ্বকাপের ঠিক প্রথম দিন থেকে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৭৯ বলে ৮৯ রান, বল হাতে ২ উইকেট আর ইতিহাসের অন্যতম সেরা ক্যাচ। 

১১ ম্যাচে ৫ হাফ সেঞ্চুরিতে করেছেন ৪৬৫ রান। উইকেট সংখ্যা ৭। তার ৮৪ রানের রাজসিক ইনিংস ইংল্যান্ডকে প্রথমবারের মতো দিয়েছে বিশ্বজয়ের স্বাদ। সেরার পুরস্কারটাও পেয়েছেন এক লেজেন্ডের হাত থেকে। 

অথচ ব্ল্যাকক্যাপদের হারানোর নায়ক জন্মসূত্রে নিজেই নিউজিল্যান্ডের। ১২ বছর বয়সে ইংল্যান্ডে পাড়ি জমান বেন স্টোকস। তার বাবা ও বড় ভাই এখনো সে দেশেই থাকেন। মাউরি সম্প্রদায়ের মতে অচেনা অতৃপ্তি সবসময়ই তাদের তাড়া করে বেড়ায়। যার তাড়না থেকেই হয়তো প্রতিনিয়ত নিজেকে ছাড়িয়ে যেতে চান বেন স্টোকস।

বেন স্টোকসের বাবা জেরার্ড স্টোকস বলেন, এটা খুবই লজ্জার যে ব্ল্যাকক্যাপস পরপর দুই আসরের ফাইনালে হেরেছে। যদিও আমার ছেলের জন্য আমি গর্বিত। ও অসাধারণ খেলেছে। তারপরও আমি সবসময়ই নিউজিল্যান্ডকে সমর্থন করে যাবো। 

তবে ইংল্যান্ড দলটিতে শুধু বেন স্টোকসই এক মাত্র অভিবাসী নন। জেসন রয় দক্ষিণ আফ্রিকান বংশোদ্ভূত ক্রিকেটার। মঈন আলী ও আদিল রশিদের আদি নিবাস পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মির। জোফরা আর্চার ক্যারিবিয়ান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বয়সভিত্তিক দলেও খেলেছেন তিনি। টম কারেনের বাবা কেভিন কারেন জিম্বাবুয়ের সাবেক ক্রিকেটার। আর অধিনায়ক ওয়েন মরগ্যান দীর্ঘসময় খেলেছেন আয়ারল্যান্ড জাতীয় দলে। 

তাই মজার ছলে বলা যেতেই পারে, বিশ্বকাপ শুধু ইংল্যান্ড জেতেনি, জিতেছে পাঁচ মহাদেশও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর