channel 24

সর্বশেষ

  • ওয়াশিংটনের সঙ্গে বাণিজ্যদ্বন্দ্বের বলি চীনা প্রতিষ্ঠান টিকটক

  • বিশ্বজুড়ে করোনায় প্রাণহানি ৭ লাখ ১৯ হাজার

  • রিয়ালকে হারিয়ে শেষ আটে ম্যান সিটি

  • চুয়াডাঙ্গায় বাসের ধাক্কায় ইঞ্জিন চালিত ভ্যানের ৬ যাত্রী নিহত

  • বঙ্গমাতার ৯০ তম জন্মবার্ষিকী আজ

  • ভারতের কেরালায় ১৯১ যাত্রী নিয়ে বিমান দুর্ঘটনা, নিহত ১৫

  • ফুটবলারদের করোনা টেস্ট নিয়ে বিব্রত ফেডারেশন

  • শ্রীলঙ্কা সফরে ফিরছেন সাকিব আল হাসান

  • কাল আবার শুরু ক্রিকেটারদের একক অনুশীলন

  • সাবেক মেজর সিনহা হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন

  • ওসি প্রদীপ ও লিয়াকতসহ আসামিদের এখনও জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেনি র‍্যাব

  • মুজিব বর্ষেই বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে এনে বিচার করা হবে: পররাষ্টমন্ত্রী

  • কাশিমপুর কারাগার থেকে কয়েদি নিখোঁজের ঘটনায় ৬ জন সাময়িক বরখাস্ত

  • বরিশালে টেম্পু-বাস শ্রমিকদের সংঘর্ষ

  • দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ঢাকা ফেরা মানুষের ভিড়

সেরা প্রস্তুতি নিয়ে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর পরিকল্পনা ইংলিশদের

সেরা প্রস্তুতি নিয়ে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর পরিকল্পনা ইংলিশদের

নতুন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দেখার অপেক্ষায় ক্রিকেট বিশ্ব। ইংল্যান্ড অথবা নিউজিল্যান্ড। দুদলই এর আগেও ফাইনালের মঞ্চে পৌছালেও ছোঁয়া হয়নি সেরাদের সেরা ট্রফিটি। এবার আর সুযোগ হাতছাড়া করতে চায় না কোন দল। নিজেদের সেরা প্রস্তুতি নিয়েই ব্ল্যাক্যাপদের হারানোর পরিকল্পনা করছে ইংলিশরা। আর নিউজিল্যান্ড নিচ্ছে নির্ভার থাকার কৌশল।

৮৭ আর ৯২ বিশ্বকাপটা ইংল্যান্ডের জন্য যেমন কান্নার, ২০১৫ নিউজিল্যান্ডের। ফাইনালে উঠেও অল্প দূরত্বে থেকে গেছে স্বপ্নের বিশ্ব কাপ ট্রফিটা। তবে এবার অন্তত এক দল যে বিশ্বজয়ীর মর্যাদা পেতে যাচ্ছে তা ৯৯ শতাংশ নিশ্চিত। এক শতাংশ বাকী রাখতে হয় বেরসিক বৃষ্টির জন্য। পর পর দুই দিন খেলা পরিত্যক্ত হলে, প্রথমবারের মতো যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন হবার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেয়া যায় না।

তবে এসব নিয়ে ভাবার সময় কই দুই ফাইনালিস্টের! নিজের ঘরের জয়োৎসব করার এমন সুযোগ কি আর বারবার আসবে? শুক্রবার দিনটি বিশ্রামে কাটিয়ে শনিবারই ফিজিক্যাল, মেন্টাল, ট্যাকটিকাল সব ধরনের প্রস্তুতি সেরে নিতে চায় স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের অধিনায়ক, ওয়েন মরগ্যান বলেন, আমি মনে করি এ টুর্ণামেন্টে নিউজিল্যান্ড সবচেয়ে কঠিন প্রতিপক্ষ। সেমিফাইনালে তারা তাদের সেরা পারফর্মেন্স দেখিয়েছে। আমরা জানি তাদের হারানো সহজ হবে না। তাই সেভাবেই প্রস্তুতি নিতে হবে।

ক্রিকেটার, ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার ক্রিস ওকস বলেন, লর্ডস সবসময়ই অসাধারণ আবহ তৈরি করে। আমি এখনি দেখতে পাচ্ছি রোববার কতটা স্পেশাল হতে যাচ্ছে। এ পর্যায়ে এসে আর নেতিবাচক কিছু ভাবতে চাই না।

ফাইনালের আগে কোন বাড়তি চাপ নয়, নিউজিল্যান্ড দলের প্রতিটি সদস্য এখন মনে প্রাণে এ কথাটিই আঁকড়ে আছেন। হোটেল ও হোটেলের বাইরে পরিবার পরিজনদের সাথে সময় কাটিয়েই নির্ভার থাকার চেষ্টা ব্ল্যাক ক্যাপদের।

নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং কোচ, ক্রেইগ ম্যাকমিলান বলেন, আমরা কোন পরিবর্তন আনতে চাইনা। না একাদশে, না গেম প্ল্যানে। এভাবেই তো সাফল্য আসছে। আর একটা ম্যাচ দূরে আছি। বাড়তি কোন চাপ নেয়াটা উচিত হবে না।

তবুও দলের কেউ কেউ আছেন, যারা মনে মনে ঠিকই ফাইনালের পরিকল্পনা আঁটছেন। যেমন লকি ফার্গুসন। গতি দিয়ে ইংলিশ ব্যাটিং লাইনআপ গুড়িয়ে দিতে চান এ কিউই পেসার।

ক্রিকেটার, লকি ফার্গুসন বলেন, লিগ পর্বের ম্যাচে আমি একাদশে ছিলাম না। তাই ওদের বিপক্ষে বল করতে পারিনি। ওরা অ্যাটাক করতে পছন্দ করে, আর আমি তা ফেরত দিতে। ফাইনালে আমি অতিআক্রমণাত্মক হয়ে ওঠবো, দলও এটাই প্রত্যাশা করে।

সিলভার ফার্নস। নিউজিল্যান্ডের নেট বল দলকে এ নামেই ডাকা হয়। রোববারের গ্র্যান্ড ফিনালের জন্য ব্ল্যাক ক্যাপদের শুভ কামনা জানিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে তারা।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

স্পোর্টস 24 খবর