channel 24

সর্বশেষ

  • রাজধানীতে গৃহবধূর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

  • ২০২২ সালের মধ্যে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষকে টিকা দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • আফগানিস্তান ইস্যুতে বাতিল হল সার্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক

  • নেতাকর্মীদের সাথে ৫ম দিনের মতো বৈঠকে বিএনপি

  • ১০ মাসেই রাজশাহী মেডিকেলের চেহারা বদলেছেন ব্রি. জে. শামীম ইয়াজদানী

  • খুলনায় যৌতুক মামলায় সিআইডি কর্মকর্তা কারাগারে

  • চাঁদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

  • সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে পদ্মার ইলিশ

  • আইনি কাঠামোতে আসছে ই-কমার্স খাত

  • মহেশখালিতে রিটার্নিং কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ফল পাল্টে দেয়ার অভিযোগ

  • সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কমিশনকে সর্বাত্মক ক্ষমতা দেয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

  • ভোটার তালিকায় নেই লোকমান, অর্ধশতাধিক নতুন মুখ

  • একাধিকবার গর্ভপাত, মাতৃত্বের স্বাদ বঞ্চিত গৃহবধূর আদালতে মামলা

  • পরিবারে বাল্য বিয়ে থাকলে ভিজিডি নয়: সংসদীয় কমিটি

  • চ্যানেল 24 ও সমকাল কার্যালয়ে এমপি নিক্সন

দুর্ভোগের আরেক নাম ঢাকা-গাজীপুর মহাসড়ক

দুর্ভোগের আরেক নাম ঢাকা-গাজীপুর মহাসড়ক

কাগজে কলমে রাস্তাটি মহাসড়ক। যার আব্দুল্লাহপুর থেকে গাজীপুর চৌরাস্তা পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার যেতে লাগে কয়েক ঘণ্টা। এনিয়ে মাসের পর মাস চরম ভোগান্তিতে মানুষজন। কবে শেষ হবে এই দুর্গতি, জানেনা কেউ।

কি কর্ম দিবস বা ছুটি, সকাল কিংবা সন্ধ্যা, গত রোজা থেকে টঙ্গী ব্রীজ থেকে যানবাহনের দীর্ঘ সারি দেখা যায় এই সড়কে পৌঁছে যায় উত্তরা হাউজ বিল্ডিং পর্যন্ত। অপেক্ষার যন্ত্রণা সইতে না পেরে শতশত মানুষ পায়ে হেটে রওনা দেন গন্তব্যে।

ভাঙ্গা রাস্তা বড় বড় গর্ত। টঙ্গী বাজার থেকে গাজীপুরা পর্যন্ত অবস্থা বেশি খারাপ। কাঁচারাস্তায় চাকা আটকে পড়ে আছে মালবাহী কভার্ড ভ্যান। সবমিলে এবড়ো থেবড়ো অবস্থা চারপাশ জুড়ে। 

আব্দুল্লাহপুর থেকে গাজীপুর চৌরাস্তা এই ১২ কিলোমিটার যেতে সবার জীবন থেকে চলে যাচ্ছে কমপক্ষে ৪ ঘণ্টা সর্বোচ্চ কতক্ষণ লাগতে পারে তা কেউ জানে না। যার স্পষ্ট প্রভাব সড়কের উপর নির্ভরশীল মানুষের জীবন জীবিকায়। 

আরও পড়ুন:  ঢাকা-১৪ আসনে এমপি হলেন আ.লীগের আগা খান 

এই রাস্তায় ২০১২ সালে শুরু হওয়া কর্মযজ্ঞ শেষ হওয়ার কথা ছিলো ২০১৬ সালে মধ্যে। ৫ বছর পরও সে কাজ শেষ তো হয়ইনি উল্টো মানুষের কষ্ট বেড়েছে। পিঠ বাঁচাতে এখন দু-এক জায়গায় চলছে ইট বিছিয়ে খানাখন্দ ভরাটের কাজ। তবে, পুরো সড়কে অস্থায়ী এই সংকার কাজ কবে শেষ হবে তা জানে না কেউ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর