channel 24

সর্বশেষ

  • নখের কিছু সমস্যা, যা হতে পারে করোনার উপসর্গ

  • খুলনায় এক সপ্তাহ বাস-ট্রেন চলাচল বন্ধ

  • বাবার কাছে ক্ষমা চাইলেন রিয়া চক্রবর্তী

  • মেগা প্রকল্প নিয়ে মেগা মিথ্যাচারে নেমেছে বিএনপি: কাদের

  • আকস্মিক বন্ধ ইরানের একমাত্র পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র

  • জোরপূর্বক স্বীকারোক্তি আদায় দুঃখজনক: হাইকোর্ট

  • লোহার কাঁচামালের কন্টেইনারে এলো অজগর!

  • মালয়শিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের ধরপাকড়, ১০২ বাংলাদেশি আটক

  • ভোলার চর ফ্যাশনে হাজারীগঞ্জে সংঘর্ষ, গুলিতে নিহত ১

  • আগামী তিন দিন সারাদেশে কমবে বৃষ্টি

  • কর্ণফুলীর পাড়ে স্থাপিত হলো দেশের সবচেয়ে বড় ছাদভিত্তিক সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র

  • ভারতে ৮৮ দিনে সর্বনিম্ন সংক্রমণ, কমেছে মৃত্যুও

  • ইরানের নতুন প্রেসিডেন্টকে ‘তেহরানের কসাই’ বলল ইসরায়েল

  • ইরানের একমাত্র পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র জরুরি ভিত্তিতে বন্ধ করা হয়েছে

  • দিনাজপুরে ভরা মৌসুমেও চালের বাজার চড়া

মিথেন গ্যাস নিঃসরণের হটস্পট বাংলাদেশ

মিথেন গ্যাস নিঃসরণের হটস্পট বাংলাদেশ

বৈশ্বিক তাপমাত্রার জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর মিথেন গ্যাস নিঃসরণের হটস্পট বাংলাদেশ। মাতুয়াইল আবর্জনাভূমি থেকে প্রতি ঘণ্টায় ছড়াচ্ছে ৪ হাজার কেজি মিথেন গ্যাস। এমন উৎস থাকতে পারে আরও। এ সব দাবি, স্যাটেলাইট গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও মার্কিন প্রভাবশালী সংবাদ মাধ্যমের। তবে এর পেছনে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছেন দেশের বিশেষজ্ঞরা।

মাতুইয়াল স্যানিটারি ল্যান্ডফিল। ১৮১ একরের বিশাল এক আবর্জনা ভূমি। যেখানে ৩২ বছর ধরে ফেলা হচ্ছে ঢাকা দক্ষিণের ঘরবাড়ি আর হাটবাজারের যতো আবর্জনা। কতটা বিজ্ঞানসম্মতভাবে এই কার্যক্রম চলছে সে প্রশ্ন তো আছেই। কিন্তু বায়ূমন্ডলের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর মিথেন গ্যাস সিঃসরণের হটস্পট হিসেবে মাতুয়াইলের নাম উঠে এসেছে প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ব্লুমবার্গে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত বাংলাদেশের আকাশে মিথেন নিঃসরণের ১২টি সর্বোচ্চ হার শনাক্ত করে প্যারিসভিত্তিক স্যাটেলাইট তথ্য বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান কায়রস এসএএস। আর কানাডার মন্ট্রিলভিত্তিক স্যাটেলাইট প্রতিষ্ঠান জিএইচজি স্যাট গত ১৭ এপ্রিল তোলা ছবিতে মিথেনের বড় উৎস হিসেবে চিহ্নিত করে মাতুয়াইল স্যানিটারি ল্যান্ডফিলকে। 

চ্যানেল টোয়েন্টি ফোরকে প্রতিষ্ঠানটির সিইও স্টিফেন জার্মান জানান, এখান থেকে ঘন্টায় নিঃসৃত হচ্ছে প্রায় ৪ হাজার কেজি মিথেন গ্যাস।   

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গ্রিন হাউজ গ্যাস ও তরল বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় জাইকার অর্থ সহায়তা পাওয়া এই ডাম্পিং স্টেশনে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা চলছে অবৈজ্ঞানিকভাবে।

শুধু মাতুয়াইল নয় কিংবা আমিনবাজার, নারায়ণগঞ্জ সড়করে দুইধারে চোখে পড়ে নিয়ন্ত্রণহীন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা। রসায়ন ও পরিবেশবিদরা মনে করেন, দেশে মিথেন নিঃসরণ বিদেশী তথ্যে যথার্যতা যাচাইয়ে সম্ভাব্য উৎসগুলোতে সরেজমিন পরীক্ষা করতে হবে।

বাংলাদেশে মিথেন সিঃসরণ ও উৎস পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে, বিশেষজ্ঞদের নিয়ে ১০ সদস্যদের কমিটি গঠন করেছে বন পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়। যার প্রতিবেদন দেয়ার কথা মাসখানেকের মধ্যে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর