channel 24

সর্বশেষ

  • পিছিয়ে যেতে পারে বন্ধবন্ধু আন্তর্জাতিক গোল্ড কাপ

  • মৌসুমে প্রথমবারের মত ঢাকার বাইরে প্রিমিয়ার লিগ

  • দ্বিতীয় ম্যাচে দল নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার বিপক্ষে শাহরিয়ার নাফীস

  • মুক্তিযুদ্ধে জিয়াউর রহমানের অবদানকে খাটো করে তুলে ধরা হচ্ছে: ফখরুল

  • সিরিজ নিশ্চিতের মিশনে কাল মাঠে নামবে বাংলাদেশ

  • করোনার টিকা সংরক্ষণের জোর প্রস্তুতি চলছে সারা দেশে

  • ভারতকে প্রধানমন্ত্রীর ধন্যবাদ

  • ভারতে সেরাম ইনস্টিটিউটের নির্মাণাধীন ভবনে অগ্নিকাণ্ডে ৫ জনের মৃত্যু

  • লুটপাটের জন্যই বৃদ্ধাকে নির্মম নির্যাতন, পরিকল্পনায় রেখার স্বামী

  • চসিক নির্বাচন: সেনা মোতায়েনের দাবি, বিএনপির প্রার্থীর

  • উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্র মিরপুর

  • ৭০ হাজার গৃহহীন পরিবার পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহার

  • বিনাদোষে ৫ বছর জেল খাটার পর মুক্তি পেল আরমান

  • ফেসবুকে পরিচয়, তারপর জিম্মি করে মুক্তিপণ দাবি

  • নীলফামারীতে ধর্ষণের দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড

পুলিশের রোষানলে মাদক মামলায় নিরপরাধ যুবকের দেড় বছর কারাবাস

পুলিশের রোষানলে মাদক মামলায় নিরপরাধ যুবকের দেড় বছর কারাবাস

২০০ গ্রাম হেরোইন ও ইয়াবার মামলায় দিয়ে নিরাপরাধ এক ব্যক্তিকে দেড় বছর জেল খাটানোর অভিযোগ উঠেছে পুলিশের এক সাব ইন্সপেক্টরের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগীর অভিযোগ, পূর্ব শক্রতার জের ধরে থানায় এনে নির্মমভাবে পেটানো হয়। এরপর দেয়া হয় মাদকের মামলা। একজন সাব ইন্সপেক্টরের এমন কান্ডে হতবাক হয়েছেন দেশের উচ্চ আদালত। বিষয়টি তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে ডিএমপি কমিশনারকে।

মিরাজ। নাবিব ক্লাসিক পরিবহনের ম্যানেজার। তার দাবি, ২০১৮ সালের ৬ জুন তাকে ধরে আনে দারুস সালাম থানার তৎকালীন এস আই রায়হানুজ্জামান।

থানায় এনে এলোপাতাড়ি পেটানো হয়। পরদিন ২০০ গ্রাম হেরোইন ও ২১ পিচ ইয়াবার মামলা দিয়ে পাঠানো হয় কারাগারে। প্রায় দেড় বছর জেল খাটার পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে মুক্তি পান মিরাজ। তার দাবি পূর্বশত্রুতার জেরে তাকে মাদক মামলায় ফাঁসানো হয়।

তার আইনজীবী বলছে, মিরাজকে গ্রেপ্তারের আগেই তার সঙ্গে এসআই রায়হানুজ্জামানের কথা হয়। যার কল রেকর্ড দাখিল করা হয় উচ্চ আদালতে। যেখানে পরিস্কার হয় পূর্বশত্রুতার বিষয়টি।

সাব ইন্সপেক্টরের এমন কান্ডে হতবাক দেশের উচ্চ আদালত। বিস্মিত রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীও। তার বিরুদ্ধে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় ডিএমপি কমিশনারকে। 

নিজের ভুল স্বীকার করে আদালতের কাছে মাফও চেয়েছেন রায়হানুজ্জামান। যিনি বর্তমানে উত্তরা পশ্চিম থানায় কর্মরত রয়েছেন। রায়হানকে নিজের ভুলের নথি ডিএমপি কমিশনারের কাছে নিয়ে যাওয়ার আদেশ দেয়া হয়। যা তার প্রাথমিক শাস্তি বলে জানান হাইকোর্ট।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর