channel 24

সর্বশেষ

  • যুক্তরাষ্ট্রে করোনার টিকা প্রদান শুরু হতে পারে ১১ ডিসেম্বর

শহরের মাঝে এ যেন গ্রামীণ অনুভূতির ছোঁয়া

শহরের মাঝে এ যেন গ্রামীণ অনুভূতির ছোঁয়া

একটি বৃক্ষ, যেখানে ঠাঁই নিয়েছে শত শত চড়ুই পাখির দল। সকাল হলেই ওরা ছোটে জীবিকার সন্ধানে, আবার ফিরে আসে দিনশেষের গল্পে। কিচিরমিচির কলরবে মাতিয়ে তোলে চারপাশ। বলছি গুলশান দুই এর গোল চত্ত্বরের কথা। এখানেই শাখা-প্রশাখা মেলে চড়ুই এর আশ্রয় হয়েছে তিনটি বৃক্ষ। শহরের মাঝে এ যেনো গ্রামীণ অনুভূতির ছোঁয়া।

জাগছে শহর, জাগছে মানুষ, রোজকার নিয়ম মেনে রোজগেরে গল্পগুলো সব ঝাপি খুলছে ব্যস্ততার। তবে গল্পটা শহরের নয়, মানুষের নয়, শহুরে যানজট আর কালো ধোঁয়ার বিষাক্ততার ভেতর গজিয়ে ওঠা ৩টি বৃক্ষের আর ১৫ সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্যের চড়ুই পাখির।

গুলশান দুই এর গোলচত্ত্বরে বৃক্ষ ত্রয়ী যেনো ডালপালা মেলে ছড়িয়ে আছে অদ্ভুত এক আবেগ। দিনশেষে যে বৃক্ষের প্রতিটি সবুজ পাতাই হয়ে ওঠে ওদের ঘর, ওদের ছাউনি। সন্ধ্যে নামতেই চড়ুই এর কলতানে তাই শহরটাকেই তখন মনে হয় যেনো গ্রাম।

শহুরে ভ্যাঁপু হর্ণ এড়িয়ে চড়ুই এর এমন অস্থির ডাকাডাকিতে কিছুটা হলেও যেনো স্থিরতা মেলে যানজটে আটকে থাকা দমবন্ধ অনুভূতির, পথ চলতে হঠাৎ থমকায় পথিকও স্মৃতিতে আটকে রাখে চড়ুই আর বৃক্ষের যুগল কাব্য।

তবে সেই পঙ্তিতেও আছে নিধনের কোপ। কেটে ফেলা হচ্ছে ডাল-পালা, কখনো পুরো গাছটাই। এছাড়া দীর্ঘ পেনডামিকে শহর যখন সেজে উঠছে সবুজে তখন অনেকেরই প্রশ্ন, কলতান ছাড়া সবুজের সৌন্দর্য্য কতোটুকুই-বা হৃদয়ের হয়?

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর