channel 24

সর্বশেষ

  • সমালোচনাকারীদেরও টিকা নিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

  • ফুলকপিতে ছত্রাকের আক্রমণ

  • সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা মামলায় ৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ

  • করোনার প্রথম টিকা নিলেন নার্স রুনু কস্তা

  • টেকনাফে অসহায়দের খাবার, বস্ত্র ও চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন 'মারোত'

  • ছাত্রলীগ সমাজসেবা সম্পাদকের নেতৃত্বে শীতবস্ত্র বিতরণ

  • করোনা টিকাদানে বিশ্ব কাতারে নাম লেখালো বাংলাদেশ

  • বিজিএমইএর আসন্ন নেতাকে গার্মেন্টস মালিকদের স্বার্থরক্ষায় সক্রিয় ভূমিকা রাখতে হবে: এ কে আজাদ

  • বুকে ব্যাথা নিয়ে ফের হাসপাতালে সৌরভ গাঙ্গুলী

  • বোলিং র‍্যাংকিংয়ের সেরা দশে বাংলাদেশের দুই বোলার

  • বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের চতুর্থ রাউন্ড শুরু আজ

  • বাফুফে একাডেমি হবে কমলাপুর স্টেডিয়ামে

  • পুতিনের সাথে বাইডেনের ফোনালাপ

  • করোনায় বিশ্বে আক্রান্ত ১০ কোটি ছাড়িয়েছে

  • বছরখানেক পর খুলছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল

সীমান্তে রোহিঙ্গারা ঠিক করেন জনপ্রতিনিধি!

সীমান্তে রোহিঙ্গারা ঠিক করেন জনপ্রতিনিধি!

শুধু জাতীয় পরিচয়পত্র নয়, সীমান্ত এলাকায় ভোটের রাজনীতিতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন রোহিঙ্গারা। জনপ্রতিনিধিরাও জানেন সব, তবুও ভোটের আশায় আর আর্থিক লেনদেনে যেন সব কিছু ধামাচাপা। ফলে কোন কোন রোহিঙ্গা ভোটার ১৫ বছর বয়স বাড়িয়ে তালিকায় ঢুকে রোহিঙ্গাদের কেউ কেউ নিচ্ছেন বয়স্ক ভাতাও এর সবই হচ্ছে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে।

ঘুমধুম ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের ফাইলবন্দি ৫০০ রোহিঙ্গা ভোটার তালিকার একজন আবুল হাশেম। পেশায় ভ্যান চালক। রোহিঙ্গা শরনার্থী হিসেবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে এদেশে এসে ভোটারও হয়েছেন। বয়স ৫২ হলেও জাতীয় পরিচয়পত্রে ১৫ বছর বাড়িয়ে নিচ্ছেন বয়স্ক ভাতাও।

আর এতকিছু সম্ভব হয়েছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কল্যাণে। এলাকাবাসী সবাই তার রোহিঙ্গা পরিচয় ও এনআইডি জালিয়াতির ঘটনা জানলেও স্থানীয় মেম্বার জানেন না কিছুই।

নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আবছার অবশ্য ফাঁস করলেন হাড়ির খবর। এই নাইক্ষ্যংছড়িতে দিনে দিনে শক্তিশালী হয়ে উঠছে রোহিঙ্গা ভোটাররা। উপজেলা থেকে শুরু করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে তাদের এই শক্তিশালী সিন্ডিকেট। এ নিয়ে সহজে মুখও খুলতে চান না অনেকে।

কিন্তু রোহিঙ্গা ভোটারদের বিরুদ্ধে কথা বলতে জনপ্রতিনিধিদের কিসের ভয়? এ জনপদের বাসিন্দারা বলছেন, ভোটের রাজনীতিতে জয়-পরাজয়ে বড় ভূমিকা রাখছে রোহিঙ্গারা। ফলে আওয়ামী লীগ-বিএনপি রাজনীতির বলয় ছাপিয়ে এই অঞ্চলে আলাদা দুটি ধারা তৈরি হয়েছে। রোহিঙ্গা বান্ধব আর বিরোধী।

রোহিঙ্গাবান্ধব তালিকায় সরাসরি উঠে এসেছে বর্তমান নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের শফিউল্লাহর নাম। যিনি একই সাথে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিও। আরো কিছু জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতাও আছেন এই তালিকায়।

ঘুমধুমের বাসিন্দাদের অভিযোগ, রাজনীতি আর টাকার খেলায় ১৩ রোহিঙ্গা বাদ পড়েছেন ভোটার তালিকা থেকে। বাকিরা আছেন বহাল তবিয়তেই।

শুধু নাইক্ষ্যংছড়িই নয়, এই রোহিঙ্গাদের অনেকে ছড়িয়ে পড়ছে আশপাশের উখিয়া, টেকনাফ, কক্সবাজার, রামু, সাতকানিয়াসহ আশপাশের জেলা ও উপজেলাগুলোতে। কেউ কেউ আবার পাসপোর্ট নিয়ে পাড়ি জমাচ্ছেন বিদেশেও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর