channel 24

সর্বশেষ

  • কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ইএক্সপি যাচ্ছে অনলাইনে; চট্টগ্রাম কাস্টমসে শুল্কায়ন শুরু

  • ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ছুটছে ম্যান ইউয়ের জয়রথ

  • করোনার ভুয়া সনদকাণ্ডে ইতালিতে বিপাকে বাংলাদেশিরা

  • দেশে করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৯৪৯

  • করোনায় ফরিদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের মৃত্যু

  • এলাকাভিত্তিক বিক্ষিপ্ত লকডাউন অযৌক্তিক ও অকার্যকর: স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ

  • কাজ না থাকায় বিপাকে সুনামগঞ্জের ৩ শতাধিক ভিডিওগ্রাফার

  • 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ভারতের গ্যাংস্টার বিকাশ দুবে

  • করোনার চেয়ে বেশি মানুষ মারা যেতে পারে অনাহারে: অক্সফামের সতর্কতা

  • রংপুরে ৯৩ হাজার হতদরিদ্র পরিবার পায়নি প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার

  • করোনাকালে স্বাস্থ্যখাতের সবচেয়ে বড় দুর্নীতি রিজেন্ট কাণ্ড

  • বাংলাদেশসহ ১৩ দেশের ওপর ইতালির নতুন নিষেধাজ্ঞা

  • নেপালে বন্ধ ভারতের সব টেলিভিশন চ্যানেলের সম্প্রচার

  • চট্টগ্রামে হাসপাতাল বিমুখ রোগীরা

  • দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে বাবা-ছেলেসহ ৮ জনের মৃত্যু

করোনাকালে কেমন আছেন খেটে খাওয়া বাবারা?

করোনাকালে কেমন আছেন খেটে খাওয়া বাবারা?

বাবা- দুই অক্ষরের ছোট্ট এই শব্দে লুকিয়ে আছে হাজারো আদর-শাসন আর কর্তব্য। ঝড়-বৃষ্টি-রোদ কিংবা সমকালীন করোনা যত দুর্যোগই আসুক সন্তানের মুখে হাসি ফুটাতেই যেন সদা ব্যস্ত থাকেন জন্মদাতা পিতা। করোনাকালে কেমন আছেন খেটে খাওয়া বাবারা??

বাবা মানেই যেনো রাশভারী এক চেহারা, বাবা মানেই শাসন বারন, বাবা মানে হাজারো বিধিনিষেধ।

করোনা যখন ছুঁয়ে আছে ঘর-মন-জানালা তখন সেই বিধি-নিষেধে কেমন আছেন সেই বাবারা? নুন আনতে পান্তা ফুরোয় যাদের।

এই যেমন অধর বাবু, দিন পনেরো আগেই হারিয়েছেন বাবাকে। তবু আটকে নেই জীবন তার চারদেয়ালের ঘরে। নিজেওতো বাবা আর তাই করোনা আতংক পেছনে ফেলে ফুটপাতেই পেতেছেন জীবিকার বসতি।

এদিকে তিন চাকার সাথেই কেটেছে যার যৌবনের পুরোটা সময়, বার্ধক্যের নুয়ে পড়া শরীরে সেই প্যাডেলেই আবার ঘুরছে জীবন। বলছি সত্তর উর্ধ্ব হাবিবুর রহমানের কথা। করোনা যে কেড়ে নিয়েছে শ্রমিক সন্তানের কাজ।

করোনার এই দুঃসময়ে রহুল আমিনের সবুজ ইন্জিনও যে দিতে পারছেনা দুঃখ তাড়াবার ফুয়েল। বাকি পড়েছে তিন মাসের ভাড়া, সন্তানদের মুখে খাবার তুলে দিতেও খাচ্ছেন হিমশিম। ছুটছেন তবু শহরের এপ্রান্ত-ওপ্রান্ত।

খেটে খাওয়া এসব বাবাদের কাছে যেন করোনার চেয়ে বড় আতংক, সন্তানের মলিন মুখ। সন্তানের হাসিটাই যে প্রথম এবং প্রথম চাওয়া। আর তাইতো দিন আনি দিন খাই এর সংসারে এমন দিনভর ছুটোছুটি।

দিনশেষে চার আঙুলের কপালে যদিও চিন্তার ভাঁজ পড়ে ঠিকই তবু সন্তানের বাবা ডাকটা যেনো নিমিষেই উধাও করে দেয় সমস্ত ক্লান্তি। বাবারা তো এমনই, প্রতিটিদিন ভালো থাকুক কঠিনের আবরনে নরম এই স্বত্তা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর