channel 24

সর্বশেষ

  • দেশে করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৯৪৯

  • করোনায় ফরিদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের মৃত্যু

  • এলাকাভিত্তিক বিক্ষিপ্ত লকডাউন অযৌক্তিক ও অকার্যকর: স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ

  • কাজ না থাকায় বিপাকে সুনামগঞ্জের ৩ শতাধিক ভিডিওগ্রাফার

  • 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ভারতের গ্যাংস্টার বিকাশ দুবে

  • করোনার চেয়ে বেশি মানুষ মারা যেতে পারে অনাহারে: অক্সফামের সতর্কতা

  • রংপুরে ৯৩ হাজার হতদরিদ্র পরিবার পায়নি প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার

  • করোনাকালে স্বাস্থ্যখাতের সবচেয়ে বড় দুর্নীতি রিজেন্ট কাণ্ড

  • বাংলাদেশসহ ১৩ দেশের ওপর ইতালির নতুন নিষেধাজ্ঞা

  • নেপালে বন্ধ ভারতের সব টেলিভিশন চ্যানেলের সম্প্রচার

  • চট্টগ্রামে হাসপাতাল বিমুখ রোগীরা

  • দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে বাবা-ছেলেসহ ৮ জনের মৃত্যু

  • কোয়ারেন্টিনে ইতালি ফেরত ১৪৭ বাংলাদেশি, রাখা হয়েছে হজ ক্যাম্পে

  • করোনায় মারা গেছেন সাহেদের বাবা

  • সাহারা খাতুন মারা গেছেন

মধ্যপ্রাচ্যের শ্রমবাজার ধরে রাখতে শ্রমিকদের দক্ষতা বৃদ্ধির বিকল্প নেই

মধ্যপ্রাচ্যের শ্রমবাজার ধরে রাখতে শ্রমিকদের দক্ষতা বৃদ্ধির বিকল্প নেই

করোনা পরবর্তী মধ্যপ্রাচ্যের শ্রমবাজার ধরে রাখতে শ্রমিকদের দক্ষতা বৃদ্ধির বিকল্প নেই বলে মনে করছে আইওএম। আন্তর্জাতিক ফ্যামিলি রেমিটেন্স দিবস উপলক্ষ্যে প্রবাসী আয়ের উপর নির্ভর এমন এক হাজার পরিবারের সাথে কথা বলে একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। যেখানে বলা হয়েছে শুধু দক্ষতা বাড়ার কারণে গত দশ বছরে মাসিক দুইশ পঞ্চান্ন ডলার রেমিটেন্স বেড়েছে।

করোনায় বিশ্বের অনেক দেশের মতো থমকে আছে মধ্যপ্রাচ্যের অর্থনীতিও। এ অবস্থায় সবচেয়ে বেশি দুশ্চিন্তায় এসব দেশে কর্মরত লাখ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক। এরইমধ্যে দেশে ফিরে এসেছেন অনেকে। যারা আছেন তাদের চাকরি হারানোর শঙ্কা তো আছেই, এবছরের শেষ নাগাদ ফেরতও আসতে হতে পারে। সব মিলিয়ে যার প্রভাব পড়ছে তাদের পরিবার এবং প্রবাসী আয়ে।

গবেষণায় দেখা গেছে, প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকদের ৯৮ শতাংশই পুরুষ। এদের প্রায় ১২ শতাংশ একেবারেই স্কুলে যায়নি এবং ৮০ শতাংশের মতো পড়াশোনা করেছেন সেকেন্ডারি স্কুল পর্যন্ত। জরিপে অংশগ্রহণকারী প্রবাসী শ্রমিকদের প্রায় অর্ধেক কাজ করেন কোনো প্রতিষ্ঠানে, চার ভাগের এক ভাগ দিন মুজুরি বা খণ্ডকালীন হিসেবে কাজ করেন।

আইওএম বাংলাদেশ মিশনের প্রধান গিওরগি গিগাওরি বলেন, "অন্য যেকোনো সময়ের তুলনায় এখন আমাদের মন্দা-প্রভাবিত রেমিটেন্স নির্ভর মানুষকে সহায়তায় অধিক নজর দিতে হবে। আমাদের অভিবাসী কর্মীদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে অগ্রাধিকার প্রদানের জন্য সরকারকে সহায়তা করা প্রয়োজন, যাতে অভিবাসী কর্মীরা বাংলাদেশে রেমিটেন্স প্রবাহ বাড়াতে পারে। একইসাথে তাদের পরিবার, বিশেষ করে নারীদের অর্থনৈতিক শিক্ষা প্রদানে গুরুত্ব দিতে হবে, যাতে করে রেমিটেন্স উৎপাদনমূখী খাতে বিনিয়োগ নিশ্চিত হয় এবং রেমিটেন্স নির্ভর পরিবারগুলোর স্থিতিস্থাপকতা ও অর্থনৈতিক স্বাধীনতা তৈরি হয়।"

গবেষণায় মোট চারটি সুপারিশের কথা বলা হয়েছে। যাতে জোর দেয়া হয়েছে প্রবাসি শ্রমিকের শিক্ষা এবং দক্ষতা বৃদ্ধিতে বিনিয়োগ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর