channel 24

সর্বশেষ

  • সিরাজগঞ্জে ছাত্রলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫০

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাড়ির আঙ্গিনায় গাঁজা চাষ, ১ নারী আটক

  • মর্নিং বার্ড লঞ্চ শত্রুতামূলকভাবে ডোবানো হয়েছে: নৌ পুলিশ

  • ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট করোনায় আক্রান্ত

  • ১৮২০ তৃণমূল ফুটবলার আর্থিক সহায়তা পাচ্ছে

  • খুলনায় আটক পাটকলের ২ শ্রমিক নেতা কারাগারে

  • এশিয়া কাপ স্থগিতের শঙ্কায় আকরাম খান

  • করোনায় ফেনীর সিভিল সার্জনের মৃত্যু

  • ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট দিয়ে মাঠে গড়াচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

  • নানা পরিচয়ে একের পর এক ব্যবসা বাগিয়েছেন রিজেন্টের মালিক

  • বাংলাদেশ থেকে এক সপ্তাহের জন্য ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা দিলো ইতালি

  • মৃতের হাত বেঁধে টাকা আদায়: প্রশান্তি হাসপাতালের বিরুদ্ধে ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট

  • প্যাপিনোমেলনের পুষ্টিগুণ

  • মরিচ গাছের পাতা কুকড়ানো বা লিফ কার্ল রোগ

  • আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত ঘেরে চিংড়ির রোগ নির্ণয় ভ্রাম্যমাণ মৎস্য ক্লিনিক

পরীক্ষার হার না বাড়ালে বাংলাদেশের পরিণতি হতে পারে ব্রাজিলের মতো

পরীক্ষার হার না বাড়ালে বাংলাদেশের পরিণতি হতে পারে ব্রাজিলের মতো

করোনা সংক্রমণের তিন মাসের পথে বাংলাদেশ। বর্তমানে বিশ্বে আক্রান্ত শীর্ষ ৫ দেশের মধ্যে ৯০ দিনে সবচেয়ে বেশি ১০ লাখ আক্রান্ত হয় যুক্তরাষ্ট্রে। ব্রাজিলে পৌনে ৪ লাখ আক্রান্ত হলেও প্রথম তিনমাসে স্পেন, ইতালি আর যুক্তরাজ্যে এ সংখ্যা ছিলো ২ লাখের ঘরে। সোয়া ১ লাখ ছিলো রাশিয়ায়। বাংলাদেশের ৮৩ তম দিনে মোট আক্রান্তের চেয়ে ১০ হাজার কম ছিলো ভারতে। বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, পরীক্ষার হার না বাড়ালে বাংলাদেশের পরিণতি হতে পারে ব্রাজিলের মতো।

প্রাণহানি ও আক্রান্তে সব দেশকে ছাড়ানো যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম করোনা রোগী চিহ্নিত হয় জানুয়ারিতে। প্রথমে কম থাকলেও, ২ মাসের মাথায় আক্রান্ত ১৫ হাজার আর প্রাণহানি ছাড়ায় ২শ। ৮০তম দিনে ৭ লাখ ছাড়ায় আক্রান্ত। তিন মাসে ছাড়িয়ে যায় ১০ লাখ, প্রাণহানি অর্ধলাখ।

প্রথম সংক্রমণের ১ মাস পূর্তির দিনে ব্রাজিলে আক্রান্ত ছিলেন ২ হাজার। ৬০ দিনে ৫৮ হাজার; এর ২০ দিনের ব্যবধানে আক্রান্ত আরও দেড় লাখ। ৯০ তম দিনে সংখ্যাটি পৌনে ৪ লাখ।

ওয়ার্ল্ড র‍্যাংকিংয়ে তৃতীয় রাশিয়াতে প্রথম ৩০ দিনে, মাত্র ৩ জন আক্রান্ত। ২ মাসে সংখ্যাটি প্রায় ৩ হাজার; ৮০ তম দিনে প্রায় ৬০ হাজার আর ৩ মাসে এটি ১ লাখ ২৫ হাজারে পৌঁছে।

যুক্তরাজ্যে প্রথম ১ মাসে ৩৯ জন কোভিড১৯ রোগী মেলে। ২ মাসে এটি ২৯ হাজার; ৮০ তম দিনে নতুন ৪ হাজার আক্রান্ত নিয়ে ১ লাখ ২৯ হাজার রোগী চিহ্নিত হয়, ব্রিটেনে। ৯০ তম দিনে সংখ্যাটি পৌনে ২ লাখ।  

স্পেনে প্রথম সংক্রমণের ১ মাসে শতাধিক, ৬০ তম দিনে ১ লাখ আক্রান্ত আর মৃত্যু ৯ হাজার। এর ২০ দিন পর আরও ১ লাখ কোভিড ১৯ রোগী শনাক্ত; পরের ধাপে কিছুটা কমে সংক্রমণ।

ইউরোপের মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত সংক্রমণের রেকর্ড ইতালিতে। প্রথম একমাসে ১১শ কোভিড১৯ রোগী শনাক্ত হয়; মারা যান মাত্র ২৯ জন। তবে পরের এক মাসে এ সংখ্যাটা পৌঁছে লাখের কাছে। প্রাণহানি ছাড়ায় ১০ হাজার। ৮০ দিনের ব্যবধানে প্রায় সোয়া দুলাখ রোগী মেলে দেশটিতে। ৯০ দিনে সংখ্যাটি ছাড়ায় ২ লাখ। বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্তত ৮০ টি দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়ায় ইতালিফেরতদের মাধ্যমে।

ভারতে ২ মাসের মাথায় দেড় হাজার আক্রান্ত আর ৩৮ জনের মৃত্যু হয়। ৮০ তম দিনে ১৮ হাজার আর ৯০ তম দিনে সংখ্যাটা দাঁড়ায় ৩৫ হাজারে।

চীনের পর যেসব দেশে ব্যাপকভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে, সেখানে প্রথম সংক্রমণের পর ৩৮ থেকে ৭৬ দিনের মাথায় একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ শনাক্ত হতে দেখা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ম্যাসাচুটেসের এমডি এটেন্ডিং কার্ডিওলজিস্ট ডা. মাশরাফী আহমেদ বলছেন, পরীক্ষা না বাড়ালে বাংলাদেশের পরিণতি হতে পারে ব্রাজিলের মতো।

অবশ্য, ঢাকার সিভিল সার্জন ডা. মঈনুল আহসান বলছেন, বাংলাদেশে এখনও সংক্রমণের তৃতীয় ধাপে আছেই এটাই বড় সাফল্য।

দেশে বর্তমান সংক্রমণের হার যুক্তরাষ্ট্রের কাছাকাছি বলছেন বিশেষজ্ঞ। তবে, জনসংখ্যার অনুপাতে পরীক্ষা হার অপ্রতুল মনে করেন তারা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর