channel 24

সর্বশেষ

  • যুক্তরাষ্ট্রে করোনার টিকা প্রদান শুরু হতে পারে ১১ ডিসেম্বর

কেমন আছে ঘরবন্দী মানুষের কথা আর স্বপ্নগুলো?

কেমন আছে ঘরবন্দী মানুষের কথা আর স্বপ্নগুলো?

করোনা প্রকোপের আগ মুহূর্তের কথা যদি বলি কতোইনা কথা ছিলো মানুষের মনে। ছিলো আবদার বায়না অপেক্ষা কিংবা প্রতীক্ষার শত হাজার রঙ। কেমন আছে ঘরবন্দী সেই কথা আর স্বপ্নগুলো? চার দেয়ালের মাঝে নিঃশ্বাস নেয়া মানুষেরা বলছে, যে কথা ছিলো মনে, তা মনেই আছে এখন শুধু আগের রঙে ফিরে পাবার আকাঙ্খা।

হাতের উপর হাত রেখে রঙিন স্বপ্ন বুনবার কথা ছিলো। কথা ছিলো দু-জোড়া পায়ে বহুদুর পথ হেঁটে যাবারও।

কিছু কথা ছিলো আবদারের আর কিছু শুধুই বায়নার, কিছু কথা ছিল লিখবার আর কিছু ক্যানভাস জুড়ে শুধুই আঁকবার। কিছু কথা ছিলো অপেক্ষার, কিছু প্রতীক্ষার আর কিছু হয়তোবা সবসময় পাশে থাকবার।

কিছু কথা ছিলো অর্জনের, আর দিনশেষে কিছু উপার্জনের। বিষাদের জানালায় কিছু কথা যেমন ছিলো আনন্দের তেমনি কথা ছিলো প্রত্যয়ের, প্রতীজ্ঞার আর প্রশ্রয়ের। শুধু কি তাই কারনে-অকারনে যেমন অনেক কথা ছিলো, তেমনি অনেক কথা ছিলো বিধি-নিষেধ আর আপন বারনেও।  

এই যে এতো এতো কথা ছিলো, তার সবটুকুই কিন্তু এখনও আছে মনের গহীণে হয়তো ঘুমিয়ে নয়তো ভীষণরকম জেগে। শুধু অদৃশ্য শত্রুর দৃশ্যমান আতংকে সময়টাই নেই এখন হাতের মুঠোয়। করোনার করুণ সুর যেনো বাজছে সব কথার গানে।

তবে চাই যদি আবার ফিরে আসুক নতুন রঙে সেই পুরোনো সময়, যদি চাই আবারও ডানা মেলুক কথাগুলো,  আবারও বায়নার ঝাপি খুলে বসুক খুব প্রিয় আবদারগুলো। তবে সেই ইচ্ছেপূরণের গল্পে সচেতনতার বিকল্প কিছু নেই।

আর তাই আসুন সবারই প্রত্যাশার রঙ জুড়ে এখন শুধুই প্রার্থনা। সহজ কিছু নিয়ম মানবার, ঘরে থাকবার, দূরত্ব বজায় রাখবার। তবে কয়জনই বা মানছে তা, নইলে ঘরবন্দি সমস্ত কথা, আবেগ কিংবা অনুভূতি থেকে যাবে এমন চিৎকারেই।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর