channel 24

সর্বশেষ

  • অবসর নয়, টেস্ট দলে ফেরার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে: মাহমুদুল্লাহ

  • ভারতের পশ্চিম ও মধ্যাঞ্চলের ৫ রাজ্যে পঙ্গপালের হানা

  • মাধবপুরে জমি দখল নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১০

  • যমুনা নদীতে নৌকাডুবিতে দুজনের মরদেহ উদ্ধার

  • আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মুশফিকের ১৫ বছর

  • করোনায় মানবতার সেবায় দৃষ্টান্ত চাঁদপুরের চিকিৎসক দম্পতি

  • করোনায় ডেপুটি স্পিকারের স্ত্রী আনোয়ারা রাব্বীর মৃত্যু

  • করোনা আতঙ্কে ঘর থেকেই বের হননি রাজধানীর বেশিরভাগ মানুষ

  • লাদাখে মুখোমুখি ভারত ও চীনের সেনাবাহিনী

  • দুর্যোগে জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকারের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে বিএনপি: কাদের

  • করোনায় দেশে আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১৬৬

  • নিজের কিট দিয়ে করোনা পজিটিভ ডা. জাফরউল্লাহ

  • মানসিক অবস্থা ভালো হলেও শারীরিকভাবে সুস্থ নন খালেদা জিয়া

  • ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত খুলনার কয়রাসহ ৫ উপজেলার মাছ চাষী

  • দেশে রেকর্ড চাল উৎপাদনের আশা, উঠে আসবে বিশ্বের তিন নম্বরে

নিম্নবিত্তের প্রতিদিনের খাবার জোটাতে নীরব আর্তনাদ

নিম্নবিত্তের প্রতিদিনের খাবার জোটাতে নীরব আর্তনাদ

করোনা পরিস্থিতিতে ফাঁকা রাজধানী ঢাকা। তাতেই ঢাকা পড়েছে, নগরীর নিম্নবিত্তের আয়ের সব পথ। তারপরও ক্ষুধায় জ্বালাও বাধ্য হয়ে, ঘরের বাইরে বেরুচ্ছেন হতভাগা কিছু মানুষ। নেই কাজ, নেই আয়। এ অবস্থায় দিশেহারা দিন এনে দিন খাওয়া এসব মানুষ। নীরব আর্তনাদ ছাড়া কিছুই যেন করার নেই তাদের।

শুধু ১৪ দিন নয়, ১৪ মিনিট কিংবা ১৪ সেকেন্ডের জন্যও গৃহবন্দী হওয়া সম্ভব নয় খেটে খাওয়া মানুষের। ৪৮ বছর ধরে তিন চাকার প্যাডেলে জীবন বাঁচিয়ে রাখা রিক্সাচালক মানুষটির কাছে করোনা তাই কোনো আতংক নয় আতংক ক্ষুধা।

বয়সের ভারে শরীর যখন আর চলে না এমন অবস্থায় চেয়ে-চিন্তে জোগাড় করা দুমুঠো অন্নই ছিলো এসব মানুষের ভরসা। দেশের এমন সংকটে সেই ভরসাও যেনো চোখের জলে ভিজে একাকার। কি হবে তার আর কিভাবেই বা সে সামলাবে পরিবার।

তাঁরা বলছেন, রাত থেকে ঘুরছি, কিছুই পাইনি খাবার। বাচ্চাও কাঁদে সাথে কাঁদছে মাও। সবাই বলে যাউগা যাউগা। রাস্তায় বের হলেই চোখে পড়ে নিম্নবিত্তের এমন হাহাকার, করোনা যাদের করছেনা একটুও করুনা।

শূণ্য ঢাকা যেনো ঢেকে দিয়েছে আয়ের সবপথ এরপরও যে পেট শোনেনা কোনো বারন, আর তাইতো শূণ্যতার মাঝেও পেটে পাথর বেঁধে অন্নের যোগানে তাদের এই নিত্য আর্তনাদ।

এক রিক্সাচালক বলছেন, তেমন কোন আয় নেই, তারপরেও এই রোদের মধ্যে ঘুরছি। আমরা আর কি করবো, আমাদের তো এছাড়া পথ নেই।

তাঁরা কোণ অভিযোগ করছেন না, প্রতিনিয়ত বাঁচার জন্য লড়াই করে যাচ্ছেন। তাঁদের কাছে করোনাভাইরাসের আতংক কতটুকু পৌছাতে পেরেছে তা এখন প্রশ্নের বিষয়। তবে অনেকেই বলছেন, কী সাহায্য করছেন কেউ করছেন না। এখনও তাঁরা আশায় বুক বেধে রাস্তায় নামেন, অন্তত কেউ এই মানুষগুলোর পাশে এসে দাঁড়াবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর