channel 24

সর্বশেষ

  • করোনায় বিশ্বে আক্রান্ত ১ কোটি ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে

  • বগুড়া ১ ও যশোর ৬ আসনে ভোটগ্রহণ শুরু

  • অবনতি হচ্ছে দেশের বন্যা পরিস্থিতির

  • রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে মামলা

  • মালদ্বীপে বকেয়া বেতনের দাবিতে পুলিশের সাথে শ্রমিকদের সংঘর্ষ, ৩৯ বাংলাদেশি আটক

  • পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি বিধায়কের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

  • থমকে যাওয়া সেই নৌপথে আবারও দুরন্ত গতিতে ছুটবে জলযান

  • সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • দু'বছর ধরে লাইসেন্স ছাড়াই লাজ ফার্মার ব্যবসা

  • জাভি হার্নান্দেজই হচ্ছেন বার্সেলোনার কোচ: ক্লাব প্রেসিডেন্ট

  • আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলতে বাধা নেই ম্যান ইউ'র

  • টাকা চাইলেই পাওনাদারদের ওপর নামতো জেকেজির নির্যাতনের খড়গ

  • বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ১০টি নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে

  • হজ্জ্ব ক্যাম্পে কোয়ারেন্টিন শেষে বাড়ি ফিরলো ৯৬ কুয়েত প্রবাসী

  • সর্দিজ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ৬ জনের মৃত্যু

করোনায় সবেচেয়ে চাপে খেটে খাওয়া মানুষ

করোনায় সবেচেয়ে চাপে খেটে খাওয়া মানুষ

কভিড নাইনটিন ভাইরাসে লণ্ডভণ্ড বৈশ্বিক অর্থনীতি। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। অর্থনীতির এমন দুর্বিপাকে সবচেয়ে বেশি চাপ পড়ছে খেটে খাওয়া মানুষগুলোর ওপর। মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তহীনতায় তারা। অর্থনীতিবিদরা মনে করছেন, আপৎকালীন এসময়ে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য তহবিল গঠনসহ নানা বিশেষ উদ্যোগ প্রয়োজন।

ধনী-গরীব, রাজা- প্রজার ফারাক জানে না নোভেল করোনাভাইরাস। তবে সব বিপত্তি- দৈব- দুর্বিপাকে বরাবর যা হয় এবারও তাই। করোনায় গরিবের স্বাস্থ্যঝুঁকির সঙ্গে যোগ হয়েছে অর্থনৈতিক নিরাপত্তাহীনতাও।

দিনের আয়ে যাদের রাতের খাওয়া চলে, তাদের কমছে কাজ আর কপালে বাড়ছে-দুশ্চিন্তার ভাঁজ। তাঁরা বলছেন, বাজারে যার লাগে ৫কেজি সে কিনছে ১বস্তা, গরীবের তো ৫দিনের খাবারও ঘরে নাই। সব বন্ধ করে দিলে আমরা কি করে খাব।

পেটের টানে হার মানছে- করোনার দুর্ভাবনা। নিয়মিত হাত ধুতে হবে, জনসমাগম এড়াতে হবে, এই বার্তাগুলো নানা মাধ্যমে তাদের পর্যন্ত পৌঁছাচ্ছে ঠিকই-কিন্তু মানা হচ্ছে কই?

তাঁরা বলছেন, টিভি-মোবাইলে বলছে, হাত ধৌ পরিষ্কার থাকো। কিন্তু পরিষ্কার আর কতক্ষন থাকবো। এখনতো আমাদের না খেয়ে মরার কায়দা হয়ে গেছে।

করোনা শুধু মানবস্বাস্থ্যেই নয়, বিশ্বব্যাপী কর্মসংস্থানের ওপর ফেলেছে ভয়াল থাবা। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এই পরিস্থিতে স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য দরকার বিশেষ তহবিল গঠন। মনোযোগ দিতে হবে স্বাস্থ্য সুরক্ষাও।

অর্থনীতিবিদ ও গবেষক ড. নাজনীন আহমেদ বলছেন, যারা মধ্যবিত্ত বা উচ্চবিত্ত তাঁদেরো সমস্যা হবে কিন্তু যেহেতু তাঁদের সঞ্চয় থাকে তাঁরা সেটা দিয়ে হয়তো এই দুর্যোগটা মোকাবেলা করতে পারবেন। কিন্তু যারা দিন আনে দিন খায় তাঁদের হাতে কিন্তু এই আয় বা সঞ্চয়টা থাকে না।

বৈশ্বিক মহামারীতে বিশ্বের বহু ধনীরা নানাভাবে সহায়তা করছেন। দেশের বিত্তবানদেরও এমন উদ্যোগে শামিল হওয়া নৈতিক দায়িত্ব বলে মনে করেন এই অর্থনীতিবিদ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর