channel 24

সর্বশেষ

  • চীনের প্রেসিডেন্টকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর চিঠি

  • করোনায় ভিন্ন আঙ্গিকে পালিত হচ্ছে পবিত্র শবে বরাত

  • জাতীয় অধ্যাপক ও ভাষা সৈনিক ড. সুফিয়া আহমেদ মারা গেছেন

  • বিশ্বজুড়ে ভারি হচ্ছে লাশের পাল্লা, প্রাণহানি ছাড়িয়েছে ৯০ হাজার

  • রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনা সংক্রমণ রোধে বিশেষ ব্যবস্থা

  • শবে বরাতে ঘরে বসে ইবাদতের পরামর্শ, কবরস্থান-মাজারে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা

  • দেশে প্রথমবারের মতো একদিনে আক্রান্ত শতাধিক

  • খাগড়াছড়িতে হামের প্রকোপ, আক্রান্ত ২ শতাধিক শিশু

  • অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর স্থগিত

  • লকডাউনের পরও রাজধানীতে মানুষকে ঘরে রাখা যাচ্ছে না

  • ব্যক্তিগত-প্রাতিষ্ঠানিক ত্রাণের তালিকায় নেই শিশু খাদ্য

  • নারায়ণগঞ্জে ডিসি, সিভিল সার্জনসহ কয়েকজন শীর্ষ কর্মকর্তা হোম কোয়ারেন্টিনে

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ৫ টাকায় সবজি বাজার

  • নাটোরের সিংড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু, পুরো গ্রাম লকডাউন

  • চট্টগ্রামে আরো তিনজন করোনারোগী শনাক্ত

করোনায় সবেচেয়ে চাপে খেটে খাওয়া মানুষ

করোনায় সবেচেয়ে চাপে খেটে খাওয়া মানুষ

কভিড নাইনটিন ভাইরাসে লণ্ডভণ্ড বৈশ্বিক অর্থনীতি। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। অর্থনীতির এমন দুর্বিপাকে সবচেয়ে বেশি চাপ পড়ছে খেটে খাওয়া মানুষগুলোর ওপর। মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তহীনতায় তারা। অর্থনীতিবিদরা মনে করছেন, আপৎকালীন এসময়ে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য তহবিল গঠনসহ নানা বিশেষ উদ্যোগ প্রয়োজন।

ধনী-গরীব, রাজা- প্রজার ফারাক জানে না নোভেল করোনাভাইরাস। তবে সব বিপত্তি- দৈব- দুর্বিপাকে বরাবর যা হয় এবারও তাই। করোনায় গরিবের স্বাস্থ্যঝুঁকির সঙ্গে যোগ হয়েছে অর্থনৈতিক নিরাপত্তাহীনতাও।

দিনের আয়ে যাদের রাতের খাওয়া চলে, তাদের কমছে কাজ আর কপালে বাড়ছে-দুশ্চিন্তার ভাঁজ। তাঁরা বলছেন, বাজারে যার লাগে ৫কেজি সে কিনছে ১বস্তা, গরীবের তো ৫দিনের খাবারও ঘরে নাই। সব বন্ধ করে দিলে আমরা কি করে খাব।

পেটের টানে হার মানছে- করোনার দুর্ভাবনা। নিয়মিত হাত ধুতে হবে, জনসমাগম এড়াতে হবে, এই বার্তাগুলো নানা মাধ্যমে তাদের পর্যন্ত পৌঁছাচ্ছে ঠিকই-কিন্তু মানা হচ্ছে কই?

তাঁরা বলছেন, টিভি-মোবাইলে বলছে, হাত ধৌ পরিষ্কার থাকো। কিন্তু পরিষ্কার আর কতক্ষন থাকবো। এখনতো আমাদের না খেয়ে মরার কায়দা হয়ে গেছে।

করোনা শুধু মানবস্বাস্থ্যেই নয়, বিশ্বব্যাপী কর্মসংস্থানের ওপর ফেলেছে ভয়াল থাবা। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এই পরিস্থিতে স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য দরকার বিশেষ তহবিল গঠন। মনোযোগ দিতে হবে স্বাস্থ্য সুরক্ষাও।

অর্থনীতিবিদ ও গবেষক ড. নাজনীন আহমেদ বলছেন, যারা মধ্যবিত্ত বা উচ্চবিত্ত তাঁদেরো সমস্যা হবে কিন্তু যেহেতু তাঁদের সঞ্চয় থাকে তাঁরা সেটা দিয়ে হয়তো এই দুর্যোগটা মোকাবেলা করতে পারবেন। কিন্তু যারা দিন আনে দিন খায় তাঁদের হাতে কিন্তু এই আয় বা সঞ্চয়টা থাকে না।

বৈশ্বিক মহামারীতে বিশ্বের বহু ধনীরা নানাভাবে সহায়তা করছেন। দেশের বিত্তবানদেরও এমন উদ্যোগে শামিল হওয়া নৈতিক দায়িত্ব বলে মনে করেন এই অর্থনীতিবিদ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর