channel 24

সর্বশেষ

  • জাতিসংঘের পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড পেলো ভূমি মন্ত্রণালয়

  • পুলিশ-চিকিৎসকসহ দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল

  • করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা যাবে ১ মিনিটেই!

  • করোনা থেকে বাঁচতে প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই উত্তম: প্রধানমন্ত্রী

  • সড়কে যানবাহনের চাপ বাড়লেও রেল ও নৌপথে যাত্রী কম

  • বরিশালে ইমামকে জুতার মালা পরিয়ে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা

  • করোনায় অনিশ্চিত এ বছরের হজযাত্রা

  • করোনায় মারা গেছেন রানা প্লাজার মালিক আব্দুল খালেক

  • যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা: ৪ পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ গঠন

  • অর্থ সহায়তায় ও চাল বিক্রিতে অনিয়ম: এ পর্যন্ত ৮৭ ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্য বরখাস্ত

  • করোনায় প্রাণ গেল আরও এক পুলিশ সদস্যের

  • এএসপির বিরুদ্ধে নির্যাতন আর যৌতুকের অভিযোগ স্ত্রীর

  • পায়ের পেশির ইনজুরিতে লিওনেল মেসি

  • আম্পানে পটুয়াখালীতে ক্ষতিগ্রস্থ ৬ হাজার মাছের ঘের

  • সব বাধা পেরিয়ে চিকিৎসক হতে চায় হতদরিদ্র পরিবারের ছেলে মাসুদ

করোনায় মারাত্মক ঝুঁকিতে পুলিশ, সংবাদকর্মীরা

করোনায় মারাত্মক ঝুঁকিতে পুলিশ, সংবাদকর্মীরা

করোনা আতঙ্কে সাধারণ মানুষকে যখন নিরাপদে থাকার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে তখন মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে, পুলিশ ও সংবাদকর্মীরা। পুলিশ বলছে, ভয়কে জয় করে সাধারণের পাশে দাঁড়াতে চান তারা। আর গণমাধ্যম সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সময় এসেছে সংবাদ প্রচারে ভিন্নপন্থা অবলম্বনের। যতটুকু সম্ভব নিজেদের নিরাপদে রেখে সংবাদ প্রচারের।

ভয় আছে, আছে আতঙ্কও। কিন্তু কর্তব্যটা যে মুখ্য, আর তাই করোনা আতঙ্কে সাধারণ মানুষকে যখন নিরাপদে থাকার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে, ঠিক তখন দেশ আর দশের প্রয়োজনে নিজেদেরকে সঁপে দিচ্ছেন আমাদের নিরাপত্তা কর্মীরা।

ইতিমধ্যেই অনেক অফিস কিংবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হলেও, সে ফুরসত নেই প্রশাসনে কর্মরতদের কাজ করছেন করোনা প্রতিরোধে, রাখছেন কড়া নজরদারিও।

প্রতিদিনই কোনো না কোনো সমস্যা নিয়ে পুলিশের দ্বারস্ত হচ্ছেন মানুষ, এমন কী আসামিদের ওপর নজরদারি রাখতে সব সময় কাজ করছে পুলিশ। যাতে বাড়ছে স্বাস্থ্য ঝুঁকি। থানার কর্মকর্তরা বলছেন, নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে কাজ করছেন তারা, বাকিটা বিধাতার হাতে।

এবার চোখ রাখা যাক রাস্তার লাল-হলুদ সিগনালে। যেখানে হাজার হাজার মানুষের ভিড়ে চিরাচরিত নিয়মে কাজ করে যাচ্ছেন ট্রাফিক পুলিশ। বলছেন ভয়কে জয় করে সাধারণের পাশে দাঁড়াতে চান তারা। তাঁরা বলছেন, মাস্ক পরে আছি, গরম লাগলে খুলে ফেলছি। তারপরেও তো আমরা রাস্তা ছেড়ে যেতে পারবো না। আমরা পুলিশ, ডাক্তার সাংবাদিক এরা যদি সাধারণ মানুষকে উদবুদ্ধ না করি তাহলে কে করবে। তাই আমাদেরই ভয়কে জয় করতে হবে।

২০২০ সালের কোভিড-১৯ যেন মহা আতঙ্কের নাম। তবে নিজ দেশে তা যেন মহামারীর রূপ না নেয় তাঁর জন্যে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে প্রশাসন ও গণমাধ্যম কর্মীরা।

একই হাল গণমাধ্যমেও, মানুষকে করোনার সবশেষ খবর জানাতে ঝুঁকির মাঝেই কাজ করছেন সংবাদকর্মীরা।

গণমাধ্যম সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সময় এসেছে সংবাদ প্রচারে ভিন্নপন্থা অবলম্বনের। যতটুকু সম্ভব নিজেদের নিরাপদে রেখে সংবাদ প্রচারের।

মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা প্রধান রোজোয়ানুল হক রাজা বলেন, যেকোন পরিস্থিতির জন্যে আমাদের তৈরি থাকতে হবে। আমরা অফিসে কম যেয়ে বাসায় বলেও অফিসের কাজ চালিয়ে নেওয়া যায় কিনা সেটাও এখন সময়ের দাবি। আমরা সেটা নিয়ে চিন্তা করছি। কোন কারণে যদি অফিসও শাটডাউন করতে হয় তাহলেও যেন টেলিভিশনের প্রচার অব্যাহত থাকে সেটা কিভাবে করা সম্ভব সেই বিষয়টা নিয়েও আমরা ভাবছি।

তবে সবকিছুর পরও প্রশাসন আর গণমাধ্যমের অভিমত নিজের ভালোটা নিজের কাছেই।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর