channel 24

সর্বশেষ

  • ক্রমেই অসহায় হয়ে উঠছে বিশ্ব

  • স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা সরঞ্জাম দিলো স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস

  • আকিজ গ্রুপের হাসপাতাল তৈরিতে জনতার ক্ষোভ

  • জনগণকে সচেতন হবার আহ্বান জানিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ

  • শৈশব থেকেই বলিষ্ঠ নেতৃত্বের অধিকারী ছিলেন বঙ্গবন্ধু

  • স্পেনে আরও ৮৩২ জনের প্রাণহানি

  • কাল থেকে সংসদ টেলিভিশনে শ্রেণী ভিত্তিক পাঠদান চলবে

  • ৭ দিন নিষেধাজ্ঞা বাড়লো বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের

  • রাঙ্গামাটিতে জীবাণুনাশক ছিটিয়েছে সেনাবাহিনী

  • ফাঁকা ঢাকা; মানুষের সচেতনতায় কাজ করছে সেনা সদস্যরা

  • শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে স্বাবলম্বী লালমনিরহাটের হাফিজুর

  • 'অর্থনীতি পুনরুদ্ধার প্যাকেজ' বিলে সই করেছেন ট্রাম্প

  • মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নাগরিকের সঙ্গে সম্মানজনক আচরণ করার নির্দেশ

  • বন্ধ হচ্ছে কারখানা; চাকরি হারানোর ঝুঁকিতে ২০ লাখ শ্রমিক

  • চট্টগ্রামে করোনা প্রতিরোধে সেনাবাহিনী ও জেলা প্রশাসনের অভিযান

প্রতিবন্ধকতাকে পেছনে ফেলে মহসীন ও শরমিনের এগিয়ে যাওয়ার গল্প

প্রতিবন্ধকতাকে পেছনে ফেলে মহসীন ও শরমিনের এগিয়ে যাওয়ার গল্প

প্রতিবন্ধকতা পেছনে ফেলে শুধু মনের ইচ্ছার জোরে যে এগিয়ে যাওয়া যায় সেটিই করে দেখালেন মহসীন ও শারমিন। জাতীয় হুইল চেয়ার ক্রিকেট দলের অধিনায়ক এখন মহসীন। হাঁটাচলা করতে না পারলেও এক যুগের বেশি সময় ধরে ব্র্যাকে কাজ করছেন শারমীন কবির। ব্র্যাক জানায়, প্রতিবন্ধী মানুষদের মূল ধারায় নিয়ে আসতে সরকারের পাশাপাশি কাজ করছেন তারা।

মনের ইচ্ছে থাকলে সব প্রতিবন্ধকতাই দূরে ঠেলে সামনে এগিয়ে যাওয়া যায় তা সেই প্রতিবন্ধকতা হোক সমাজের কিংবা শরীরের। মো. মহসীন তার জ্বলন্ত উদাহারণ। ছেলেবেলা থেকেই ক্রিকেটের প্রতি অদম্য আগ্রহ তার। আর সেই আগ্রহে বাধ সাধতে পারেনি তার ছায়াসঙ্গী হুইল চেয়ার।

দুর্নিবার স্পৃহাই তাকে দিয়েছে বিশ্বে নিজ মাতৃভূমিকে প্রতিনিধিত্ব করার সম্মান। জাতীয় হুইল চেয়ার ক্রিকেট দলের অধিনায়ক তিনি। নিজ মুখেই বললেন প্রতিবন্ধকতার সাথে জীবন সংগ্রামের যত কথা।

আছেন শারমীন কবিরও। প্রায় ১ যুগেরও বেশি সময় ধরে কাজ করছেন বিশ্বের শীর্ষ উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকে। ভালোবাসা দিবসে তাই তিনি ভালোবাসা জানাতে চান তার প্রিয় এই কর্মক্ষেত্রকে।

সমাজে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর অন্যতম এমন প্রতিবন্ধকতা নিয়ে বেঁচে থাকা মানুষগুলো সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়। দুর্ভোগ ও বঞ্চনার শিকার হয় শিক্ষা,স্বাস্থ্য, চিকিৎসা, চাকরীসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে।

প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার রক্ষায় সরকারের বিভিন্ন আইন ও নীতিমালা রয়েছে। তবে নেই যথার্থ প্রয়োগ। তাই এ মানুষগুলোর অধিকার রক্ষায় এখনো অনেক পিছিয়ে দেশ।

কর্মসংস্থানের মাধ্যমে তাদের মূল ধারায় এনে তাদের অধিকার নিশ্চিত করতে সরকারের পাশাপাশি কাজ করছে বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাক। প্রতিবন্ধকতা বান্ধব ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে নিশ্চিত করছে পিছিয়ে পরা এই মানুষগুলোর কর্মসংস্থান।

তাদের মতে, প্রতিবন্ধকতা নিয়ে বেঁচে থাকা মানুষগুলোর জীবনমান উন্নয়নে কাজ করতে পারলেই ভালোবাসা দিবস পাবে তার আসল রং, বইবে সমাজে সাম্যের বারতা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর