channel 24

সর্বশেষ

  • এশিয়া কাপ স্থগিতের শঙ্কায় আকরাম খান

  • করোনায় ফেনীর সিভিল সার্জনের মৃত্যু

  • ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট দিয়ে মাঠে গড়াচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

  • বাংলাদেশ থেকে এক সপ্তাহের জন্য ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা দিলো ইতালি

  • মৃতের হাত বেঁধে টাকা আদায়: প্রশান্তি হাসপাতালের বিরুদ্ধে ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট

  • প্যাপিনোমেলনের পুষ্টিগুণ

  • মরিচ গাছের পাতা কুকড়ানো বা লিফ কার্ল রোগ

  • আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত ঘেরে চিংড়ির রোগ নির্ণয় ভ্রাম্যমাণ মৎস্য ক্লিনিক

  • খুলনায় রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের দুই শ্রমিক নেতার রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর

  • ৬ হাজারের বেশি ভুয়া করোনা রিপোর্ট দিয়েছে রিজেন্ট হাসপাতাল

  • মেঘনা নদীতে প্রবল স্রোতে চাঁদপুর শহররক্ষা বাঁধে ফাটল

  • অনিয়মের আখড়া রিজেন্ট হাসপাতাল সিলগালা

  • কর্মহীনদের পাশে দাঁড়িয়েছে ঝিনাইদহের 'করোনা স্কোয়াড'

  • রেডজোন থেকে ইয়েলো জোনে চট্টগ্রামের উত্তর কাট্টলী

  • রাতে মাঠে নামছে চেলসি ও আর্সেনাল, মুখোমুখি এসি মিলান-য়্যুভেন্তাস

হাজারীবাগ থেকে ট্যানারি সরালেও মুক্তি মেলেনি দূষণের হাত থেকে

হাজারীবাগ থেকে ট্যানারি সরালেও মুক্তি মেলেনি দূষণের হাত থেকে

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের হাজারীবাগ এলাকা। প্রায় দুই বছর আগে, এখান থেকে সাভারের হেমায়েতপুরে ট্যানারি সরিয়ে নিলেও, এখনও নিস্তার মেলেনি দূষণ থেকে। পার্শ্ববর্তী কালুনগর এলাকার বাসিন্দারাও ভুগছেন অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ আর মাদক সমস্যায়। আর এই সিটির ধানমন্ডি আবাসিক এলাকার মূল সমস্যা যানজট ও বর্ষায় জলাবদ্ধতা।

অভিজাত এলাকা ধানমন্ডি ঘেষা হাজারীবাগে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি খুব একটা। এ যেন অনেকটাই প্রদীপের নীচে অন্ধকার।

ঢাকা দক্ষিণ সিটির ১৪ নম্বর ওয়ার্ড এক সময় দূষিত হয়ে উঠেছিলো ট্যানারির বিষাক্ত বর্জ্যে। প্রায় দুবছর আগে, সাভারের হেমায়েতপুরে ট্যানারি সরিয়ে নিলেও, এখনও নিস্তার মেলেনি সে দূষণ থেকে। ভোটাররা বলছেন, সিটি নিবার্চনে তাদের পক্ষেই পড়বে রায় যারা হাজারীবাগকে দূষণমুক্ত করে ঢেলে সাজাবেন।

তাঁরা বলেন, সমস্যার তো শেষ নেই। আগে যে পরিমাণ ময়লা ছিল এখন তাঁর থেকে কম নাই, প্রচুর ময়লা। ধানমন্ডির দিকে যেমন পয়-পরিষ্কার থাকে এখানে তেমন নেই। ময়লা পরিষ্কার করা হয় ২/৩দিন পর পর, যার ফলে দুর্গন্ধ আর মশা তো আছেই।

পাশের এলাকা ২২ নম্বর ওয়ার্ডের কালুনগর। এখানকার বাসিন্দাদের গলার কাঁটা একটি খাল। মাদকের বিস্তার নিয়েও দুঃশ্চিন্তায় তারা।

এলাকাবাসী বলছেন, খালের জন্য আমাদের অনেক কষ্ট হচ্ছে, ময়লা আর দুর্গন্ধ সাথে রয়েছে মশা। এই খালকে বলেছিল ঝিল বানাবে, কিন্তু সেটাই এখন ডাস্টবিনে পরিণত। এছাড়া বাচ্চাদের খেলার মাঠ নেই, যার কারণে বিভিন্ন ধরণের নেশায় তাঁরা জড়িয়ে পরছে।

ধানমন্ডির আবাসিক এলাকা পড়েছে দক্ষিণের ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে। যা এখন শুধু নামেই আবাসিক, এখানকার মূল সমস্যা, যানজট আর বর্ষার দিনে জলাবদ্ধতা।

ভোটাররা বলছেন, একটু বৃষ্টি হলেই এখন রাস্তায় পানি জমে সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। তাই ড্রেন সিস্টেমগুলো নিয়ে কাজ করা প্রয়োজন।

শুধু নির্বাচনের সময় নয়, সুখে-দুঃখে সবসময় যাদের পাশে পাবেন তাদেরই মেয়র এবং কাউন্সিলর পদে ভোট দেবেন এই তিন এলাকার ভোটাররা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর