channel 24

সর্বশেষ

  • বান্দরবানে সন্ত্রাসীদের গুলিতে আ.লীগ নেতা নিহত

  • শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের সহযোগী গ্রেপ্তার

  • বিসিএলের ফাইনালে বড় সংগ্রহের পথে সাউথ জোন

  • ফরিদপুরে মোতালেব হোসেন বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

  • ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনে নাঈম হাসানের ৪ উইকেট

  • স্কাউটের জনক লর্ড ব্যাডেন পাওয়েলের ১৬৩তম জন্মবার্ষিকী পালিত

  • সিলেটে জীববিজ্ঞান উৎসব অনুষ্ঠিত

  • পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় লঞ্চ ডুবির পাঁচ বছর আজ

  • বসুন্ধরা বিটুমিন প্লান্টের যাত্রা শুরু

  • 'তথ্য প্রবাহে অযাচিত হস্তক্ষেপে গুজবের মাধ্যমে সুবিধা পায় উগ্রবাদীরা'

  • চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল আড়াইশো শয্যার দাবিতে মানববন্ধন

  • সিলেটে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২

  • কচুরিপানা খাবারের উপযোগী কি না পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

  • করোনাভাইরাস: দক্ষিণ কোরিয়া জুড়ে আতঙ্ক, শঙ্কায় প্রবাসী বাংলাদেশিরা

  • বঙ্গবন্ধুর নির্দেশেই ৫২'র ২১ ফেব্রুয়ারি ছাত্র ধর্মঘট ডাকা হয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী

বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্যকোর্স যেন টাকার খনি

বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্যকোর্স যেন টাকার খনি

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সান্ধ্যকালীন কোর্স যেন কাড়ি কাড়ি টাকার খনি। বছরে দেশের ২০টি প্রতিষ্ঠানের আয়, দুইশো কোটি টাকারও বেশি। এরমধ্যে শুধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরই আয় ৬৬ কোটি টাকা। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, টাকার লোভে নিয়মিত কার্যক্রমের চেয়ে সান্ধ্যকালীন কোর্সের প্রতি বেশি আগ্রহ শিক্ষকদের। যদিও সান্ধ্য কোর্স চালু থাকা বিভাগগুলোর দাবি অর্থ নয় জ্ঞান চর্চাই মুখ্য।

সান্ধ্যকালীন কোর্স মানেই বাড়তি লাভ। গরম হয় শিক্ষকদের পকেট। বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন নিয়মিত অনাবাসিক শিক্ষার্থীর লেখাপড়ার খরচ বছরে ৫ হাজার টাকার মতো। এর মধ্যে থাকে পরীক্ষা ফি, বেতন, পাঠাগার, পরিবহন ফিসহ অন্যান্য খরচ।

কিন্তু সান্ধ্যকালীন কোর্সে যা ৭০ হাজার থেকে আড়াই লাখ টাকা পর্যন্ত। বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্য কোর্সের শিক্ষার্থীর সংখ্যা সাড়ে ৪ হাজার। গড়ে দেড় লাখ টাকা খরচ ধরলে বছরে ৬৭ কোটি টাকার বেশি পকেটে ভরছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। সান্ধ্যকালীন কোর্স চালু আছে দেশের অন্তত ২০টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। কোর্স ফির কমবেশির কারণে ওই বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আয় অন্তত দুইশো কোটি।

তবে সান্ধ্য কোর্স চালু থাকা বিভাগগুলোর দাবি, বাণিজ্য নয় জ্ঞান চর্চাই তাদের কাছে মূখ্য। দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য জানিয়েছেন সান্ধ্যকালীন কোর্সের নানা দিক নিয়ে সবপক্ষের সাথে আলোচনা চলছে।  

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আক্তারুজ্জামান বলেন, কোনটি প্রয়োজন কিংবা কোনটি প্রয়োজন না, বিশ্ববিদ্যালয়ের সামর্থ্য সব কিছু বিবেচনায় নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহন করতে হবে।

এদিকে সান্ধ্যকালীন কোর্স সম্পর্কে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড. আনন্দ কুমার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক বোর্ড এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর