channel 24

সর্বশেষ

  • নতুন মেয়াদে সভাপতি হওয়ার পর বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা

  • বিজয় রুখতে বিএনপি প্রার্থীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে আ.লীগ: ফখরুল

  • হবিগঞ্জে গাছের সাথে বাসের ধাক্কায় ৩ জনের প্রাণহানি

  • সৌদিতে নবেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী চিহ্নিত

  • আইসিজের আদেশ: মেনে নেওয়ার আহবান গাম্বিয়ার; মায়নমারের প্রত্যাখ্যান

  • পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের শুভ সূচনা

নিরাপদ হলেও বেশিরভাগ মানুষের পছন্দ নয় প্রক্রিয়াজাত মুরগি

নিরাপদ হলেও বেশিরভাগ মানুষের পছন্দ নয় প্রক্রিয়াজাত মুরগি

দেশে শতভাগ জৈবনিরাপত্তা নিশ্চিত করে মুরগি প্রক্রিয়াজাত করা হলেও আগ্রহ নেই বেশিরভাগ মানুষের। এতে মাত্র ৫ শতাংশ বাজার দখল করতে পেরেছে প্রক্রিয়াজাত মুরগির মাংস। প্রাণি বিজ্ঞানীরা বলছেন, জনসচেতনতার পাশাপাশি মানুষের আগ্রহ বাড়ানোর দায়িত্ব উদ্যোক্তাদেরই।

এভাবেই প্রক্রিয়াজাত করা হচ্ছে মুরগী। প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের হিসাবে, দেশে বর্তমানে মুরগি প্রসেসিং প্লান্ট রয়েছে মাত্র আটটি। যেখানে মুরগিগুলোকে জবাই করে স্বংক্রিয় পদ্ধতিতে করা হয় রান্নার উপযোগী।

উদ্যোক্তাদের দাবি, ধর্মীয়রীতি মেনে নাড়িভুঁড়িসহ অপ্রয়োজনীয় অংশ বাদ দিয়ে, মোড়কজাত করার পর চেক করা হয়, স্বয়ক্রিয় মেশিনে। যাতে কোনো ক্ষতিকর ভারী ধাতু না থাকে। তারপর চলে যায় হিমঘরে। যেখানে নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় রেখে ছাড়া হয় বাজারে।

প্রাণিসম্পদ বিজ্ঞানীরা বলছেন, মানব ও প্রাণির রোগ সংক্রমণে মারাত্মকভাবে দায়ী, খোলাবাজারে জীবন্ত মুরগীর প্রক্রিয়াকরণ। অথচ, বহুগুণে নিরাপদ হলেও সচেতনার অভাবে ৯৫ ভাগ মানুষের পছন্দের তালিকায় নেই প্রক্রিয়াজাত মুরগি।

প্রাণীস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ড. কে বি এম সাইফুল ইসলাম বলেন, মার্কেটে সকালে যে মুরগীটা প্রসেস করা হয়েছে বিকালে সেই পানিতে আবার আরেকটা বার্ডকে প্রসেস করা হচ্ছে। সেখান থেকে বিভিন্ন রকমের রোগ-বালাই  মানুষের মধ্যে সংক্রমিত হতে পারে। জনস্বাস্থ্য বান্ধব হালাল ড্রেসিং ইন্ডাস্ট্রি আমাদের দেশে খুব বেশি প্রয়োজন।

বিজ্ঞানীরা আরও বলেছেন, নানা কারণে প্রসেসড মুরগীতে আস্থা পায় না ক্রেতারা। তাদের আস্থা ফেরানোর পদক্ষেপ নিতে হবে উদ্যোক্তাদেরই।

আর খাতটিকে টেকসই করতে, সরকারের নীতি সহায়তা চান উদ্যোক্তরা।

বাংলাদেশ পোল্ট্রিশিল্প সেন্ট্রাল কাউন্সিলের সভাপতি মশিউর রহমান বলেন, আমাদের বছরে একটা সার্টিফিকেট দিয়ে দিলেন ওনারা যে হালাল করে চিকেন দেওয়া হয়। প্রতি মাসে বা কোয়াটারলি ভিজিট করা উচিত প্রতিটি প্রসেস প্লান্টে যে প্রত্যেকে হাইজিন মেইনটেন করে খাবার তৈরি করছে কিনা।

বর্তমানে দেশে মুরগির মাংসের উৎপাদন প্রায় ১৫ লাখ টন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর