channel 24

সর্বশেষ

  • ডোপিংয়ে পৃষ্ঠপোষকতা: ৪ বছর আন্তর্জাতিক ক্রীড়ায় নিষিদ্ধ রাশিয়া...

  • অংশ নিতে পারবে না টোকিও অলিম্পিক ও কাতার বিশ্বকাপে

  • এসএ গেমস ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে স্বর্ণ বাংলাদেশের

  • মানহীন সান্ধ্যকালীন কোর্সের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে...

  • শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে রাষ্ট্রপতি

  • অর্থনৈতিক অঞ্চলে নারী উদ্যোক্তারা বিশেষ সুবিধা পাবেন: প্রধানমন্ত্রী

  • নেতৃত্বের দুর্বলতায় বিএনপি অস্তিত্ব সংকটে: ওবায়দুল কাদের

  • রাজনীতিতে আওয়ামী লীগের জায়গা নেই: মির্জা ফখরুল

  • ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে প্রবেশের সময়...

  • এক ভারতীয় নাগরিক ও ১২ বাংলাদেশি আটক

  • এসএ গেমস: ক্রিকেট: ফাইনালে শ্রীলঙ্কার দেয়া ১২৩ রানের টার্গেটে...

  • ব্যাট করছে বাংলাদেশ; স্কোর: শ্রীলঙ্কা ১২২ (হাসান মাহমুদ ৩/২০)

  • এসএ গেমস আর্চারিতে দশ স্বর্ণের সবকটি জিতলো বাংলাদেশ

  • একুশে পদকপ্রাপ্ত পদার্থবিজ্ঞানী অধ্যাপক অজয় রায় মারা গেছেন...

  • সর্বস্তরের শ্রদ্ধা জানাতে কাল সকালে নেয়া হবে শহীদ মিনারে...

  • মরদেহ দান করা হয়েছে বারডেম হাসপাতালকে

নিজ অর্থায়নে বঙ্গবন্ধুর নামে সাহিত্যকেন্দ্র গড়ে তুলেছেন গাইবান্ধার রাজা

নিজ অর্থায়নে বঙ্গবন্ধুর নামে সাহিত্যকেন্দ্র গড়ে তুলেছেন গাইবান্ধার রাজা

নিরবে জ্ঞানের আলো ছড়াচ্ছেন গাইবান্ধার পলাশবাড়ীর বজলার রহমান। নিজের অর্থায়নে বঙ্গবন্ধুর নামে গড়ে তুলেছেন মনোমুগ্ধকর সাহিত্যকেন্দ্র। লাইব্রেরিতে পাঠকদের জন্য রেখেছেন অনেক দুর্লভ বই। তাছাড়া নিজের লেখা ৫৩টি বইও প্রকাশ করেছেন। পেয়েছেন সরকারি-বেসরকারি সম্মাননা।

বই জ্ঞানের আধার, চির যৌবনা, চির অমলিন আনন্দের উৎস। নিজের অর্থায়নে সেই জ্ঞানের আলো ছড়িয়ে দিতে কাজ করছেন গাইবান্ধার পলাশবাড়ী সদরের বজলার রহমান রাজা।

চাকুরি করেছেন কৃষি বিভাগে। পরে নিজ অর্থায়নে মানুষের জন্য নিজ বাড়িতে ২০১৫ সালে গড়ে তোলেন লাইব্রেরি।

বজলার রহমানের এই সাহিত্য কেন্দ্রে রয়েছে দেশি, বিদেশি বিভিন্ন লেখকের হাজারো বই। ছোটদের জন্যও রয়েছে ছড়া, গল্প আর নানা উপন্যাস। বাদ পড়েনি ইতিহাস আর গবেষনার বইও।

বজলার রহমান রাজা বলেন, এটা আমি আমার নিজস্ব চিন্তা-চেতনা, আমার নিজস্ব অর্থায়নে করবো। এর জন্য আমি কারো সাহায্য সহযোগিতা নেব না।

বই পড়তে আশা দূরের পাঠকদের জন্য করেছেন বিনামূল্যে আবাসন ব্যবস্থাও। পাঠকরা জানান, আমরা দূর থেকে আসি এক্ষেত্রে আমাদের নিরাপত্তার একটা ব্যাপার থাকে, এখানেই আমাদের জন্য থাকার ব্যবস্থা করা হয়। এছাড়াও তারা জানান, বই পড়তে ভাল লাগে তাছাড়া এখানে অনেক বই পাওয়া যায়। তাই প্রায় সময় এখানে এসে বই পড়ে থাকি।

দেশের বিভিন্ন জায়গায় এমন সাহিত্য কেন্দ্র গড়ে তোলার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন বজলার রহমান রাজা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর