channel 24

সর্বশেষ

  • ফের উত্তপ্ত নির্বাচন কমিশন, কর্তৃত্ব নিয়ে সিইসি-কমিশনারদের বাকবিতণ্ডা

  • পাকিস্তানে ফিরলো টেস্ট ক্রিকেট

  • চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: রাতে মুখোমুখি বায়ার্ন মিউনিখ-টটেনহ্যাম

  • আইসিজেতে মামলার এখতিয়ার নেই গাম্বিয়ার: মিয়ানমারের আইনজীবী

  • রাজ্যসভায়ও নাগরিকত্ব বিল পাশ; অগ্নিগর্ভ আসাম-ত্রিপুরায় সেনা মোতায়েন

  • বিজয়ীর বেশে দেশে ফিরলো দশ স্বর্ণজয়ী আর্চারি দল

  • খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য রিপোর্ট সুপ্রিম কোর্টে জমা; জামিন শুনানি কাল

  • গরু ছাগল চিনলেই চালক, দায়িত্বশীলদের কথা এমন হতে পারে না: হাইকোর্ট

  • আখাউড়া সীমান্তে নারী ও শিশুসহ ৯ রোহিঙ্গা আটক

  • বনানীতে মাটি চাপা অবস্থায় চীনা নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার

  • চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

  • কেরানীগঞ্জে অগ্নিদগ্ধ ৩৩ জন ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি, কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি ঘিরে আদালত প্রাঙ্গণে নিরাপত্তা জোরদার

  • ইলিয়াস কাঞ্চনের বিরুদ্ধে শ্রমিকদের আন্দোলন নোংরামি: হাইকোর্ট

  • শারীরিক প্রতিবন্ধকতা দমাতে পারেনি দুই ভাই-বোনকে

হলি আর্টিজান মামলার রায় যেকোনো দিন

হলি আর্টিজান মামলার রায় যেকোনো দিন

হলি আর্টিজান মামলায় রায় ঘোষণা করা হবে যেকোনো দিন। জানালেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী। দাবি করেন, যুক্তিতর্কে আসামিদের অপরাধ প্রমাণ করতে পেরেছেন তারা। তবে, বিশ্লেষকরা বলছেন, এ মামলার চার্জশিটই দুর্বল। তাই আইনের ফাঁক গলে বেরিয়ে যেতে পারে আসল অপরাধীরা।

২০১৬ সালের পয়লা জুলাই। গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা। যাতে নিহত হন দেশি-বিদেশি ২১ জন। পরদিন ভোরে কমান্ডো অভিযানে নিহত হয় পাঁচ হামলাকারী।

এ ঘটনায় দায়ের করা মামলা তদন্তের ভার পড়ে, কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের ওপর। সাঁড়াশি অভিযানে নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। হোলি আর্টিজান হামলার প্রধান পরিকল্পনাকারী তামীম চৌধুরীসহ, বিভিন্ন সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে নিহত হয় আটজন। এছাড়া পুলিশ ও র‍্যাবের অভিযানে বিভিন্ন সময় ধরা পড়ে বেশ কয়েকজন।

ঘটনার দুই বছর পর আদালতে মামলার চার্জশিট দেয় কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। যেখানে আটজনকে আসামি করা হয়। সাক্ষী ২১১ জন; যাদের প্রায় সবার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। আর এই ঘটনায় আদালতে উপস্থাপন করা হয় ৭৫টি আলামত।

আসামিপক্ষের আইনজীবী বলছেন, সাক্ষীদের কেউই আসামিদের ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট তথ্য দিতে পারেননি। তাছাড়া এ মামলায় যাদের আসামি করা হয়েছে, চার্জশিটেও তাদের জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেনি রাষ্ট্রপক্ষ।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলছেন, মামলাটি সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনালে আছে। যেকোনো দিন রায়ের তারিখ জানানো হবে।

গুরুত্বপূর্ণ এ মামলার চার্জশিট দুর্বল বলে মনে করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধ বিভাগের অধ্যাপক জিয়া রহমান। তিনি বলছেন, এ ধরনের দুর্বল চার্জশিটের কারণে আইনের ফাঁক দিয়ে বেরিয়ে যেতে পারে প্রকৃত অপরাধীরা।

জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আরও আধুনিক হওয়ার পরামর্শ এই বিশেষজ্ঞের।

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর