channel 24

সর্বশেষ

  • জাতীয় বীমা দিবস উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী: শেখ কবির

  • মুজিব বর্ষে বাংলাদেশ গেমসের মশাল প্রজ্জ্বলন গোপালগঞ্জে

  • প্রথমবার ওয়ানডে দলে জায়গা পেয়ে রোমাঞ্চিত আফিফ-নাঈম

  • সহিংসতা কমলেও দিল্লিতে আতঙ্কে ঘরবাড়ি ছাড়ছেন মুসলমানরা

  • শনিবার দেশব্যাপী জেলা ও মহানগরে বিএনপির বিক্ষোভ

  • ফতুল্লায় আটটি অবৈধ ভবন ভেঙে দিল ভ্রাম্যমাণ আদালত

  • রাবিতে বিভাগের নাম ফলিত পরিসংখ্যান করার দাবিতে শিক্ষার্থীদের অনশন

  • দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলমান আছে: আইজিপি

  • গাজীপুরে আনসার-ভিডিপি একাডেমিতে মৌলিক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

  • যশোর-৬ ও বগুড়া-১ আসন উপনির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা

  • করোনা আতঙ্কে ওমরাহ পালনে সৌদির নিষেধাজ্ঞা, টিকিট করে বিপাকে অনেকে

  • ৭ মার্চ আর্মি স্টেডিয়ামে জয় বাংলা কনসার্ট

  • উৎসবমুখর পরিবেশে চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে মনোনয়ন জমা

  • চলচ্চিত্রের প্রেমে পড়েছেন শার্লিন জামান

  • লিঁওর মাঠে অঘটনের শিকার জুভেন্টাস

তিন বছরের মধ্যেই দৃষ্টিনন্দন হবে রাজধানীর নদীপাড়

তিন বছরের মধ্যেই দৃষ্টিনন্দন হবে রাজধানীর নদীপাড়

১১০ কিলোমিটার নৌপথের পাড় ঘেঁষে ৫২ কিলোমিটারজুড়ে প্রশস্ত হাঁটার জায়গা। গোধূলীবেলায় হিমেল হাওয়া, যান্ত্রিকতাকে ঠেলে রেখে দুদণ্ড নিশ্বাস নেয়ার সুযোগ। এই মুহূর্তে রাজধানীবাসীর কাছে এটি কল্পনা হলেও, বছর তিনেকের মধ্যেই বাস্তবে ধরা দেবে সেই স্বপ্ন। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে বিআইডব্লিউটিএর যে অভিযান, তার মূল লক্ষ্যই হলো নগরবাসীকে নদী ফিরিয়ে দেয়া।

আহসান মঞ্জিলকে কেন্দ্র করে তৈরি অ্যানিমেশনে বুড়িগঙ্গার ছবি দেখে (ভিডিওতে দেখা যাবে) চমকে না ওঠার কোনো কারণই নেই হয়তো। কেননা হাল বাস্তবতায় নদীর পাড়ের এমন দৃশ্য কল্পনাও করতে পারেন না ঢাকাবাসী।

এ বছরের জানুয়ারি থেকে নদীর পাড় দখলমুক্ত করতে টানা উচ্ছেদ চালাচ্ছে বিআইডব্লিউটিএ। উদ্দেশ্য নদীতে ফের প্রাণ সঞ্চার করে, নগরবাসীকে ফিরিয়ে দেয়া।

কেমন হবে সেই দৃশ্য? তার আগে ঢাকাকে ঘিরে থাকা নদীগুলোতে চোখ বোলানো যাক। পৃথিবীতে ঢাকাই বোধহয় প্রকৃতির আশীর্বাদপুষ্ট একমাত্র মহানগর, যাকে ঘিরে আছে চারটি নদী। বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, বালু ও শীতলক্ষ্যা। যার দৈর্ঘ্য কমবেশি ২২০ কিলোমিটার। এরই ৫২ কিলোমিটার হাঁটার রাস্তা বা ওয়াকওয়ে তৈরি করার পরিকল্পনা নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের।

ঢাকা নদী বন্দর সদরঘাট থেকে বাবুবাজারের থাকবে কংক্রিটের জেটি, সিঁড়ি, প্রশস্ত হাঁটার রাস্তা, মুক্তমঞ্চ, পাবলিক টয়লেট। হবে দুটি ইকোপার্কও।

চূড়ান্ত প্রকল্পে যুক্ত করতে কামরাঙ্গির চর এলাকার জন্যও প্রস্তাব করা হয়েছে আলাদা নকশা। চার নদীতে ১০ হাজার ৮২০টি স্থায়ী পিলার দিয়ে ঘিরে রাখা হবে সীমানা।

অভিযান পরিচালনাকারী কর্মকর্তা বলছেন, এই প্রকল্প বাস্তবায়নে কোনো ছাড় না দিতে নির্দেশনা আছে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ের।

হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্প শেষ হওয়ার কথা আছে ২০২২ সালের জুনে। ঢাকাবাসীর কাছে নদী তীরের এমন চিত্র স্বপ্নই বটে।

ভিডিওতে দেখুন বিস্তারিত-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর