channel 24

সর্বশেষ

  • দিল্লিতে সহিংসতার প্রতিবাদ জানিয়েছে ছাত্র অধিকার পরিষদ

  • অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের সময় র‍্যাবের হাতে লাঞ্ছিত ম্যাজিস্ট্রেট

  • ব্যাংক খালি হয়ে গেছে: হাইকোর্ট

  • ডাকঘর সঞ্চয়ে সুদহার আগের মতোই থাকছে: অর্থমন্ত্রী

  • দুদককে নিয়ে টিআইবির প্রতিবেদন সত্য নয়: দুদক সচিব

  • একে একে বেরিয়ে আসছে পাপিয়ার নানা পাপ

  • উন্নত চিকিৎসায় সম্মত হননি খালেদা জিয়া

  • দিল্লিতে গুজরাটের ছায়া; শিশু ও গোয়েন্দা কর্মকর্তাসহ প্রাণ গেছে ২৩ জনের

  • কোনো ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ হলে গ্রাহকরা সব টাকা পাবেন

  • ঢাকা মেডিকেলে পরজীবী শিশু আলাদা করে সফল অস্ত্রোপচার

  • ভর্তি পরীক্ষা হবে ৪টি গুচ্ছ পদ্ধতিতে, থাকছে না ঢাকাসহ ৫টি বিশ্ববিদ্যালয়

  • কোনো নারী বিয়ে পড়াতে পারবেন না: হাইকোর্ট

  • কাপ্তাই হ্রদের পানি কমছে ধীরগতিতে, ফসল নিয়ে দু:চিন্তায় চাষীরা

  • দেশের পুঁজিবাজারে বড় পতন

  • অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কঠিন পরীক্ষায় নামছে বাংলাদেশ নারী দল

বুড়িগঙ্গার পাড়ে করা হবে ৫২ কি.মি. হাঁটার জায়গা, সবুজ বেষ্টনি

বুড়িগঙ্গার পাড়ে করা হবে ৫২ কি.মি. হাঁটার জায়গা, সবুজ বেষ্টনি

প্রায় তিন গুণ ব্যয় বৃদ্ধি পেয়ে সাড়ে ৮শ কোটির টাকার প্রকল্প হচ্ছে ২হাজার ৩শ কোটি টাকা। কিন্তু তারপরও কি আগের রূপে ফিরবে ঢাকার চারপাশের নদী? খোদ প্রকল্প পরিচালকের আক্ষেপ, এই কাজ শেষ হলেও মিলবে না নিস্তার। কারণ নদীতীরের পরিবেশ দৃষ্টিনন্দন হলেও দুর্গন্ধ আর ময়লা পানির দুর্ভোগ পোহাতেই হবে নগরবাসীকে। কেননা প্রকল্পে নেই পানি পরিশোধন কিংবা নদীতে ময়লা পানি আসা বন্ধের কোনো বিকল্প ছক।

বছরের অন্য যেকোন সময়ের চেয়ে বর্ষার সময়টায় ভিন্ন রূপ নেয় নদ-নদী। যদিও নদীর টলমলে পানির কয়েক ফুট নিচেই রয়েছে ময়লার আস্তরণ। তা আরো স্পষ্ট হয় নদীর বুক চিড়ে ছুটে চলা এক্সাভেটরের দাঁতের এক-একটি আচড়ে।

নদী দখলের বিরুদ্ধে চলমান উচ্ছেদ অভিযান পরবর্তী প্রকল্প নিয়ে যে চিত্রকল্প দেয়া হয়েছে সবার সামনে  তা দেখে নিশ্চয়ই মহিত হয়েছেন সবাই। কেননা ওই প্রকল্প আছে নদী পাড়ে ৫২ কিলোমিটার হাঁটার জায়গা একাধিক জেটি, সবুজ বেষ্টনিসহ অনেক কিছু।

২০২২ সাল নাগাদ ছবির মতো হয়তো সুন্দর হবে নদীর চারপাশ, তবে বছরে বর্ষার দু মাস বাদে তখনও নগরবাসীকে নদীর পারে দাড়াতে হবে নাকে হাত দিয়ে। কেননা এই প্রকল্প নেই নদী দূষণ রোধ কিংবা টলমলে এই পানির প্রভাব রাখার কোন পরিকল্পনা। এনিয়ে আক্ষেপ আছে খোদ ওই প্রকল্প পরিচালকের।

বিষয়টি নজরে আনলে নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী জানান, ঢাকাসহ অন্য আরো কয়েকটি নদীর স্বচ্ছ পানি প্রবাহের জন্য গঠন করা হয়েছে উচ্ছ পর্যায়ের টাস্ক ফোর্স। এবিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে ওই কমিটি।

কয়েক বছর আগে করা, বিআইডব্লিউটিএর একটি জরিপ বলছে শুধুমাত্র বুড়িগঙ্গাতেই ৪২টি সুয়ারেজ লাইন দিয়ে পড়ছে ঢাকা সিটির বর্জ্য। আর চারপাশের নদীতে পয়ো ও শিল্প বর্জ্যের লাইন যে কতো হাজার সে হিসাব নেই কারো কাছে।

ভিডিওতে দেখুন বিস্তারিত-

mdfaruk commented 11 days ago
যমুনা নদী থেকে ইছামতী কালিগঙ্গা বংশাই ধলেশ্বরী তুরাগ হয়ে একটি পানি র প্রবাহ করা গেলে বুড়িগঙ্গা র পানি সবসময় সচ্ছ থাকবে

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর