channel 24

সর্বশেষ

  • ডুবে যাওয়া শিশুর মরদেহ ভে‌সে উঠ‌লো কুমার নদীতে

  • সমন্বয় না থাকলে ডেঙ্গু থেকে বাঁচা দুঃসাধ্য: সুলতানা কামাল

  • বান্দরবানে পর্যটকবাহী গাড়িতে গু'লি, আহত ২

  • ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকবে যেসব এক্সারসাইজে

  • মায়ের দেনা শোধে 'বক্সিং রিংয়ে' ৯ বছরের শিশু টাটা

  • ১৬৫০ কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগ: আপিল শুনানি ২০ সেপ্টেম্বর

  • কক্সবাজার সৈকতে দুই কলেজ শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃ'ত্যু

  • দিনাজপুরে ট্রাকের ধাক্কায় কাস্টমস কর্মকর্তা নিহত

  • পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পানের উপকারিতা

  • তৃণমূলে যোগ দিলেন বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়

  • পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

  • কুড়িগ্রামে করোনাকালে বেড়েছে বাল্যবিবাহ

  • ইভ্যালিতে ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকের টাকার সন্ধানে পুলিশ

  • এভিয়েন ইনফ্লুয়েঞ্জা নিয়ন্ত্রণে শিগগিরই ভ্যাকসিন নীতিমালা: মন্ত্রী

  • তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে ঘরোয়া উপায়

রক্তনালীর ব্লকে সঠিক চিকিৎসার অভাবে অঙ্গহানি হচ্ছে অনেকের

রক্তনালীর ব্লকে সঠিক চিকিৎসার অভাবে অঙ্গহানি হচ্ছে অনেকের

মানুষের শিরা, উপশিরায় রক্ত প্রবাহে কোনো বিপত্তি ঘটলে সহজ ভাষায় তাকে বলে রক্তনালীর ব্লক। এর সঠিক চিকিৎসার অভাবে প্রতিবছর সারা দেশে অঙ্গহানি হয়, ১০ থেকে ১২ লাখ লোকের। এতো মানুষের এমন পঙ্গুত্বের পরও দেশে মাত্র একটি সরকারি হাসপাতালে ব্যবস্থা আছে, এই রোগের জরুরি চিকিৎসার। আর সারাদেশে ভাসকুলার সার্জনের সংখ্যা সব মিলিয়ে মাত্র ২৫ থেকে ৩০ জন।

কোনো দুর্ঘটনায় কাটা পড়েনি ৬০ বছর বয়সী লিকু চোকদারের বাম পা-টি। জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা নিতে এসেছেন মাদারীপুর থেকে। যে কারণে ৬ বছর আগে তার বাম-পা কাটা পড়েছিল, ঠিক একই রোগে আক্রান্ত হয়ে এবার ডান পায়ের চিকিৎসা নিতে এখানে তিনি।

আরও: রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে মিয়ানমারকে পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জোলির

পরীক্ষার চাপ কমাতে সাহায্য করে যে খাবারগুলো

পোপ ফ্রান্সিস ও কায়রোর গ্রান্ড ইমামের 'চুম্বনের' ছবি ভাইরাল

লিকু চোকদারের মতো রক্তনালীর এমন সমস্যায় আক্রান্ত অনেক রোগীই এখন ভাসকুলার সার্জারি বিভাগে। তাদের সবার অভিজ্ঞতা প্রায় একই রকম দীর্ঘ দিন নানা চিকিৎসকের কাছে ঘুরে এখানে এসেছেন তারা। যারা একটু আগে-ভাগে আসতে পেরেছেন, রিং বা বেলুনের মাধ্যমে তাদের রক্তনালীর প্রতিবন্ধকতা দূর করা হচ্ছে। কিন্তু যাদের হাত-পায়ে পচন ধরেছে, তাদের তা কেটে ফেলা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই।

দেশে এই রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কতো? এর সুনির্দিষ্ট কোন হিসাব না থাকলেও স্বাস্থ্য বিষয়ক আন্তর্জাতিক বিভিন্ন জার্নাল বলছে, ৪০ এর বেশি বয়সী মানুষের শতকরা ১০ জন এই রোগে আক্রান্ত।

কিন্তু, দেশে রোগটির চিকিৎসা করতে জানেন মাত্র ২৫-৩০ জন। সরকারি হাসপাতালগুলো মধ্যে এই রোগের জন্য, ভাসকুলার সার্জারি বিভাগ রয়েছে শুধু জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেলে।

চিকিৎসকরা বলছেন, সচেতনতার পাশাপাশি সরকারি হাসপাতালগুলোতে জরুরি ভিত্তিতে ভাসকুলার সার্জারি বিভাগ চালু করা দরকার।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর