channel 24

সর্বশেষ

  • দরকার ছাড়া বেরুলেই ফেরত পাঠানো হচ্ছে ঘরে

  • সপ্তাহ না পেরুতেই ধৈর্যহারা নগরবাসী; দরকার ছাড়াও বেরুচ্ছেন বাইরে

  • পিপিই পরে সাঈদ খোকনের ত্রাণ বিতরণ

  • মুখে মাস্ক পরে ফ্লিমি স্টাইলে ফার্মেসিতে ডাকাতি

  • স্পেনে একদিনে প্রাণহানি ৯৫০, মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়েছে

  • বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ৪৮ হাজার ছাড়িয়েছে

  • গ্রামীণ জনপদে দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল কতটা সম্ভব?

  • চট্টগ্রামে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে কমেছে রোগী, বন্ধ প্রাইভেট চেম্বারও

  • গত ২৪ ঘন্টায় ১৪১ জনের নমুনা পরীক্ষা: আইইসিডিআর

  • চট্টগ্রামে বেড়েছে ব্যক্তিগত যানচলাচল, নির্দেশনা মানতে চাইছেন না মানুষ

  • সংকুচিত ব্যাংকিং সেবার চাহিদা পূরণ করছে মোবাইল ব্যাংকিং

  • চট্টগ্রামে করোনার ধাক্কা দীর্ঘায়িত হলে মুখ থুবড়ে পড়বে রেস্টুরেন্ট ব্যবসা

  • মেহেরপুরে সুরক্ষা সরঞ্জাম না থাকায় লাপাত্তা চিকিৎসক

  • করোনা থাবায় হুমকির মুখে দেশের পোলট্রি শিল্প

  • এসি মিলান ছাড়ছেন জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ

৩ নভেম্বর কারাগারে হত্যা করা হয় জাতীয় চার নেতাকে

৩ নভেম্বর কারাগারে হত্যা করা হয় জাতীয় চার নেতাকে

তিন নভেম্বর, বাঙালি জাতির ইতিহাসে এক কলঙ্কময় ও বেদনাবিধুর দিন। বাংলার আকাশ তখন আঁধারে ঢাকা। বিপথগামী একদল সেনা সদস্যের হাতে সপরিবারে খুন হন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তার বিশ্বস্ত চার অনুসারী জাতীয় চার নেতাকেও বন্দি করা হয় কারাগারে।

১৯৭৫ সালের এই দিনে, ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে জাতীয় চার নেতা বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ, মন্ত্রিসভার সদস্য ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী এবং এএইচএম কামরুজ্জামানকে হত্যা করা হয়। জাতির জনককে সপরিবারে হত্যার পর, তাদের বন্দি করে রাখা হয়েছিল।

১৯৭৫ সালের ৪ নভেম্বর, লালবাগ থানায় একটি হত্যা মামলা হলেও হত্যাকাণ্ডের ২৯ বছর পর ২০০৪ সালে সাবেক তিন সেনা কর্মকর্তাকে মৃত্যুদণ্ড ও ১২ জনকে দেয়া হয় যাবজ্জীবন জেল।

এর মধ্যে ৫ আসামির দণ্ড কার্যকর হলেও বেশিরভাগই বিভিন্ন দেশে পলাতক রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চ্যানেল 24 বিশেষ খবর