channel 24

সর্বশেষ

  • রাশিয়ায় করোনায় এক মাসে ৭৫ মানুষের মৃ ত্যু

  • চাকুরির বাজারে বিশ্ববিদ্যালয় সনদ পর্যাপ্ত নয়: সিপিডি

  • মেধার পাশাপাশি শারীরিকভাবে যোগ্যদের বাছাই করছি: আইজিপি

  • নারীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা, শিলের আঘাতে প্রবাসীর মৃ ত্যু

  • বগুড়ায় কমছে আলু আবাদ, বিকল্প চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা

  • সড়কে শৃঙ্খলা আনতে যাত্রী কল্যাণ সমিতির ২০ দফা সুপারিশ

  • যৌন নি র্যা তনের বিরোধ নিষ্পত্তিতে উবারকে গুনতে হচ্ছে ৭৭ কোটি টাকা

  • ঢাকা ওয়াসার আয় বেড়েছে ৪ গুণ

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লাইসেন্সবিহীন অটোরিকশার দাপট (ভিডিও)

  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষার রুটিন বাতিলের দাবি

  • গোমস্তাপুরে পুলিশ পরিচয়ে ১৫ গরু ডাকাতি

  • শেষ হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের দিন

  • ১৯৫৪ বিশ্বকাপজয়ী দলের শেষ সদস্যের মৃত্যু

  • জোর করে আফগান নারীকে বিয়ে করা যাবে না: তালেবান

  • নাটোরের অপহৃত স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক আটক

কুমিল্লা ঘটনার মূল অভিযুক্ত সীমান্তে ঘোরাঘুরি করছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কুমিল্লা ঘটনার মূল অভিযুক্ত সীমান্তে ঘোরাঘুরি করছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের হাতে আসা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তথ্যে, কুমিল্লার নানুয়া দিঘীরপাড় মণ্ডপের ঘটনার জট খুলছে ধীরে ধীরে। চিহ্নিত করা হয়েছে ঘটনার সন্দেহভাজন মূল ব্যক্তিকে। ইতোমধ্যে জানা গেছে অভিযুক্তের নাম পরিচয়ও। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চ্যানেল টোয়েন্টিফোরকে জানান, কুমিল্লার ঘটনার মূল অভিযুক্ত সীমান্ত এলাকায় ঘোরাঘুরি করছে। সঙ্গে নেই কোনো মোবাইল ফোনও। মন্ত্রী আরও জানান, সর্বোচ্চ নজরদারিতে আছে অভিযুক্ত। ধরা পড়বে যেকোনো সময়।

আরও পড়ুন: কুমিল্লার মণ্ডপে কোরআন রাখা ব্যক্তির নাম জানাল পুলিশ

আর কুমিল্লার পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ জানান, পুলিশের একাধিক সংস্থার তদন্তে ঘটনার মূল অভিযুক্ত ব্যক্তিকে চিহ্নিত করা হয়েছে। বুধবার (২০ অক্টোবর) পুলিশ সুপার গণমাধ্যমকে জানান, পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রেখেছিলেন ইকবাল হোসেন (৩৫) নামে এক ব্যক্তি। ইকবাল হোসেনের বাবার নাম নূর আহমেদ আলম। বাড়ি কুমিল্লা নগরের সুজানগর এলাকায়। পুলিশ সুপার আরও জানান, ইকবালকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

গত বুধবার (১৩ অক্টোবর) সকালে কুমিল্লা নগরীর নানুয়া দীঘির উত্তরপাড় পূজামণ্ডপে কোরআন অবমাননার অভিযোগে ওই মণ্ডপে হামলা চালায় একদল লোক। সেখানে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয়। কুমিল্লার ঘটনার জের ধরে ওই দিন চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ ও দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দুদের মন্দির, মণ্ডপ ও দোকানপাটে হামলা–ভাঙচুর চালানো হয়।

কুমিল্লার ঘটনায় এ পর্যন্ত আটটি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় এখন পর্যন্ত ৪৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

একেএম/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর