channel 24

সর্বশেষ

  • ধ র্ষি ত মেয়ের নির্মম পরিণতির গল্প নিয়ে সিনেমা

  • ফোর্বসের প্রভাবশালী নারীর তালিকায় ৪৩তম শেখ হাসিনা

  • টেস্টে দ্রুততম ৪০০০ রান ও ২০০ উইকেট সাকিবের

  • শুক্রবারের সাপ্তাহিক ছুটি বদলে ফেলল আমিরাত

  • কোটালীপাড়ায় আরও ৪ আ. লীগ নেতা বহিষ্কার

  • চাঁপাইনবাবগঞ্জ-সোনামসজিদ রেলপথ নির্মাণ কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে

  • পরকীয়া সন্দেহে সামাদকে পিটিয়ে খু ন করল বাবা-ছেলে

  • এসএসসি পাসে লাখ টাকা বেতনে চাকরি দিচ্ছে ইউএসএআইডি

  • ২০০ কোটির প্রতারণার মামলায় ইডির অফিসে জ্যাকুলিন

  • ভেঙে পড়ল ভারতের সামরিক কপ্টার, প্রাণে বাঁচলেন বিপিন রাওয়াত

  • বাকিদেরও ফাঁসি চাই: আবরারের মা

  • পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলে রাতেই নিউজিল্যান্ড যাচ্ছে বাংলাদেশ

  • চট্টগ্রামে যাচ্ছেন পরীমণি

  • নোয়াখালীর কারাগারে হাজতির মৃত্যু

  • হিমাদ্রী বিশ্বাসের ‘চন্দ্রমুখ’

কুড়িগ্রামে প্রতারণার শিকার ৫ কৃষকের জামিন বহাল

কুড়িগ্রামে প্রতারণার শিকার ৫ কৃষকের জামিন বহাল

কুড়িগ্রামে প্রতারকচক্রের ফাঁদে পড়ে সরকারি টাকা আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগে করা মামলায় পাঁচ কৃষককে হাইকোর্টের দেওয়া এক বছরের জামিন বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) আপিল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের চেম্বার জজ আদালত এ আদেশ দেন।

আদালতে জামিন আবেদনকারীদের পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ শিশির মনির। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন বাপ্পী। 

আরও পড়ুন: চিকিৎসকের কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়া ২ প্রতারক গ্রেপ্তার

ওই পাঁচ কৃষক হলেন- বিধবা ফুলমনি রানি, রণজিৎ কুমার, প্রভাস চন্দ্র, কমল চন্দ্র রায় ও নিখিল চন্দ্র বর্মন। 

এর আগে বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর হাইকোর্ট বেঞ্চ তাঁদের এক বছরের জামিন দেন। পরে রাষ্ট্র পক্ষ হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করে। 

গত ১৫ জুলাই একটি জাতীয় দৈনিকে ‘করোনা প্রণোদনার নামে প্রতারকচক্রের ফাঁদে পড়ে ৪ দিনমজুর কারাগারে’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রতারণার মাধ্যমে সরকারি প্রায় আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগে গত ১ জুলাই দুই সরকারি কর্মকর্তাসহ নয়জনের বিরুদ্ধে গাজীপুরের শ্রীপুর থানায় মামলাটি করেন সোনালী ব্যাংকের শ্রীপুর হেডকোয়ার্টার শাখার ব্যবস্থাপক রেজাউল হক। সরকারি ২ কোটি ৪৬ লাখ ৯ হাজার ৯৬০ টাকা আত্মসাৎ চেষ্টার এ মামলায় গাজীপুর থানা পুলিশ ২ জুলাই চার দিনমজুরকে তাদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। অপরজন দিনমজুর পলাতক রয়েছেন।

অভিযুক্ত পাঁচ দিনমজুরের পরিবারের দাবি, করোনা প্রণোদনা দেওয়ার কথা বলে তাদের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। টাকা আত্মসাতের সঙ্গে তারা জড়িত নন। দারিদ্র্যতার সুযোগ নিয়ে তাদের ফাঁসানো হয়েছে।

এফএইচ/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর