channel 24

সর্বশেষ

  • পাবনায় বিদ্যুতের খুঁটি থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

  • একই দিনে পালিত হল তিন ধর্মের ধর্মীয় উৎসব

  • সহিংসতার আশঙ্কায় ভারতে স্থগিত ‘বাংলাদেশ ফিল্ম ফেস্টিভেল’

  • বাংলাদেশের সংবাদ সম্মেলন বয়কট করলেন সাংবাদিকরা

  • বাড়িতে মাদকের আসর, স্ত্রীর অভিযোগে স্বামীসহ আটক ২

  • আসামিকে ফেসবুক লাইভে জিজ্ঞাসাবাদ, ওসি প্রত্যাহার

  • মালদ্বীপ দূতাবাসে শেখ রাসেল দিবস উদযাপিত

  • ডেঙ্গুতে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১১২ জন হাসপাতালে

  • সরকার অরাজকতা সৃষ্টি করে বিএনপির নেতাকর্মীদের নামে মামলা দিচ্ছে: ফখরুল

  • তিস্তা ব্যারেজে রেকর্ড পরিমাণ পানি ছাড়লো ভারত

  • কেরানীগঞ্জে পুলিশ কর্মকর্তার ম র দে হ উদ্ধার

  • কুমিল্লা ঘটনার মূল অভিযুক্ত সীমান্তে ঘোরাঘুরি করছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • বাংলাদেশকে হারাতে পাপুয়া নিউগিনির অনুপ্রেরণা স্কটল্যান্ড

  • ট্রাকের সঙ্গে ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নি হ ত ২

  • থানায় ছাত্রলীগ নেতার আ ত্ম হ ত্যা র চেষ্টা!

ফের গবেষণাপত্রে চুরি, কাঠগড়ায় ঢাবি শিক্ষক লীনা তাপসী

ফের গবেষণাপত্রে চুরি, কাঠগড়ায় ঢাবি শিক্ষক লীনা তাপসী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মহসীনা আক্তার খানম ওরফে লীনা তাপসীর বিরুদ্ধে পিএইচডি গবেষণায় চুরির অভিযোগ ওঠেছে। এ নিয়ে গত ফেব্রুয়ারি মাসে উপাচার্যকে চিঠি দিয়েও প্রতিকার না পেয়ে এবার সংবাদ সম্মেলন করলেন নায়েমের সাবেক মহাপরিচালক ইফফাত আরা নার্গিস। উপ-উপাচার্য বলছেন, করোনার কারণে সিন্ডিকেট সভা সংক্ষিপ্ত হওয়ায় বিষয়টি এজেন্ডাভুক্ত হয়নি।

শিক্ষকের নৈতিকতা প্রশ্নে শুধু আক্ষেপ ভরা কণ্ঠেই বসে থাকেননি। করেছেন আনুষ্ঠানিক অভিযোগ। কারণ পিএইচডি গবেষণায় চুরির প্রমাণ ছিল তার কাছে। যার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মহসীনা আক্তার খানম। লীনা তাপসী খান নামে পরিচিত এই নজরুল সঙ্গীত শিল্পী।

২০১০ সালে তার পিএইচডি অভিসন্দর্ভ হিসেবে একটি বই উপস্থাপন করেন। নাম নজরুল সঙ্গীতে রাগের ব্যবহার। ২০১১ সালে যা বই আকারে প্রকাশ করে বাংলা একাডেমি।

তখনই অভিযোগ উঠে, ১৫ অধ্যায়ের ২৭৭ পৃষ্ঠার এই বইয়ে প্রায় ১১টি অধ্যায়ের ১৫২ পৃষ্ঠাই বিভিন্ন লেখকের গ্রন্থ থেকে হুবহু নেয়া। বাকি পাতার তথ্যেই আছে গড়মিল।

নজরুলের গানের শ্রেণিবিন্যাসের অধ্যায়টি গীতবিতান নজরুল গীতিকার সহায়তায় রবীন্দ্রনাথের গানের শ্রেণীবিন্যাস থেকে নেয়া।
তৃতীয় অধ্যায়ে নজরুলের মূল গান ও ভাঙা গান শিরোনামে এ কি তন্দ্রা বিজড়িত আঁখি গানটিকে নজরুলের বলে উল্লেখ করলেও এর রচয়িতা মূলত তুলশী লাহিড়ী।

আর নজরুল ইন্সটিটিউট থেকে ১৯৯৭ সালে প্রকাশিত ইদ্রিস আলীর নজরুল সঙ্গীতের সুর বইটি থেকে হুবহু নেয়া হয়েছে বেশকয়েকটি অধ্যায়।

এমন নকলের বাহারে ভরা এই পিএইচডি থিসিসের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে জানতে চাইলে লীনা তাপসী খানের দাবি, বিষয়টি ঠিক নয়, শুধু শত্রুতার বহিঃপ্রকাশ।

এই গবেষণার তত্ত্ববধায়কদের একজন, জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের দাবি, গবেষণাটি তখন তাদের কাছে সঠিকই মনে হয়েছিলো।

এ বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে বিষয়টি নিয়ে উপাচার্যসহ সব সিন্ডিকেট সদস্যের কাছে তদন্তের দাবিতে  অভিযোগপত্র জমা দেন নায়েমের সাবেক মহাপরিচালক। কয়েকমাস পেরুলেও বিষয়টি সিন্ডিকেট সভায় এজেন্ডাভূক্ত না হওয়ায় এবারে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

যদিও উপ-উপাচার্যের দাবি, করোনার কারণে সভা সংক্ষিত হওয়ায় এতোদিন তদন্ত কাজ এগোয়নি।

গবেষণায় চুরির মতো নেতিবাচক বিষয় নিয়ে সবাইকে আরও সচেতন থাকা জরুরি বলেও পরামর্শ দেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর