channel 24

সর্বশেষ

  • ব্রাজিলে মুমূর্ষু রোগীদের সহমর্মিতায় 'হ্যান্ড অব গড'

  • তামিম-নাজমুলের ব্যাটে ক্যান্ডি টেস্টে দারুণ শুরু বাংলাদেশের

  • রংপুরে উৎপাদিত আলুর অর্ধেকই পঁচে যায় সংরক্ষণের অভাবে

  • চিকিৎসকসহ নানা সংকটে সিলেট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও হাসপাতাল

  • ফরিদপুরে ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দের অন্যন্য নজির

  • ঈদকে সামনে রেখে অনলাইনে বাড়ছে গয়না বিক্রি

  • চট্টগ্রামে দীর্ঘ হচ্ছে শিশুদের করোনা আক্রান্তের তালিকা, বাড়ছে প্রাণহানিও

  • বড় পতনের পর ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত পুঁজিবাজার

  • যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা দোষী সাব্যস্ত

  • লকডাউনের মধ্যেই অভ্যন্তরীণ রুটে বিমান চলাচল শুরু

  • লকডাউনে গলি মহল্লার ভিড় এখন মূল সড়কে

  • স্কুল বন্ধ থাকায় অনিশ্চয়তায় কোটি শিক্ষার্থীর জীবন, বেড়েছে বাল্যবিবাহ

  • শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করছে বাংলাদেশ

  • দাতাদের সাথে আলোচনার পর ভাসানচরে অর্থায়নের সিদ্ধান্ত: জাতিসংঘ

  • ভারতে আরও ভয়াবহ হচ্ছে করোনা, একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ২০২১

পিলখানা ট্র্যাজেডি: থমকে আছে মামলার আপিল শুনানি

পিলখানা ট্র্যাজেডি: থমকে আছে মামলার আপিল শুনানি

পিলখানা হত্যা মামলার আপিল শুনানি কবে এখনো জানে না কোন পক্ষই। দ্রুত শুনানির জন্য আসামিপক্ষ বিশেষ বেঞ্চ গঠনের দাবি জানালেও একমত নয় রাষ্ট্রপক্ষ। অ্যাটর্নি জেনারেল বলছে এ বছরের শেষে হতে পারে শুনানি। এদিকে একযুগেও শেষ হয়নি বিস্ফোরক মামলার বিচার।

পিলখানা ট্র্যাজেডির ভয়াবহ নৃশংসতার পর হত্যা ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে আলাদা দুটি মামলার বিচার শুরু হয় একসাথে। বিচারিক আদালত ও হাইকোর্ট দু জায়গাতেই হত্যা মামলার বিচার শেষ হলেও ঝুলে আছে বিস্ফোরক আইনে করা মামলাটি। এরইমধ্যে কেটে গেছে একযুগের বেশি-সময়। এ মামলায় ১৩শ' সাক্ষীর মধ্যে মাত্র ১৮০ জনের সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে। ফলে হত্যা ও বিদ্রোহ মামলায় খালাস মিললেও কারাগার থেকে বের হতে পারছেন না দুই শতাধিক আসামি। 

এ মামলায় আপিল শুনানির জন্য বিশেষ বেঞ্চ গঠনের পাশাপাশি বিস্ফোরক মামলারও চূড়ান্ত নিষ্পত্তির দাবি জানিয়েছেন, আসামিপক্ষের আইনজীবীরা। 

তবে এই দাবির সঙ্গে একমত নন অ্যাটর্নি জেনারেল। বিস্ফোরক মামলার ধীরগতির কারণ সম্পর্কে জানা নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি পিলখানায়, বিদ্রোহের নামে হত্যা করা হয় ৫৭ সেনা কর্মকর্তাকে। নৃশংস এই ঘটনায় করা দুটি মামলার আসামি আছেন, ৮৫০ জন। এছাড়া বাহিনীর  নিজস্ব আইনে করা ৫৭টি মামলায় প্রায় ৬ হাজার জনকে বিচারের মুখোমুখি করা হয়েছে।
 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর