channel 24

সর্বশেষ

  • লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, ৩৩ বাংলাদেশি উদ্ধার

  • ন্যায়বিচার পাওয়ার আশ্বাস আইনমন্ত্রীর

  • কোয়ারেন্টিন শেষে অনুশীলনে সাকিব-মোস্তাফিজ

  • নরসিংদীর রায়পুরায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ৩

  • করোনাকালেও সোয়া দুই লাখ কোটি টাকার এডিপি!

  • খিলক্ষেত ফ্লাইওভারে ‘বন্দুকযুদ্ধে দুই ছিনতাইকারী’ নিহত

  • বাংলাদেশের ভ্যাক্সিন তৈরিতে কিউবা বা ইরানের মডেল ফলো

  • নেত্রকোনায় বজ্রপাতে ৭ জনের মৃত্যু

  • রোজিনার মুক্তি দাবি সাংবাদিক অধিকার সংগঠন সিপিজের

  • দপ্তর বদল করা হয়েছে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিবের

  • করোনাভাইরাসে দেশে আরও ৩০ মৃত্যু

  • আমলার মামলায় কারাগারে সাংবাদিক রোজিনা

  • রাঙ্গামাটিতে প্রাণহানি রোধে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা চিহ্নিত প্রশাসনের

  • চট্টগ্রাম বন্দরে বাড়ছে কন্টেইনার খালাসের সংখ্যা

  • বান্দরবানে পাহাড়িদের ৭০ বসতঘর পুড়ে ছাই

ট্রেনের ইঞ্জিন সরবরাহে কোরিয়ার কোম্পানির নানা অনিয়ম

ট্রেনের ইঞ্জিন সরবরাহে কোরিয়ার কোম্পানির নানা অনিয়ম

ট্রেনের ইঞ্জিন সরবরাহে নকল সনদসহ নানা অনিয়মের তথ্য মিলেছে, কোরিয়ার কোম্পানি হুন্দাই রোটেমের বিরুদ্ধে। ইঞ্জিনে যে সব য্ন্ত্রাংশ দেয়ার কথা ছিল, তার অনেক কিছুই দেয়নি প্রতিষ্ঠানটি। রেলমন্ত্রী জানান, প্রকল্প পরিচালকের আপত্তি থাকায়, তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী ইঞ্জিন সরবরাহ না হলে, অর্থ ছাড় করা হবে না। এ ঘটনায় রেলের উর্ধ্বতন কেউ জড়িত কিনা, তার অনুসন্ধান চেয়েছেন, যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ শামসুল হক।

২০১৮ সালে কোরিয়ার হুন্দাই রোটেমের কাছ থেকে ১০টি মিটারগেজ ইঞ্জিন কেনার চুক্তি করে বাংলাদেশ রেলওয়ে। যাতে খরচ হবে, তিনশো কোটি টাকার বেশি। তবে শর্তানুযায়ী, ইঞ্জিনে যে ধরণের যন্ত্রাংশ সংযোজনের কথা তা নেই। সেইসাথে মিটারগেজ থেকে ব্রডগেজে রূপান্তরের বিকল্প ব্যবস্থা থাকার কথা থাকলে তাও রাখা হয়নি। এতে নড়েচড়ে বসেছে রেল মন্ত্রণালয়। এরইমধ্যে রেলমন্ত্রীর নির্দেশে খালাসের পর এসব ইঞ্জিন রাখা হয়েছে পাহাড়তলীতে।

ইঞ্জিনে তিনটি ক্যাপিটাল কম্পোনেন্টে রয়েছে ভিন্নতা। যা চুক্তিপত্রের লঙ্ঘন। এরমধ্যে অলটারনেটর, ট্রাকশন মটর পুরোপুরি আলাদা। এছাড়া, ইঞ্জিন কমিশনের সব ধরনের মেশিনারিজ পার্টস টুলস হুন্দাই রোটেমের সরবরাহ করার কথা থাকলে মানা হয়নি। এছাড়া, প্রিশিপমেন্ট ইন্সপেকশন কোম্পানি-'সিসিআইসি', নিম্নমানের বা চুক্তি অনুযায়ী ইঞ্জিন সরবরাহ করছে কিনা, রেলকে তা জানায়নি।

ইঞ্জিন কেনায় এমন অসঙ্গতি দেখে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে জানান, প্রকল্প পরিচালক। এতে বলা হয়েছে, চুক্তির বেশকিছু শর্ত ভঙ্গ করেছে, কোরিয়ার 'হুন্দাই রোটেম'। প্রিশিপমেন্ট ইন্সপেকশন সার্টিফিকেট ছাড়াই কোরিয়া থেকে জাহাজে চট্টগ্রামে ইঞ্জিন পাঠায় কোম্পানিটি। শুধু তাই নয়, দিয়েছে নকল মান সনদও।

রেলমন্ত্রী বলেন, চুক্তি অনুযায়ী ইঞ্জিন সরবরাহ না হলে, হবে না অর্থ ছাড়। তবে অনিয়ম আছে কি-না তা জানতে এরইমধ্যে কমিটি করা হয়েছে।  

যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ শামসুল হক বলেন, ইঞ্জিন কেনার অনিয়মে রেলের উর্ধ্বতন কারো যোগসাজস আছে কি-না তা তদন্তে উঠে আসা জরুরী।

শর্তানুযায়ি কোরিয়ার হুন্দাই রোটেম কোম্পানি ইঞ্জিন সরবরাহ না করায়, বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য তৈরি হয়েছে বিব্রতকর পরিস্থিতির।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর