channel 24

সর্বশেষ

  • আইএইচটির শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ স্থানীয়দের

  • 'ধর্মন্ধতা মোকাবিলা করতে না পারলে রাজনৈতিক সমস্যার সমাধান হবে না'

  • ফরিদপুর পৌরসভা নির্বাচনে আ.লীগ প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার আহবান

  • বিশ্বকাপ বাছাইয়ে কাতারের মুখোমুখি বাংলাদেশ

  • কেন উইলিয়ামসনের ডাবল সেঞ্চুরিতে হ্যামিল্টন টেস্টে রান পাহাড়ে নিউজিল্যান্ড

  • বঙ্গবন্ধু টি টোয়েন্টিতে টানা দ্বিতীয় জয় খুলনার

  • এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন কাতারকে রুখে দেয়ার প্রত্যয় বাংলাদেশের

  • প্রথম টি টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়াকে হারালো ভারত

  • জয়পুরহাটে গৃহবধূকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ; থানায় মামলা

  • বায়তুল মোকাররমের সামনে ভাস্কর্য বিরোধী মিছিল, পুলিশের বাধায় ছত্রভঙ্গ

  • অতিথি পাখির কলকাকলিতে মুখর শের খাঁ দিঘি

  • ইউরোপা লিগ: শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রেখেছে আর্সেনাল, রাউন্ড অব থার্টি টু তে টটেনহ্যাম

  • হালিশহরে বেড়েছে টমেটোর মোজাইক ভাইরাস; শঙ্কায় চাষীরা

  • কেউ আক্রমণ করলে পাল্টা জবাব দিতে প্রস্তুত আ.লীগ: কাদের

  • দেশসেরা জেলা শিক্ষা অফিসার কুমারেশ চন্দ্র

রাজধানীতে নিয়োগহীন ডোম দিয়ে চলে ময়নাতদন্তের কাজ

রাজধানীতে নিয়োগহীন ডোম দিয়ে চলে ময়নাতদন্তের কাজ

ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে এনাটমি বিভাগ থেকে একজনকে ধারে এনে চলছে মর্গের কাজ। বাকিরা নিয়োগহীন। ঢাকা মেডিকেলে পারিবারিকভাবে ডোমের কাজ করেন দুই ভাই। বাকি চারজন আছেন বেসরকারিভাবে। প্রায় একই অবস্থা সলিমুল্লাহ মেডিকেলের। কর্তৃপক্ষের দাবি, নিয়োগ বন্ধ এবং সম্মান-সুবিধা না থাকায় শিক্ষিতরা আসতে চান না এ পেশায়।

অমানবিক, ভীতিকর এবং অমানুষিক। দিনের পর দিন মৃত কিশোরী তরুনীদের সাথে যৌনসম্ভোগ। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের সহকারি ডোম মুন্না ভক্তকে গ্রেফতারের পর শব্দই হারিয়ে গেছে বিশ্লেষনের।

২০১৭ সালের অক্টোবের যাত্রা শুরু করে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গটি। যার কারণে অনেকটাই চাপ কমে যায় ঢাকা মেডিকেলের মর্গে। কাগজে কলমে এখনো কোন ডোম নেই এখানে, এনাটমি বিভাগ থেকে প্রেষনে আসা যতন কুমার সরকার সামলাচ্ছেন দায়িত্ব।

প্রতিদিন গড়ে ৬/৭টি মরদেহ আসে এখানে। নিজের স্ত্রীর বড়ভাই জীবন ও ভাগ্নে মুন্নাকে মর্গে কাজে লাগান যতন। রয়েছে আরো ২জন সহকারি। সবই অনানুষ্ঠিকভাবে। কিন্তু বিকৃত যৌনাচারে ভাগ্নের সম্পৃক্ততা প্রশ্নের মুখে ফেলেছে তাকেও।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ডোম হিসেবে আছেন দুই ভাই। বাবার পথ ধরে এসেছেন এ পেশায়। সহকারি হিসেবে রয়েছে আরো চারজন। কিন্তু একেবারেই হাতে কলমে শিখেছেন লাশকাটা। প্রশ্ন, সোহরাওয়ার্দীর ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না তো?

ময়নাতদন্ত হয় ঢাকার তিন হাসপাতালে। যার আরেকটি সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ। সেখানেও ডোম শ্যামলের সাথে রয়েছেন একজন নারী সহকারি। সব মিলিয়ে দেখা যায়, প্রতিদিন গড়ে ৭/৮টা মৃতদেহ আসা বড় হাসপাতালে ডোম আছেন মাত্র ৪ জন।

রাতে কোথাও ময়নাতদন্ত হয় না। ব্রিটিশ এ পদ্ধতি থেকে চাইলেও বেরিয়ে আসতে পারছে না হাসপাতালগুলো। আধুনিক সরঞ্জামাদি, লোকবল এবং প্রশিক্ষণের অভাবকেই দায়ী করছেন চিকিৎসকরা।

 

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর