channel 24

সর্বশেষ

  • রাজধানীতে গৃহবধূর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

  • ২০২২ সালের মধ্যে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষকে টিকা দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • আফগানিস্তান ইস্যুতে বাতিল হল সার্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক

  • নেতাকর্মীদের সাথে ৫ম দিনের মতো বৈঠকে বিএনপি

  • ১০ মাসেই রাজশাহী মেডিকেলের চেহারা বদলেছেন ব্রি. জে. শামীম ইয়াজদানী

  • খুলনায় যৌতুক মামলায় সিআইডি কর্মকর্তা কারাগারে

  • চাঁদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

  • সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে পদ্মার ইলিশ

  • আইনি কাঠামোতে আসছে ই-কমার্স খাত

  • মহেশখালিতে রিটার্নিং কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ফল পাল্টে দেয়ার অভিযোগ

  • সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কমিশনকে সর্বাত্মক ক্ষমতা দেয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

  • ভোটার তালিকায় নেই লোকমান, অর্ধশতাধিক নতুন মুখ

  • একাধিকবার গর্ভপাত, মাতৃত্বের স্বাদ বঞ্চিত গৃহবধূর আদালতে মামলা

  • পরিবারে বাল্য বিয়ে থাকলে ভিজিডি নয়: সংসদীয় কমিটি

  • চ্যানেল 24 ও সমকাল কার্যালয়ে এমপি নিক্সন

নয় মাসে প্রতিদিন গড়ে ৩ জনের বেশি ধর্ষণ, অর্ধেকই শিশু

নয় মাসে প্রতিদিন গড়ে ৩ জনের বেশি ধর্ষণ, অর্ধেকই শিশু

গেল নয় মাসে দেশে প্রতিদিন ধর্ষণের শিকার হয়েছেন গড়ে তিন জনেরও বেশি নারী। সংখ্যায় যা হাজার ছুঁই ছুঁই। যাদের অর্ধেকই শিশু। একই সাথে মৃত্যু ও আত্মহত্যার হারও ভয়াবহ। বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থার পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে এমনই তথ্য। মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সারাদেশের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেবা নিয়েছেন আড়াই হাজারের বেশি ভুক্তভোগী।

সংক্রমন ব্যধির মত পুরো দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ধর্ষণ, নীপিড়ন। যা এখন খবরের শিরোনাম।

ভুক্তভোগীরাই বোঝেন এর যন্ত্রণা।

এমন নয় যে ধর্ষণ আগে হতো না। অন্তত পরিসংখ্যান তাই বলে। ২০২০ এর প্রথম নয় মাসে সংখ্যাটা হাজার ছুঁই ছুঁই। আইন ও সালিশ কেন্দ্রের হিসাবে শুধু সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকারই ২০৮ জন। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের পরিসংখ্যানে সংখ্যাটা অবশ্য কিছুটা কম।

দুই হিসাবেই মৃত্যু আর আত্মহত্যা আশঙ্কাজনক।

সংবাদপত্র ঘেটে এই পরিসংখ্যান তৈরি করেছে বেসরকারী সংস্থা দুটি। তবে আসল চিত্র আরো ভয়াবহ। কেননা সংবাদের আড়ালেই থেকে যায়, আরো কত শত এমন ঘটনা।

শুধু ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ৬৭৪ জন ধর্ষিতার মধ্যে ৫০ ভাগই শিশু। বর্তমানে চিকিৎসাধীন সাধারণের চেয়ে তিনগুন বেশি রোগী/ভুক্তভোগী।

যৌণ হয়রানির শিকার নারী ও শিশুদের সুস্থতার সঙ্গে মানসিক অবস্থা স্বাভাবিক করে তোলার চ্যালেঞ্জে এখানে কাজ করছেন কাউন্সিলররা।

বিভিন্ন সরকারী হাসপাতালে ১১টি ওসিসি বর্তমানে চালু রয়েছে। সমাজের চিত্র বদলে ধর্ষণ বন্ধের সুদিনের প্রত্যাশায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ সেন্টারের পরিচালক।

ধর্ষণমুক্ত বাংলাদেশের সেই দিন কবে আসবে? কবে হবে মানুষের বিকৃত রুচির বিলুপ্তি?

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর