channel 24

সর্বশেষ

  • এখনও জমেনি শীত পোশাকের বাজার

  • প্রথম প্রান্তিকে লক্ষ্যমাত্রার ৮০ শতাংশ রাজস্ব আদায়

  • করোনা সংক্রমণ বাড়ায় ইতালিতে নতুন বিধি-নিষেধ জারি

  • প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘর পাচ্ছেন দিনাজপুরের রুবিনা বেগম

  • দুর্নীতি আর দলাদলিতে খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদে আটকে আছে নিয়োগ

  • জাল সনদে চাকরি: প্রমাণিত হওয়ার পরও আছেন স্বপদে

  • রাতে মুখোমুখি টটেনহ্যাম-বার্নলি, এসি মিলান-রোমা

  • ইতালিয়ান লিগে পয়েন্ট হারালো জুভেন্টাস; ইংলিশ লিগে হার আর্সেনালের

  • কেবল অবৈধভাবেই জিততে পারেন ট্রাম্প: বাইডেন

  • ফ্রান্সে মহানবীর কল্পিত কার্টুন ঘিরে উত্তপ্ত মধ্যপ্রাচ্য

  • মাদ্রাসাছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মামলা: গ্রেপ্তার ২

  • ভারতীয় আমেরিকানদের ট্রাম্প মোহভঙ্গ

  • বিজয়া দশমী আজ

  • হাজী সেলিমের গাড়ি থেকে বেরিয়ে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর

  • প্রীতি ম্যাচ খেলতে নভেম্বরে ঢাকায় আসছে নেপাল

স্বাস্থ্যের গাড়িচালক মালেক কারাগারে

স্বাস্থ্যের গাড়িচালক মালেক কারাগারে

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাড়িচালক আবদুল মালেককে ১৪ দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করে পুলিশ।

সোমবার (৫ অক্টোবর) গাড়িচালক আবদুল মালেকের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরী কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

অবৈধ অস্ত্র ও জাল টাকা উদ্ধারের ঘটনায় করা পৃথক দুই মামলায় গাড়িচালক আবদুল মালেক ১৪ দিনের রিমেন্ডে ছিলেন।

২১ সেপ্টেম্বর তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় অবৈধ অস্ত্র ও জাল টাকা উদ্ধারের ঘটনায় তুরাগ থানার করা পৃথক দুই মামলায় তার সাত দিন করে ১৪ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ।

গত ২০ সেপ্টেম্বর ভোরে অবৈধ অস্ত্র, জাল নোট ব্যবসা ও চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজধানীর তুরাগ এলাকা থেকে গাড়িচালক আবদুল মালেক ওরফে ড্রাইভার মালেককে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, পাঁচ রাউন্ড গুলি, দেড় লাখ বাংলাদেশি জাল নোট, একটি ল্যাপটপ ও মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয়।

স্বাস্থ্যের গাড়িচালক আবদুল মালেকের রয়েছে ২৪টি ফ্ল্যাটবিশিষ্ট সাত তলার দুটি বিলাসবহুল বাড়ি। একই এলাকায় ১২ কাঠার প্লট। এছাড়া হাতিরপুলে ১০ তলা ভবনের নির্মাণকাজ চলছে।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রশাসনকে জিম্মি করে চিকিৎসকদের বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতেন। চিকিৎসকদের বদলি-পদোন্নতিতেও ছিল তার হাত। নিয়োগ, বদলি ও পদন্নোতিতে তদবিরের নামে আদায় করেছেন বিপুল পরিমাণ অর্থ। যার বদৌলতে অল্প দিনেই শতকোটি টাকারও বেশি অর্থ-সম্পদের মালিক হন এই মালেক ড্রাইভার।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর