channel 24

সর্বশেষ

  • ফেসবুক এজেন্ট এইচটিটিপুলের বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে মামলা

  • যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে দু'গ্রুপের সংঘর্ষে ৩ কিশোর নিহত

  • দুটি পেশাদার বাহিনীকে মুখোমুখি দাঁড় করানোর অপচেষ্টা অপ্রত্যাশিত: পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন

  • শ্রীলঙ্কা সফর ঘিরে সেরা প্রস্তুতি নিতে চান সৌম্য

  • ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বার্সেলোনায় যাবার গুঞ্জন

  • শেয়ার কারসাজি: বিবিএস ক্যাবলসের চেয়ারম্যানের স্ত্রী ও এমডিকে জরিমানা

  • ক্যাম্প ছাড়লেন ফুটবলাররা, প্রস্তুত থাকতে চান পরবর্তী ডাকের জন্য

  • বাসমালিকরা ভাড়া কমালে তেলের দাম সমন্বয়ের চিন্তা করা যেতে পারে: প্রতিমন্ত্রী

  • ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ ৬৭ হাজার করোনায় আক্রান্ত

  • এমপি পাপুল পরিবারের ৫৮৮টি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট!

  • প্রতারণার মামলায় যুবলীগ নেতা ডিজে শাকিলসহ ৩ জন ৫ দিনের রিমান্ডে

  • করোনার নমুনা পরীক্ষার কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে গণস্বাস্থ্য

  • চাঁদাবাজি মামলার পরও বহাল তবিয়তে রাজশাহী রেঞ্জ এসপি

  • এ মাসেই নন-কোভিড হাসপাতাল ঠিক করে দেয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • যাত্রীদের নিজস্ব ব্র্যান্ডের পানি সরবরাহ করবে রেল

এলাকাভিত্তিক বিক্ষিপ্ত লকডাউন অযৌক্তিক ও অকার্যকর: স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ

এলাকাভিত্তিক বিক্ষিপ্ত লকডাউন অযৌক্তিক ও অকার্যকর: স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ

এলোমেলো সাধারণ ছুটি আর সীমিত পরিসরের পর চলছে বিক্ষিপ্ত লকডাউন। যা আশ্বস্ত করতে পারছে না সাধারণ মানুষকে। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও অর্থনীতিবিদের মতে, করোনার সামগ্রিক পরিস্থিতি বদলাতে এসব বিচ্ছিন্ন লকডাউন অযৌক্তিক ও অকার্যকর। তাই, নতুন করে লকডাউন না দিয়ে বরং স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশকে সচল করার পথে হাটার পরামর্শ তাদের। তবে এ ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ হলো মানুষের আস্থা ফেরানো।

ওয়ারি। পুরান ঢাকার অন্যান্য আবাসিক এলাকার চেয়ে তুলনামূলক প্রশস্ত ও গোছালো। জনসংখ্যার অনুপাতে করোনা সংক্রমণের হার বেশি হওয়ায় এই এলাকা এখন লকডাউনে।

বাসিন্দাদের আক্ষেপ, পাশের টিপু সুলতান রোড, বনগ্রাম ও নারিন্দার মতো ঘিনজি সব এলাকা উন্মুক্ত রেখে শুধু ওয়ারিকে আবদ্ধ করে তেমন ফায়দা হবে না।

ওয়ারির আগে তিন সপ্তাহের বন্দিদশার অভিজ্ঞতা হয়েছে রাজাবাজারের মানুষজনের। এখন যখন যখন আগের চেহারায় ফিরেছে এলাকা, তখন ফলাফল নিয়ে হিসাব-নিকাশ চলছে বাসিন্দাদের মাঝে। লকডাউন শুরুর সময় এখানে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ছিলো ৩৯ জন আর শেষ হবার পর দাঁড়িয়েছে ৭৪ জনে। অবশ্য ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের হিসাবে সংখ্যা বাড়লেও আক্রান্তের হার কমেছে রাজাবাজারে।

একটি রাজাবাজার কিংবা ওয়ারিতে ভাইরাসের লাগাম টানার চেষ্টার বিপরীতে শহরজুড়ে রীতিমতো স্বাভাবিক চলাফেরার প্রতিচ্ছবি। ফলে বিচ্ছিন্ন, বিক্ষিপ্ত লকডাউন আদতে নিস্ফল বলেই মনে করেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ।

তাহলে দীর্ঘ চার মাসের এলোমেলো লকডাউনে মানুষের ত্রাহী অবস্থার মাঝে আবারো কী বড় পরিসরে অচলাবস্থায় যাবার সুযোগ-সক্ষমতার, কোনোটাই কি আছে বাংলাদেশের?

বিশেষজ্ঞদের মতে, মানুষের আস্থা ফেরানোর কাজেই এখন পূর্ণ মনোযোগ দিতে হবে। জনজীবন স্বাভাবিক রেখে নিশ্চিত করতে হবে আইসোলেশন, কনটাক্ট ট্রেসিং, কোয়ারেন্টিন ও চিকিৎসাসেবা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর