channel 24

সর্বশেষ

  • রাঙ্গামাটিতে বিআরডিবি পরিদর্শকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

  • চট্টগ্রামে জাল নোট প্রতারক চক্রের ১ সদস্য আটক

  • পাহাড়ে বাড়ছে অস্ত্রের ঝনঝনানি, দুই দশকে প্রাণ গেল ৮ শ' জনের

  • করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে আরও ৬০ হাজার আক্রান্ত

  • রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখাও সিলগালা

  • 'বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাগুলোকে সরকারি নীতি-কৌশলের সাথে যুক্ত করতে হবে'

  • লিচুর পুষ্টিগুণ

  • মরিচ গাছের ঢলে পড়া রোগ

  • বৃষ্টির বাধায় ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তন ম্যাচ

  • কোরবানির পশুর বেচা-বিক্রি নিয়ে উদ্বিগ্ন নাটোরের খামারীরা

  • স্বাস্থ্যখাতের লাগামহীন অনিয়ম নিয়ে সংসদে সমালোচনা

  • রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানে দ্রুত প্রত্যাবাসনের পক্ষে ভারত

  • বান্দরবানে ৬ নেতাকর্মী হত্যার ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি

  • কর্ণফুলি নদীতে লাইটার জাহাজ ডুবি

  • চট্টগ্রামে করোনায় আরও ৬ জনের মৃত্যু

অবৈধপথে বিদেশ পাড়ি; দালালচক্রের কাছে বন্দি জীবন

অবৈধপথে বিদেশ পাড়ি; দালালচক্রের কাছে বন্দি জীবন

অবৈধ পথে বিদেশ পাড়ি দিতে দালালচক্রের হাত থেকে রেহাই মিলছে না। বরং দিন দিন বাড়ছে অত্যচার নির্যাতন। বিশ্লেষকরা বলছেন, দালাল চক্রের দৌরাত্ম্য থামাতে সমন্বিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই। আর দালালদের খুজে শাস্তির আওতায় আনতে আইনশৃংখলা বাহিনী কাজ করছে বলে জানিয়েছেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

উন্নত জীবনের আশায় বাংলাদেশ থেকে বছর তিনেক আগে ইতালি গেছেন কিশোরগঞ্জের সজীব। কিন্তু তার সেই যাত্রা মোটেও সহজ ছিল না।

সজীব ইতালিতে যেতে পারলেও তার মতো একই স্বপ্ন নিয়ে ইউরোপে যাবার আশায় লিবিয়া থেকে ২০১৭ সালে দেশে ফিরতে বাধ্য হন সুনামগঞ্জের বদরুল হুদা ও ঢাকার হৃদয়।

তারপরও কেন একই পথে থেমে নেই বাংলাদেশীদের যাত্রা? ভুক্তভোগিরা জানান, ইউরোপে ঢোকার সহজ পথ গ্রীস ও ইতালি। এজন্যে লিবিয়া, আলজেরিয়াসহ আশপাশের দেশ বেছে নিচ্ছেন তারা। সাধারণত: ঢাকা থেকে কলকাতা- মুম্বাই-দুবাই হয়ে লিবিয়াতে পৌছান অভিবাসন প্রত্যাশীরা। সেখান থেকে বিপদসংকুল সমুদ্রপথে ধরে ইতালি। ঢাকা ছাড়ার আগে জনপ্রতি ৫ লাখ টাকা করে নিলেও লিবিয়া পৌছাবার পর দালালরা আরো আদায় করে ৫ থেকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত। যারা দিতে পারেন না তাদের উপর চলে অমানবিক অত্যাচার।

লিবিয়ায় বাংলাদেশী দূতাবাসের শ্রম কর্মকর্তা জানালেন, যুদ্ধ বিধস্ত দেশটির সরকারকে এসব বিষয়ে একাধিকবার জানানো হয়েছে বিস্তারিত। তবে মিলছে না প্রতিকার।

পরিসংখ্যান বলছে, ইতালিতে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করেছেন প্রায় সাড়ে চারশ বাংলাদেশী। আর পুরো বছরে ১হাজার ৩৪০ জন। বিশ্লেষকরা বলছেন, দালাল চক্রের দৌরাত্ম থামাতে , সমন্বিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, আইনশৃংখলা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দালালদের খুজে শাস্তির আওতায় আনার।

ইউএনএইচসিআরের তথ্য মতে, ভূমধ্যসাগর দিয়ে ইউরোপে প্রবেশের তালিকার শীর্ষ দশে আছে বাংলাদেশীরা। চলতি বছর এপ্রিল পর্যন্ত এভাবে প্রবেশ করতে গিয়ে আটক হয়েছেন ৬৯৩ জন।

 

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর