channel 24

সর্বশেষ

  • সিরাজগঞ্জে ছাত্রলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৫০

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাড়ির আঙ্গিনায় গাঁজা চাষ, ১ নারী আটক

  • মর্নিং বার্ড লঞ্চ শত্রুতামূলকভাবে ডোবানো হয়েছে: নৌ পুলিশ

  • ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট করোনায় আক্রান্ত

  • ১৮২০ তৃণমূল ফুটবলার আর্থিক সহায়তা পাচ্ছে

  • খুলনায় আটক পাটকলের ২ শ্রমিক নেতা কারাগারে

  • এশিয়া কাপ স্থগিতের শঙ্কায় আকরাম খান

  • করোনায় ফেনীর সিভিল সার্জনের মৃত্যু

  • ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট দিয়ে মাঠে গড়াচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

  • নানা পরিচয়ে একের পর এক ব্যবসা বাগিয়েছেন রিজেন্টের মালিক

  • বাংলাদেশ থেকে এক সপ্তাহের জন্য ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা দিলো ইতালি

  • মৃতের হাত বেঁধে টাকা আদায়: প্রশান্তি হাসপাতালের বিরুদ্ধে ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট

  • প্যাপিনোমেলনের পুষ্টিগুণ

  • মরিচ গাছের পাতা কুকড়ানো বা লিফ কার্ল রোগ

  • আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত ঘেরে চিংড়ির রোগ নির্ণয় ভ্রাম্যমাণ মৎস্য ক্লিনিক

মহামারিতে কাল বিষাদের ঈদ

মহামারিতে কাল বিষাদের ঈদ

শেষ হলো সিয়াম সাধনার মাস রমজান। কাল পবিত্র ঈদুল ফিতর। এবারের ঈদটা ভীষণ অন্যরকম। একদিকে করোনার সংক্রমণ যখন পিছু ছাড়ছে না তখন যোগ হয়েছে ঘূর্ণিঝড়ে সব হারানোর গল্প। ফলে আনন্দের বদলে বেদনা, উৎসবের বদলে টিকে থাকার লড়াই। তাই এবারের ঈদজুড়ে ত্যাগ, সহমর্মিতা আর মানবতার আহবান।

শহরের বাঁকে দীর্ঘশ্বাসের আওয়াজ। পথে-পথে মন খারাপের প্রতিচ্ছবি। 

রাত পোহালে ঈদ, কিন্তু চোখের কোনে যেনো খুশিটুকু নেই কারো। কর্মব্যস্ত শহুরে জীবনে বছরে এক দুবারই সুযোগ আছে মেঠোপথ আর মায়ের কাছে যাবার। কিন্তু দুর্বিসহ সামাজিক দূরত্ব এবার দূরেই রাখছে প্রিয়জনদের কাছ থেকে। বেতন-বোনাসহীন চলতি সময়ে যখন দুবেলার আহারই চ্যালেঞ্জের মুখে, তখন এবারের ঈদটা বড্ড সাদামাটাই। 

ঈদের আগেরদিন গুলিস্তানে কেনাকাটার চিরচেনা সেই সোরগোল নেই। নেই নিম্নবিত্তের ঈদ আয়োজন। আর যারা দু পয়সার পুঁজি খাটিয়েছেন, কোনোরকমে ঈদ পার করবেন বলে তাদেরও দুচোখে দুরাশা।

ভোগ-বিলাসে মত্ত মানবজীবনকে করোনা ভাইরাস গত কয়েক মাসে যে মানবতার বারতা দিয়েছে, তা হয়তো কারোরই বুঝতে বাকি নেই। তাই এবারের ঈদ শুধুই সহমর্মীতার হাত বাড়ানোর সহযোগী হয়ে পাশে দাঁড়ানোর।

 লাখো মুসল্লীর আমীন ধনিতে মুখরিত হয় যে জাতীয় ঈদগাহ দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বন্ধ রইলো তার দরজা। রাজধানীতে এবার নেই ঈদের কোনো সাজগোজ। আছে আর দশটা দিনের সাধারণ যাপিত জীবনের উপস্থিতি। যেখানে ন্যুনতম এই ছুটেচলা শুধুই বেঁচে থাকার তাগিদে। 

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর