channel 24

সর্বশেষ

  • ফিক্সিং অভিযোগ তদন্তে সাঙ্গাকারা ও জয়াবর্ধনকে তলব

  • প্রস্তুত হচ্ছে মিরপুর সহ দেশের আট ক্রিকেট ভেন্যু

  • করোনা পরবর্তী সময়ে সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জ পেসারদের: রুবেল

  • টয়োটাকে পেছনে ফেলে পুঁজিবাজারে শীর্ষস্থানে টেসলা

  • রোহিঙ্গাদের ৩০৪ কোটি টাকা দেবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

  • স্বাধীনতার পর সর্বোচ্চ রেমিট্যান্সের রেকর্ড

  • রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকদের পাওনা বুঝিয়ে দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • বাজেটের কপি ছিঁড়ে সংসদের চরম অবমাননা করেছেন: কাদের

  • যেকোনো দুর্যোগে মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে সরকার: পরিকল্পনামন্ত্রী

  • আবারও ক্রিকেটে ফিরতে মরিয়া পেসার আল আমিন

  • স্বাস্থ্য বিভাগ শতভাগ ভূমিকা পালন করতে পারছে না: সচিব

  • অপহরণের ৩ মাস পর ড্রামে মিললো ব্যবসায়ীর মরদেহ

  • বৈধ ভিসা নিয়ে যাওয়ার পরও ভারতে দুই মাস ধরে বন্দি ২৫ বাংলাদেশি

  • বরিশাল মেডিকেলে ইন্টার্ন চিকিৎসককে উত্ত্যক্তের অভিযোগে দুই কর্মচারীকে মারধর

  • লালমনিরহাটে বজ্রপাতে ৪ জনের মৃত্যু

ভুয়া আইনজীবী, দালাল, টাউট শনাক্তের নির্দেশ

ভুয়া আইনজীবী, দালাল, টাউট শনাক্তের নির্দেশ

সারাদেশের সকল আদালতে ভুয়া আইনজীবী, দালাল, টাউট শনাক্ত করে বার কাউন্সিলকে ব্যবস্থা গ্রহন করার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার (২ মার্চ ) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আগামী ৬০ দিনের মধ্যে ব্যবস্থা গ্রহন করে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট বলে জানিয়েছেন রিটকারী আইনজীবী ফরহাদ উদ্দিন ভুইঁয়া।

এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সারাদেশের সব আদালত প্রাঙ্গণ থেকে ভুয়া আইনজীবী, টাউট, দালাল, ভুয়া মুহুরি, ক্লার্ক শনাক্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ফরহাদ উদ্দিন আহমেদ ভূঁইয়া এ রিট করেন। রিটে আইন সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান, বার কাউন্সিল সচিব ও পুলিশ মহাপরিদর্শককে (আইজিপি) বিবাদী করা হয়।

রিটে আদালত অঙ্গন থেকে টাউট-দালাল নির্মূলে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ এবং কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে তা জানতে দেশের প্রতিটি আইনজীবী সমিতিতে একটি কমিটি গঠনের নির্দেশনা চাওয়া হয়।

রিট আবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ লিগ্যাল প্র্যাক্টিশনার্স অ্যান্ড বার কাউন্সিল অর্ডার ১৯৭২ এর ৪১ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী আইন পেশার সঙ্গে সম্পৃক্ত সবাইকে বার কাউন্সিল সনদপ্রাপ্ত হতে হবে। অন্যথায় ছয় মাসের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। কিন্তু বার কাউন্সিল এ বিষয়ে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় আদালত অঙ্গনে টাউট-দালাল দৌরাত্ম্য বেড়েই চলছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় খবর